• Home
  • »
  • News
  • »
  • kolkata
  • »
  • SITALKUCHI CASE SUSPENDED POLICE OFFICER DEBASHIS DHAR SUMMONED BY CID PBD

শীতলকুচিকাণ্ডে এবার কোচবিহারের প্রাক্তন এসপিকে তলব করল সিআইডি 

শীতলকুচি ১২৬ নম্বর বুথে ঘটনার দিন তৎকালীন পুলিশ সুপারের ঠিক কী ভূমিকা ছিল? জানার চেষ্টা করবে সিআইডি

শীতলকুচি ১২৬ নম্বর বুথে ঘটনার দিন তৎকালীন পুলিশ সুপারের ঠিক কী ভূমিকা ছিল? জানার চেষ্টা করবে সিআইডি

  • Share this:

#কলকাতা: শীতলকুচি কাণ্ডে কোচবিহারের  প্রাক্তন  পুলিশ সুপার  দেবাশিস  ধরকে  তলব করল সিআইডি |  আগামী ১৮ জুন সকাল সাড়ে এগারোটা নাগাদ ভবানী ভবনে  তলব করা হয়েছে বলে সিআইডি সূত্রে খবর| তৎকালীন  এসপি  দেবাশিস  ধর  বর্তমানে সাসপেন্ডেড| শীতলকুচি ১২৬ নম্বর বুথে  ঘটনার দিন তৎকালীন পুলিশ সুপারের ঠিক কী ভূমিকা  ছিল? কারণ   গন্ডগোলের সময় ঘটনাস্থলে  তিনি ছিলেন না| কিন্তু এসপি হিসাবে গোটা বিষয়ে জানার পর তিনি কী অ্যাকশন নিয়েছিলেন? ঘটনাস্থলে মাথাভাঙ্গা আইসি সহ একধিক অফিসার ছিলেন|  ঘটনার সম্পর্কে এসপিকে তাঁরা ফোনে জানবার পর একজন পুলিশ সুপার হিসাবে তার কী ভূমিকা ছিল? সিআইডি  সিট গঠনের পর তদন্তে উঠে আসে যে, গুলি বুথের বাইরেই শুধু চলেছে এমন নয়, বুথের দিকে তাক করেও গুলি চলেছিল |  যার ফলে দরজা ভেদ করে বুথের ভিতর ব্ল্যাকবোর্ডে  গিয়ে লাগে গুলি |  সেক্ষেত্রে খতিয়ে দেখে তদন্তের  আগেই  একজন  এসপি হিসাবে উনি কী করে বলে দিলেন যে আত্মরক্ষার্থে কেন্দ্রীয় বাহিনী গুলি চালিয়েছিল? গন্ডগোল বাইরে হচ্ছিল, বুথের ভিতরে কেন গুলি চলল? এই  সব  নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে তাকে, সিআইডি সূত্রে খবর |

১৭মে   সিআইডি  সিটের টিমের আধিকারিকরা শীতলকুচিতে  ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে |  সেখানে ১২৬ নম্বর বুথের ভিতরে তাক করে যে গুলি চলেছিল তা  তদন্তে উঠে আসে |  এরপর তা নিশ্চিত  করতে ফরেন্সিকের ব্যালেস্টিক  টিমের সদস্যরা  ঘটনাস্থলে পরিদর্শন  করেন | সেখানে তাঁরা সিআইডিকে প্রাথমিক  ভাবে জানান  ব্ল্যাকবোর্ডে  যে গুলি লেগেছিল তা  রাইফেলের  গুলি | সিআইডি সূত্রে খবর , এই ঘটনায় ৬ জন কেন্দ্রীয় বাহিনী সদস্যকে তিন বার তলব করা হয়েছিল | কিন্তু তা সত্ত্বেও  তাঁরা কেউই  ভবানী ভবনে  এসে হাজির হননি বলে দাবি সিআইডির | সিআইডি  সূত্রে খবর, গত  ১২ মে  মাথাভাঙ্গা SDPO  সুরজিৎ  মণ্ডলকে ভবানী ভবনে ডেকে  জিজ্ঞাসাবাদ করা হয় | ১১ মে মাথাভাঙ্গার  এসআই  গোবিন্দ  দাসকে ভবানী ভবনে  তলব করে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয় |  ঘটনার দিন আরটি  মোবাইলের  দায়িত্বে ছিল গোবিন্দ দাস | ১৯মে মাথাভাঙ্গা IC বিসাশ্রয়  সরকার  এবং  সেক্টর  অফিসার ASI  রফা   বর্মন, এবং কিউআরটি অফিসার  ASI সুব্রত মন্ডলকে ভবানী  ভবনে  তলব করে জিজ্ঞাসাবাদ করা  হয় | গত  ২৫ মে DMDC মাথাভাঙ্গা  টি  ভুটিয়া (যিনি রিটার্নিং  অফিসার)  এবং মাথাভাঙ্গার বিডিও সম্বল ঝা (যিনি  অ্যাসিস্ট্যান্ট রিটার্নিং অফিসারের ভূমিকায় ছিলেন)  তাদেরকেও তলব করে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয় ভবানী ভবনে | রেকর্ড  করা হয় অফিসারদের বয়ান |  প্রত্যক্ষদর্শীদের বয়ানও রেকর্ড করে সিআইডি |

সিআইডি  সূত্রে খবর, ব্যালেস্টিক  টিমের প্রাইমারি  ওপিনিয়ন  অনুসারে রাইফেলের গুলি ঘটনার দিন বুথের দিকে তাক করে ছোড়া হয়েছিল | পুলিশের দাবি, ঝামেলা হচ্ছিল বুথের বাইরে সেক্ষেত্রে  আত্মরক্ষার্থে  গুলি চালানো হলে,  কেন বুথের ভিতর গুলি ছোড়া হল৷ এই প্রশ্ন মুখ্য হয়ে উঠেছে৷ গোটা বিষয়টি তদন্ত  করে দেখছে সিআইডির সিটের  আধিকারিকরা | আর সেকারণেই এবার কোচবিহারের  প্রাক্তন এসপি দেবাশিস ধরকে ১৮ জুন  তলব করা হয়েছে ভবানী  ভবনে |

Published by:Pooja Basu
First published: