• Home
  • »
  • News
  • »
  • kolkata
  • »
  • সল্টলেকে ফ্ল্যাট নিয়ে বিবাদের জের, গুন্ডাবাহিনী দিয়ে অধ্যাপিকাকে বেধড়ক মারধর

সল্টলেকে ফ্ল্যাট নিয়ে বিবাদের জের, গুন্ডাবাহিনী দিয়ে অধ্যাপিকাকে বেধড়ক মারধর

নিজস্ব চিত্র

নিজস্ব চিত্র

২০ বছর ধরে ভাড়াটিয়া জানেন, ফ্ল্যাটের মালিক এক ব্যক্তি। অন্য এক ব্যক্তি এসে হঠাৎ দাবি করেন, ওই ফ্ল্যাটের মালিক নাকি তিনি।

  • Share this:

    #কলকাতা: ২০ বছর ধরে ভাড়াটিয়া জানেন, ফ্ল্যাটের মালিক এক ব্যক্তি। অন্য এক ব্যক্তি এসে হঠাৎ দাবি করেন, ওই ফ্ল্যাটের মালিক নাকি তিনি। এই নিয়েই বচসা। সল্টলেকের পূর্বাচলের ওই ফ্ল্যাটটি ছাড়তে রাজি না হওয়ায় অধ্যাপিকাকে বেধড়ক মারধরের অভিযোগ। গুরুতর জখম অবস্থায় হাসপাতালে ভর্তি অধ্যাপিকা।

    আরও পড়ুন: মার্কিন সংবাদপত্র দফতরে গুলিবৃষ্টি, হত অন্তত ৫

    সল্টলেকের পূর্বাচলে ২০ বছর ধরে সুপ্রিয়া বসুর এই ফ্ল্যাটে ভাড়া থাকেন অধ্যাপিকা মহুয়া চক্রবর্তী ও তাঁর স্বামী কৌশিক মুখোপাধ্যায়। অভিযোগ, হঠাৎই আবাসনের বাসিন্দা আশিস রায়ের সঙ্গে ফ্ল্যাট নিয়ে গন্ডগোল বাঁধে ওই দম্পতির।

    - আশিস রায় নিজেকে ওই ফ্ল্যাটের মালিক বলে দাবি করেন - আশিস রায়ের দাবি, তিনি ফ্ল্যাটটি কিনেছেন - দম্পতিকে ওই ফ্ল্যাটটি ছেড়ে দিতে বলেন - দম্পতি আদালতের দ্বারস্থ হন - মামলায় হেরে যান আশিস রায়

    অারও পড়ুন: বজ্রপাতের সময় মোবাইল ব্যবহার বিপজ্জনক, জানাচ্ছে আবহাওয়া দফতর

    অভিযোগ, আদালতের রায়ের পরেও থামেননি আশিস। বুধবার রাতে আচমকা দলবল নিয়ে চড়াও হন তিনি। অধ্যাপিকাকে বেধড়ক মারধর করা হয়। ভাঙচুরও চালানো হয় ওই ফ্ল্যাটে।

    আরও পড়ুন: চুড়িদারের প্যাকেটে বিদেশে মাদক পাচার, বিমানবন্দরে ধরা পড়ল আড়াই কোটি টাকার ড্রাগস

    গুরুতর জখম অবস্থায় বিধাননগর মহকুমা হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয় অধ্যাপিকাকে। অবস্থার অবনতি হওয়ায় স্থানান্তরিত করা হয় সল্টলেকের বেসরকারি হাসপাতালে। অধ্যাপিকার স্বামীর অভিযোগ, বিধাননগর দক্ষিণ থানা শুধুমাত্র জেনারেল ডায়েরি নিয়েই ছেড়ে দেয়। পুলিশের বিরুদ্ধে নিষ্ক্রিয়তার অভিযোগ এনেছেন তিনি।

    First published: