মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক স্তরে শিক্ষক নিয়োগ নিয়ে গুরুত্বপূর্ণ কথা জানাল স্কুল সার্ভিস কমিশন

মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক স্তরে শিক্ষক নিয়োগ নিয়ে গুরুত্বপূর্ণ কথা জানাল স্কুল সার্ভিস কমিশন

স্কুল কমিশনের আশা, এপ্রিলের প্রথম সপ্তাহের মধ্যেই মামলাগুলিতে স্থগিতাদেশ উঠে যাবে ৷

  • Share this:

#কলকাতা: স্কুল কমিশনের আশা, এপ্রিলের প্রথম সপ্তাহের মধ্যেই মামলাগুলিতে স্থগিতাদেশ উঠে যাবে ৷ স্থগিতাদেশ উঠে গেলেই নিয়োগ প্রক্রিয়া শুরু হবে। মূলত, নবম-দশম ও একাদশ-দ্বাদশে শিক্ষক নিয়োগের লিখিত পরীক্ষা হয়ে গেলেও তার ফলপ্রকাশে স্থগিতাদেশ রয়েছে।

কর্মরত শিক্ষকদের মামলার জেরে ফলপ্রকাশে স্থগিতাদেশ জারি। মামলার গেরো পার্শ্বশিক্ষকদের সংরক্ষণ সংক্রান্ত দাবিতেও। এই দুইই এখন কমিশনের মাথাব্যথার কারণ। কমিশনের আশা এপ্রিলের প্রথম সপ্তাহের মধ্যেই মামলাগুলিতে স্থগিতাদেশ উঠে যাবে। ফলে দ্রুত হবে নিয়োগ প্রক্রিয়া।

স্কুল সার্ভিস কমিশনের এখন দুটি বিষয় মূলত চিন্তার কারণ,

১. কর্মরত শিক্ষকদের চাকরির জন্য ফের আবেদনের বিষয়টি, যা নিয়ে একাধিক মামলা করা হয়েছে।, তা নিয়ে ফলপ্রকাশে হাইকোর্টের স্থগিতাদেশ আছে ৷

২. প্যারাটিচারদের সংরক্ষণ সংক্রান্ত মামলাতেও ফল প্রকাশে স্থগিতাদেশ দিয়েছে হাইকোর্ট ৷

এই দুটি বিষয়ই কমিশনের কাছে চিন্তার ৷ শুক্রবার উচ্চপ্রাথমিকের নিয়োগ নিয়ে দায়ের হওয়া একটি মামলায় তীব্রভাবে ভর্ৎসিত হন স্কুল সার্ভিস কমিশন চেয়ারম্যান সুবীরেশ ভট্টাচার্য ৷

আরও পড়ুন, 

‘কেন এত উদাসীনতা’, শিক্ষক নিয়োগ মামলায় হাইকোর্টে ভর্ৎসিত SSC চেয়ারম্যান

মামলার গেরো কাটলে এসএসসিতে রাতারাতি নিয়োগ হবে বলে ঘোষণা করেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। একই প্রতিশ্রুতি দেন শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়ও। এবারও সেই একই সুর হাইকোর্টেরও। তবে কাঠগড়ায় স্কুল সার্ভিস কমিশন। মামলার কাঁটা কি দ্রুত সরবে? সেদিকে তাকিয়ে ২৬ লক্ষ পরীক্ষার্থী।

আরও পড়ুন

স্থগিতাদেশ তো উঠে গেল, কবে হবে মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক স্তরের শিক্ষক নিয়োগের ফলপ্রকাশ?

First published: 06:12:18 PM Mar 23, 2017
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर