• Home
  • »
  • News
  • »
  • kolkata
  • »
  • Online Food Auction App : মনপসন্দ খাবার এ বার নিলামে ঘরে বসেই

Online Food Auction App : মনপসন্দ খাবার এ বার নিলামে ঘরে বসেই

এবার আপনাদের জন্য রয়েছে একেবারেই হাতের মুঠোয় সুবর্ণসুযোগ, বলা ভালো নিলামে অংশগ্রহণের সুযোগ

এবার আপনাদের জন্য রয়েছে একেবারেই হাতের মুঠোয় সুবর্ণসুযোগ, বলা ভালো নিলামে অংশগ্রহণের সুযোগ

Online Food Auction App : খাবার? এখন এও সম্ভব? একেবারেই আশ্চর্যের বিষয় নয় যদিও। অন্য কোথাও নয়, একেবারে শহর কলকাতার বুকে এটি সম্ভব হচ্ছে। বিশ্বাসযোগ্য না হলেও সত্যি।

  • Share this:

কলকাতা : ঘরে বসে মনপসন্দ খাবারের নিলাম (Food Auction)! লকডাউনের কোপে ওয়াইনের অকশন দেখা গিয়েছে শহরে ৷ তা বলে খাবার? এখন এও সম্ভব? একেবারেই আশ্চর্যের বিষয় নয় যদিও। অন্য কোথাও নয়, একেবারে শহর কলকাতার বুকে এটি সম্ভব হচ্ছে। বিশ্বাসযোগ্য না হলেও সত্যি।

যদিও খেতে ভালবাসেন না এমন বাঙালি হাতে গোনা। বাঙালির পেটপুজোতেও  বারো মাসে তেরো পার্বণ। জিভে জল আনা বার্গার থেকে বিরিয়ানি, ইলিশ থেকে চিংড়ি, পার্শে থেকে পাবদা, বিভিন্ন রকমারি মেনু চড়ছে নিলামে। পকেট গড়ের মাঠ হলেও এমন অনেকেই আছেন দু’-তিনবার চিন্তা ভাবনা করেন বটে! তবে এবার আপনাদের জন্য রয়েছে একেবারেই হাতের মুঠোয় সুবর্ণসুযোগ, বলা ভালো নিলামে অংশগ্রহণের সুযোগ।

প্রথম অনলাইন ফুড অকশন অ্যাপ (Online Food Auction App) একদম দু’ টাকায় আপনার বাড়িতে পৌঁছে দেবে ‘মন-যা-চাই-খাবার’। দক্ষিণ কলকাতার ৫১৯টি রেস্তরাঁর সুস্বাদু খাবার আপনার জন্য একেবারে দোরগোড়ায়, প্রাতরাশ থেকে নৈশভোজ প্রতিদিন  নিলামে ।

আরও পড়ুন : ইতিহাসের সমাপ্তি! গীতা পাঠ সহযোগে নন-এসি মেট্রোর বিদায় চিরকালের মতো

কীভাবে? ১৫ মিনিটের এই অকশনে শুধু সময় বুঝেই অ্যাপে ঢুকে প্রতিযোগিতায় অংশ নিতে হবে আপনাকে। অ্যাপের নিয়ম অনুযায়ী, একটি নির্দিষ্ট দাম বেঁধে দেওয়া হবে খাবারের। যদি কোনও আইটেমের দাম ২ টাকা হয় তবে আপনাকেই এ বার নিজের মতো টাকা ধীরে ধীরে ইনভেস্ট করতে হবে। যিনি সবথেকে বেশি টাকা ইনভেস্ট করবেন তিনিই বিজয়ী।

এবার আপনাদের জন্য রয়েছে একেবারেই হাতের মুঠোয় সুবর্ণসুযোগ, বলা ভালো নিলামে অংশগ্রহণের সুযোগ

এরকম ভাবে প্রথম তিনজনকে বেছে নেওয়া হবে সৌভাগ্যবান বিজেতা হিসেবে।  শুধুমাত্র ডেলিভারি চার্জটুকু দিয়েই নিজের বাড়িতে পেয়ে যাবেন খাবার। পঞ্চমীর দিনে বিকেলে নিলাম চলেছে। জয়ী তিনজন  ১৫০  টাকার বিরিয়ানি পেয়েছেন যথাক্রমে ৫ টাকা ৪টাকা ৫০ ও ৪ টাকায়।

আরও পড়ুন : আজই রাজ্য থেকে বর্ষা বিদায়! শীতের ইনিংস শুরু কবে থেকে? আশা জাগিয়ে হাওয়া অফিস জানাল...

তবে যাঁরা প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করছেন না, তাঁদের কিন্তু মনখারাপের এতটুকুও কারণ নেই। খাদ্যরসিক বাঙালির জন্য থাকছে সেই খাবারের জন্য আকর্ষণীয় ৭০% থেকে ৭৫% ডিসকাউন্ট! শুধু ডেলিভারি চার্জ অ্যাড করলেই একেবারে কেল্লাফতে!

তাহলে কী বুঝলেন ? যদি ভালমন্দ খেতে হয় জলদি অ্যাপে ঢুঁ মারতেই হচ্ছে। আর সাবস্ক্রিপশনমূল্য মাত্র ২ টাকা! বেসরকারি অ্যাপ ‘হাংরি টপ’-এর তরফে বাঙালি সফটওয়্যার ইঞ্জিনিয়ার অমিতাভ রায়চৌধুরী জানিয়েছেন করোনার কোপে বৃদ্ধ অনেকেই  বাইরে বার হতে পারছিলেন না ৷ রেস্তরাঁগুলো উৎসবের মরসুম ছাড়া প্রায় বসা। অনেকের পকেটেই টান। তাই  এই গেম অ্যাপ। অন্যদিকে নিউ আলিপুরের শুভজিৎ চ্যাটার্জীর  বাড়িতে ৭ বছরের মেয়ে, ৮৫ বছরের বৃদ্ধ মা করোনার কবলে দু'বছর অনলাইনে খাবার আনিয়েছেন। তিনি মাত্র ২৫ টাকার বিনিময়ে নিলামে পেলেন বিরিয়ানি।

Published by:Arpita Roy Chowdhury
First published: