আজকের খবরের কাগজের সেরা খবর

আজকের খবরের কাগজের সেরা খবর

আজকের খবরের কাগজের সেরা খবর

  • Share this:

প্রতিদিনের ব্যস্ততায় খবর কাগজ খুঁটিয়ে পড়া সম্ভব হয় না ৷ অনেক সময় গুরুত্বপূর্ণ খবর চোখ এড়িয়ে যায় ৷ তাছাড়া একাধিক কাগজও পড়ার মতো সময় কারোর হাতেই নেই ৷ তাই আসুন এক নজরে, একজায়গায় দেখে নিন কলকাতার বিভিন্ন কাগজের সেরা খবর গুলি ৷ সোমবারের গুরুত্বপূর্ণ খবরগুলি হল-

anandabazar11

১) সমর্থন কমছে শশিকলার, তামিলমাড়ুতে পাল্লা ক্রমশই ভারী হচ্ছে পনীরের

ক্ষমতা দখলের লড়াই যত তীব্র হচ্ছে, দুই শিবিরের মধ্যে উত্তেজনা তত বাড়ছে।

শশিকলা বনাম পনীরসেলভম।

আর এই লড়াইয়ে যত দিন যাচ্ছে, তত সমর্থন কমছে শশিকলার। অন্য দিকে ক্রমশ একটু একটু করে নিজের ঘর গুছিয়ে নিচ্ছেন পনীরসেলভম।

জয়ললিতার উত্তরসূরি কে হবেন, তা অনেকাংশেই ঝুলে রয়েছে সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশের উপরে। সেখানে শশিকলার বিরুদ্ধে দুর্নীতি মামলার রায় কবে ঘোষণা হবে, তা এখনও নিশ্চিত নয়। এই পরিস্থিতিতে রবিবার দিনভর দল গোছাতে ব্যস্ত ছিল দুই শিবির। আর তাতেই বোঝা গিয়েছে, পনীরের পাল্লা ক্রমশ ভারী হচ্ছে।

২) কালীঘাটে দম্পতিকে কোপানোয় অভিযুক্তের দেহ উদ্ধার হাওড়ায়

কালীঘাটে এক দম্পতিকে কুপিয়ে জখম করার ঘটনায় অভিযুক্ত হিসেবে তার নাম উঠে এসেছিল। পুলিশ তার খোঁজও করছিল শনিবার সন্ধ্যা থেকে। কিন্তু কালীঘাটের ঘটনার ১২ ঘণ্টার মধ্যে, রবিবার সকালে সেই অভিযুক্ত রোশনলাল বরদিয়ার (৪১) মৃতদেহ মিলল হাওড়ার রোজমেরি লেনের একটি অতিথিশালায়।

কালীঘাটে জখম দম্পতির আত্মীয় রোশনের পাকস্থলীতে বিষ পাওয়া গিয়েছে বলে ময়না-তদন্তের প্রাথমিক রিপোর্ট পেয়ে পুলিশের দাবি। রোশনলাল এক জনের সঙ্গে শনিবার রাতে হাওড়ার ওই অতিথিশালায় ওঠে। এ দিন সকাল ৬টা নাগাদ রোশনলালের সঙ্গী অতিথিশালা থেকে বেরিয়ে যায়। সব মিলিয়ে রহস্য ঘনীভূত হয়েছে।

৩) রঙিন গ্যালারি, বর্ণহীন মাঠ, হতাশাতেও যে আবির ওড়ে দেখাল ডার্বি

ইস্টবেঙ্গল-০

মোহনবাগান-০

কাঞ্চনজঙ্ঘার ঈশান কোণে ম্যাচ শেষে মুঠোমুঠো সবুজ-মেরুন আবির উড়িয়ে বাড়ি ফিরছিলেন সনি নর্ডির দলের সমর্থকরা।

বাকি মাঠেও এক ছবি। সেখানে জ্বলল কাগজের মশাল। লাল-হলুদ আবির।

কোনওটাই অবশ্য আনন্দে নয়। বরং হতাশা আর বঞ্চনার প্রতীক মনে হচ্ছিল শিলিগুড়ির গ্যালারিকে।

সমর্থকদের আসা শুরু হয়েছিল সকাল থেকেই। কলকাতা এবং উত্তরবঙ্গের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে এসে ভিড় জমিয়েছিলেন বেঙ্গল-বাগান পাগলরা। কিন্তু আঠাশ হাজারের গ্যালারি ভরিয়েছিলেন যাঁরা, তাঁদের কেউই সম্ভবত সঙ্গে করে আনা বিজয়োৎসবের সরঞ্জাম নিয়ে আর বাড়ি ফিরতে চাননি। তাই বিসর্জন।

এ রকম একটা নির্বিষ, পানসে ম্যাচের স্মৃতিচিহ্ন কেনই বা বয়ে নিয়ে যাবেন বাড়িতে!

ম্যাচের আগে লাল-হলুদ রিজার্ভ বেঞ্চ থেকে এসে সঞ্জয় সেনের সঙ্গে হাত মিলিয়ে গেলেন ট্রেভর জেমস মর্গ্যান। ম্যাচের পরও একই দৃশ্য। দু’জনের মুখেই কী স্বস্তি! কী তৃপ্তি!

 

bartaman_big11

১) শুভ্রার টাকা দুবাইয়ে পাচার কি মনোজের হাত দিয়েই?

দুবাইয়ের ব্যাংকে রোজভ্যালির টাকা গচ্ছিত রাখতেও কি ইডি থেকে সদ্য অপসারিত অফিসার মনোজ কুমারের সাহায্য পেয়েছেন গৌতম কুণ্ডুর স্ত্রী শুভ্রা কুণ্ডু? এই প্রশ্ন অনেক দিন ধরেই ঘুরপাক খাচ্ছিল। তা নিয়ে এবার তদন্ত শুরু করল সিবিআই। তারা জানতে পেরেছে, রোজভ্যালির প্রচুর টাকা দুবাইয়ের একটি ব্যাংকে রাখা রয়েছে। নির্দিষ্টভাবে একটি ব্যাংকে টাকা জমা পড়াতেই সন্দেহের সূত্রপাত। ঘটনাচক্রে আবার সেই ব্যাংকের বড় পদে রয়েছেন রোজভ্যালিকাণ্ডের অপসারিত তদন্তকারী অফিসার মনোজ কুমারের এক ঘনিষ্ঠ ব্যক্তি। রোজভ্যালির টাকা দুবাইয়ের ব্যাংকে রাখার ক্ষেত্রে ইডির প্রাক্তন কর্তার ঘনিষ্ঠের হাত থাকার বিষয়টি একেবারে উড়িয়ে দিচ্ছেন না গোয়েন্দারা। তাঁদের হাতে আসা কিছু নথির ভিত্তিতে এই সন্দেহ আরও দৃঢ় হয়েছে। এ বিষয়ে জানতে মনোজ কুমারকে ফোন করা হলে প্রথমে তিনি বলেন, বিষয়টি আমার জানা নেই। এই সংক্রান্ত কোনও নথি আমি পাইনি।

২) উদয়নের আরও দুই বান্ধবীও নিখোঁজ

আকাঙ্ক্ষা ছাড়া জয়শ্রী ও পূজা নামে উদয়নের আরও দুই প্রেমিকার হদিশ মিলছে না। পুলিশের জেরায় উদয়নের দেওয়া ঠিকানা আরেরা কলোনিতে গিয়ে ভোপাল পুলিশ তাঁদের কোনও সন্ধান পায়নি। আকাঙ্ক্ষার বন্ধু পাটনাবাসী বিকাশ নামে এক যুবকেরও পুলিশ কোনও হদিশ পাচ্ছে না। পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, শনিবার রাতে বাঁকুড়া সদর থানার একটি ঘরে উদয়নকে একটানা জেরা করা হয়। খোদ পুলিশ সুপার সুখেন্দু হীরা জিজ্ঞাসাবাদের জন্য সদর থানায় যান। উদয়নের ল্যাপটপ ঘেঁটে আকাঙ্ক্ষার সঙ্গে তোলা তার বেশ কিছু ছবি আগেই পুলিশ পেয়েছিল। শনিবার রাতে পুলিশ আরও এক যুবতীর সঙ্গে উদয়নের কিছু ঘনিষ্ঠ মুহূর্তের ছবি দেখতে পায়।

৩) কাশ্মীরে সেনার সঙ্গে সংঘর্ষে হত ৪ জঙ্গি,শহিদ ২ জওয়ান

রবিবার নিরাপত্তা বাহিনীর অভিযানে চার হিজবুল মুজাহিদিন জঙ্গি মারা পড়ল। যদিও গুলির লড়াইয়ে মৃত্যু হয়েছে দুই সেনাকর্মী ও এক সাধারণ মানুষের। এদিন কাকভোরে অভিযান শুরু হয়। টানা ১০ ঘণ্টা ধরে সংঘর্ষ চলে। দক্ষিণ কাশ্মীরের কুলগাঁওয়ের একটি গ্রামে জঙ্গিদের লুকিয়ে থাকার খবর পেয়ে সেখানে অভিযানে যায় নিরাপত্তা বাহিনী। পুলিশের এক অফিসার জানিয়েছেন, এই ঘটনায় এক অফিসারসহ সেনার তিন কর্মী জখম হয়েছেন। তাঁদের আকাশপথে শ্রীনগরের সেনা হাসপাতালে আনা হয়েছে। জখম এই সেনাকর্মীর অবস্থা স্থিতিশীল বলে খবর। তবে নিরাপত্তা বাহিনীর অভিযানের পরই ওই এলাকা রণক্ষেত্রের চেহারা নেয়। নিরাপত্তা বাহিনীকে লক্ষ্য করে পাথর ছুঁড়তে শুরু করে কয়েকশো মানুষ, বিশেষ করে অল্প বয়সিরা। নিরাপত্তা বাহিনীর সঙ্গে শুরু হয়ে যায় ব্যাপক সংঘর্ষ।

৪) দৃষ্টিভঙ্গির অভাবে যোগ্যতা সত্ত্বেও পিছিয়ে পড়ছে উত্তরাখণ্ড, কংগ্রেসকে চাঁচাছোলা আক্রমণ প্রধানমন্ত্রীর

‘দেবভূমি’ পরিণত হয়েছে ‘লুটভূমি’তে। যোগ্যতা সত্ত্বেও লক্ষ্য-দূরদর্শিতা না থাকায় ক্রমশ ঝাড়খন্ড, ছত্তিশগড়ের থেকে পিছিয়ে পড়ছে পড়ছে উত্তরাখণ্ড। আর তাই উন্নয়নের স্বার্থে বিজেপিকে ঢেলে ভোট দেওয়ার আবেদন জানিয়েছে কংগ্রেসকে চাঁচাছোলা আবেদন করলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। রবিবার ‘গীতি’ ময়দানে একটি নির্বাচনী জনসভা করেন প্রধানমন্ত্রী। সেখানে উপযুক্ত দৃষ্টিভঙ্গির অভাবে উত্তরাখন্ড উন্নয়নের মানচিত্র থেকে পিছিয়ে পড়ছে বলে হরিশ রাওয়াত নেতৃত্বাধীন কংগ্রেস সরকারকে তুলোধনা করেন তিনি। বিজেপি শাসিত ছত্তিশগড় ও ঝাড়খন্ডের অগ্রগতির কথা তুলে ধরে মোদি বলেন, মাওবাদী সমস্যা সত্ত্বেও দ্রুততম অগ্রগতির রাজ্য হিসাবে নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করেছে ছত্তিশগড়।

First published: 11:25:15 AM Feb 13, 2017
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर