বিজেপির রথযাত্রার অনুমোদন দিল না ডিভিশন বেঞ্চও, সমস‍্যা সমাধানে বৈঠকের নির্দেশ

  • Share this:

    #কলকাতা:  ডিভিশন বেঞ্চেও হোঁচট। বঙ্গে বিজেপির রথযাত্রা কর্মসূচির অনুমতি দিল না ডিভিশন বেঞ্চও। সমাধান সূত্র বের করতে বিজেপি ও রাজ‍্য সরকারের শীর্ষ কর্তাদের বৈঠকে বসার নির্দেশ দিয়েছে। আপাতত গেরুয়া শিবিরের কাছে এটাই অক্সিজেন।

    সিঙ্গল বেঞ্চের পর এবার কলকাতা হাইকোর্টের ডিভিশন বেঞ্চ। রথযাত্রা মামলায় স্বস্তি পেল না বিজেপি। বৃহস্পতিবার সিঙ্গল বেঞ্চ, বিজেপির গণতন্ত্র বাঁচাও যাত্রার উপর নিষেধাজ্ঞা জারি করে।

    বিচারপতি তপব্রত চক্রবর্তীর এই নির্দেশকে চ‍্যালেঞ্জ করে ডিভিশন বেঞ্চে যায় বিজেপি। কিন্তু, সেখানেও কাঁটা। বিজেপির রথযাত্রার অনুমতি দিল না ডিভিশন বেঞ্চও। তবে, রথযাত্রা কর্মসূচিকে আলোচনার পথে নিয়ে যেতে বলেছে হাইকোর্ট। বিচারপতি বিশ্বনাথ সমাদ্দার ও বিচারপতি অরিন্দম মুখার্জির ডিভিশন বেঞ্চের নির্দেশ

    বিজেপির রথযাত্রা কর্মসূচি নিয়ে বৈঠকে বসবেন মুখ‍্যসচিব, স্বরাষ্ট্রসচিব এবং রাজ‍্য পুলিশের ডিজি। বৈঠকে থাকবেন রাজ‍্য বিজেপির সর্বাধিক তিন নেতা।  আগামী বুধবারের মধ‍্যে এই বৈঠক করতে হবে। রথযাত্রা কর্মসূচি হবে কি না তা নিয়ে চুলচেরা বিশ্লেষণ করে ১৪ ডিসেম্বরের মধ‍্যে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নিতে হবে।

    সিঙ্গল বেঞ্চের বিচারপতি তপব্রত চক্রবর্তী জানিয়েছিলেন, রথযাত্রা মামলার পরবর্তী শুনানি ৯ জানুয়ারি। ততদিন রথযাত্রা পিছনোর নির্দেশ দেন। এই অংশটির এ দিন সংশোধন করে ডিভিশন বেঞ্চ। তারা দু’পক্ষকে বলেছে আলোচনায় বসতে। ফলে, ৯ ও ১৪ তারিখের বিজেপির রথযাত্রা কর্মসূচি অনিশ্চিতই রয়ে গেল।

    এ দিন শুনানি পর্বে অবশ‍্য ডিভিশন বেঞ্চের সমালোচনাও হজম করতে হয় রাজ‍্য সরকারের তরফে থাকা অ‍্যাডভোকেট জেনারেল কিশোর দত্তকে। ডিভিশন বেঞ্চ বলে--

    ২৯ অক্টোবর বিজেপির তরফে প্রথম চিঠি দেওয়া হয় স্বরাষ্ট্রসচিবকে। সেই চিঠিতে কর্মসূচি নিয়ে আলোচনার জন‍্য সাক্ষাৎ চেয়ে আবেদন করা হয়। এরপর স্বরাস্ট্রসচিব ও ডিজি মিলিয়ে আরও পাঁচবার বিজেপির তরফে চিঠি দেওয়া হয়। ডিভিশন বেঞ্চ প্রশ্ন তোলে, এই দীর্ঘ সময় ধরে রাজ‍্য সরকার কেন নীরব ছিল? এই নীরবতা অষ্টম আশ্চর্যের মতো। রাজ‍্য সরকারের তরফ বিজেপিকে উত্তর দেওয়া হলে ৪১ দিনের রথযাত্রা কমে ১৫ দিনে হতে পারত। বিষয়টি আদালতে এলে কর্মসূচির আরও অদলবদল হতে পারত। রাজ‍্য সরকার সাড়া না দেওয়াতেই এই মামলার জট।

    আরও পড়ুন-'রথযাত্রা হবেই ! ' হুংকার অমিতের

    First published: