corona virus btn
corona virus btn
Loading

কীভাবে হবে অনলাইনে ক্লাস? কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের Zoom অ্যাপ নিয়ে নির্দেশিকার পর চিন্তায় স্কুলগুলি

কীভাবে হবে অনলাইনে ক্লাস? কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের Zoom অ্যাপ নিয়ে নির্দেশিকার পর চিন্তায় স্কুলগুলি
Representational Image

কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকের নির্দেশিকা জারির পর জুম অ্যাপ-এর মাধ্যমে কিভাবে একাধিক ছাত্রের ক্লাস নেওয়া সম্ভব তা নিয়েই চিন্তিত কলকাতার একাধিক স্কুল।

  • Share this:

#কলকাতা: কলকাতা ও শহরতলীর বেসরকারি ইংরেজি মাধ্যম স্কুল গুলি অনলাইনে ক্লাস নেওয়া নিয়ে পড়েছে সমস্যায়। বৃহস্পতিবার কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকের তরফে নির্দেশিকা দিয়ে জানানো হয়েছে জুম অ্যাপ সুরক্ষিত নয় কোন বৈঠক বা মিটিং এর ক্ষেত্রে। কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকের নির্দেশিকা জারির পর জুম অ্যাপ-এর মাধ্যমে কিভাবে একাধিক ছাত্রের ক্লাস নেওয়া সম্ভব তা নিয়েই চিন্তিত কলকাতার একাধিক স্কুল।

ইতিমধ্যেই শুক্রবার থেকেই বিকল্প চিন্তা ভাবনা শুরু করেছে স্কুলগুলি। কলকাতার অনেক বেসরকারি স্কুলই মার্চ মাসের তৃতীয় সপ্তাহ থেকে জুম অ্যাপ এর মাধ্যমে ছাত্র-ছাত্রীদের ক্লাস নেওয়া শুরু করেছিল। যদিও অনেক স্কুলে আবার নিজেদের প্রযুক্তির সাহায্যে বা নিজেদের স্কুলের অ্যাপের সাহায্যে ক্লাস নিচ্ছিল। এ প্রসঙ্গে ডন বস্কো পার্কসার্কাস স্কুলের প্রিন্সিপাল ফাদার বিকাশ মণ্ডল বলেন "আমরা ক্লাস নেওয়া শুরুর দিন থেকেই জুমের বদলে অন্যান্য প্রযুক্তির সাহায্য নিয়ে ক্লাস নেওয়া হচ্ছে।" অন্যদিকে সেন্ট্রাল মডার্ন স্কুলের প্রিন্সিপাল নবারুণ দে বলেন " আমাদের স্কুলের নির্দিষ্ট একটি অ্যাপস রয়েছে। সেই অ্যাপস-এর মাধ্যমে ছাত্র-ছাত্রীদের ক্লাস নেওয়া হচ্ছে।"

যদিও কলকাতার একাধিক স্কুল জুম অ্যাপস কে ব্যবহার করেই ১৫ মার্চের পর থেকে ক্লাস নেওয়া শুরু করেছে। এ প্রসঙ্গে রামমোহন মিশন স্কুলের প্রিন্সিপাল সুজয় বিশ্বাস বলেন " কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকের নির্দেশিকা দেখেছি। জুম অ্যাপ এর সাহায্যে আমরা ক্লাস নেওয়া হচ্ছিল। আমরা বিকল্প ব্যবস্থা শীঘ্রই কার্যকরী করার চেষ্টা করছি।" অন্যদিকে দ্য ফিউচার ফাউন্ডেশন স্কুলের প্রিন্সিপাল রঞ্জন মিত্তার বলেন "কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকের নির্দেশটি দেখেছি। রাতারাতি তো বদল করা সম্ভব নয়। বিকল্প ব্যবস্থা আমরা চেষ্টা করছি।"

রাজ্যে করোনাভাইরাস আতঙ্কে স্কুল গুলি বন্ধ হয়ে যাওয়ার পরই কলকাতা ও শহরতলীর বেসরকারি স্কুলগুলোতে প্রথমদিকে অনলাইনে ক্লাস শুরু করা হয়েছিল।মূলত ছাত্র-ছাত্রীদের সিলেবাস শেষ করা যায় তা নিয়ে এই উদ্যোগ নিয়েছিল স্কুল গুলি। বেসরকারি স্কুল গুলি অনলাইনে ক্লাস শুরু করলেও এপ্রিল মাসের ঘোড়া থেকে বেশ কিছু সরকারি স্কুলের শিক্ষকরাও জুম অ্যাপের সাহায্যে ছাত্র-ছাত্রীদের ক্লাস নেওয়া শুরু করে। এমনকি কলকাতার একাধিক কলেজের অধ্যাপক অধ্যাপিকা এই অ্যাপের সাহায্যে অনলাইনে ক্লাস নেওয়া শুরু করে। তবে সাম্প্রতিক কালে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকের এই নির্দেশ এর জেরে কার্যত সমস্যাতেই পড়েছে স্কুল ও কলেজ গুলি।

সোমরাজ বন্দোপাধ্যায়

First published: April 17, 2020, 5:12 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर