• Home
  • »
  • News
  • »
  • kolkata
  • »
  • বাইপাসের পাঁচতারা হোটেলে ডি জে দাপট, জব্দ করতে অভিনব পন্থা এলাকাবাসীদের

বাইপাসের পাঁচতারা হোটেলে ডি জে দাপট, জব্দ করতে অভিনব পন্থা এলাকাবাসীদের

পাড়ায় পাড়ায় ডিজে বাজানোয় অতিষ্ঠ সাধারণ মানুষ। যে কোনও হুজুগেই তারস্বরে বাজানো হচ্ছে ডিজে-বক্স।

পাড়ায় পাড়ায় ডিজে বাজানোয় অতিষ্ঠ সাধারণ মানুষ। যে কোনও হুজুগেই তারস্বরে বাজানো হচ্ছে ডিজে-বক্স।

পাড়ায় পাড়ায় ডিজে বাজানোয় অতিষ্ঠ সাধারণ মানুষ। যে কোনও হুজুগেই তারস্বরে বাজানো হচ্ছে ডিজে-বক্স।

  • Share this:

    #কলকাতা: পাড়ায় পাড়ায় ডিজে বাজানোয় অতিষ্ঠ সাধারণ মানুষ। যে কোনও হুজুগেই তারস্বরে বাজানো হচ্ছে ডিজে-বক্স। তোয়াক্কা করা হচ্ছে না সময় বা শব্দবিধির। এমনই সমস্যার মুখে অভিনব প্রতিবাদ জানালেন বাইপাসের ধারের অভিজাত আবাসন সিলভার স্প্রিং-এর বাসিন্দারা।

    ক্রিসমাস-নিউইয়ার হোক বা সরস্বতী পুজো। কিংবা জন্মদিন বা বিয়েবাড়ি। পাড়ায় পাড়ায় ডিজে বাজানো এখন যেন হালের ফ্যাশন। সুযোগ পেলেই তারস্বরে বাজানো হচ্ছে বক্স। সময় বা শব্দবিধিকে বড়ু আঙুল দেখিয়েই। তাতে অন্যরা সমস্যায় পড়লে পড়ুক। ডিজে প্রেমীদের কুছ পরবা নেহি।

    গত কয়েকমাস ধরে এই ডিজের জেরেই সমস্যায় পড়েছে বাইপাসের ধারের অভিজাত আবাসন সিলভার স্প্রিং। আবাসনের পাশেই পাঁচতারা হোটেল। সেই হোটেলের নিত্যদিনের অনুষ্ঠানেই নাজেহাল আবাসিকরা। ডিজে-আসতবাজির দাপটে অতিষ্ঠ হয়ে উঠেছে তাঁদের জীবন।

    গতবছর নভেম্বরেই হোটেল কর্তৃপক্ষকে বিষয়টি জানান আবাসিকরা। তাতে কাজ না হওয়ায় প্রগতি ময়দান থানায় অভিযোগ দায়ের করেন। চিঠি লেখেন পুলিশ কমিশনারকেও। তাতেও কমেনি শব্দদানবের দাপট। শেষে সকলের দৃষ্টি আকর্ষণ করতে অভিনব পন্থা নেন আবাসিকরা। আবাসনের বহুতলে বিশাল ফ্লেক্স টাঙিয়ে দেন। ফ্লেক্সে লেখা, ‘জে ডাব্লিউ ম্যারিয়ট, তোমাদের চড়া শব্দ আমাদের অতিষ্ঠ করে তুলেছে ৷’

    দেশজুড়ে শব্দের সর্বোচ্চ মাত্রা ১২৫ ডেসিবল। কিন্তু রাজ্যেই সেই মাত্রা ৯০ ডেসিবলে বেঁধে রাখতে চায় প্রশাসন। এজন্য শব্দবিধি বিজ্ঞপ্তিও জারি করা হয়। কিন্তু পদ্ধতিগত ক্রুটির কারণে, বুধবার রাজ্যের সেই বিজ্ঞপ্তি খারিজ করে দেয় গ্রিন ট্রাইব্যুনাল। দ্রুতই শব্দবিধি নিয়ে নতুন বিজ্ঞপ্তি জারি করতে চলেছে রাজ্য সরকার।

    First published: