Home /News /kolkata /
Covid 19: করোনা বিধিনিষেধে একাধিক বড় বদল, নবান্ন থেকে ঘোষণা করলেন মুখ্যমন্ত্রী

Covid 19: করোনা বিধিনিষেধে একাধিক বড় বদল, নবান্ন থেকে ঘোষণা করলেন মুখ্যমন্ত্রী

মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। ফাইল ছবি

মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। ফাইল ছবি

Covid 19: রেস্তরাঁ-বার ইত্যাদির ক্ষেত্রে ৭৫ শতাংশ ক্রেতা নিয়ে তা চালানোর ছাড় দেওয়া হয়েছে। খুলে দেওয়া হচ্ছে পার্কও।

  • Share this:

#কলকাতা: করোনা বিধিনিষেধে (Covid 19) একাধিক ছাড়ের কথা ঘোষণা করলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। আগামী ৩ তারিখ থেকে স্কুল-কলেজ খুলছে। পাশাপাশি আরও কিছু বিধিনিষেধে (Covid 19) ছাড় দেওয়া হচ্ছে। এ ছাড়া রেস্তরাঁ-বার ইত্যাদির ক্ষেত্রে ৭৫ শতাংশ ক্রেতা নিয়ে তা চালানোর ছাড় দেওয়া হয়েছে। খুলে দেওয়া হচ্ছে পার্কও। তবে কার্যকর থাকছে নাইট কার্ফু (Covid 19)। সোমবার নবান্নে মুখ্যমন্ত্রী জানিয়েছেন, বিভিন্ন সিনেমা হলে দর্শক সংখ্যাও কিছুটা বাড়তে চলেছে। বিভিন্ন সিনেমা ও থিয়েটার হল চলবে ৭৫ শতাংশ দর্শক নিয়ে। এ ছাড়া সরকারি ও বেসরকারি অফিস চলবে ৭৫ শতাংশ কর্মী নিয়ে। খেলা ইত্যাদি অনুষ্ঠান চলতে পারবে ৭৫ শতাংশ দর্শক নিয়ে। তবে রাজনৈতিক প্রচার নির্দিষ্ট থাকবে কমিশনের ঘোষণা করা নির্বাচনী আচরণবিধি মেনেই, সেখানে রাজ্য সরকার কিছু বলবে না।

আরও পড়ুন - অষ্টম শ্রেণি থেকে ফের খুলছে স্কুল, নবান্নে বড় ঘোষণা মমতার

এই বিষয়ে বিস্তারিত বলতে গিয়ে মুখ্যমন্ত্রী উদাহরণ দেন নেতাজি ইন্ডোর স্টেডিয়ামের। সেখানে তিনি বলেন, যা আসন রয়েছে, তার ৭৫ শতাংশ নিয়ে যে কোনও অনুষ্ঠান করা যাবে। অর্থাৎ কোনও সেমিনার, মিটিং, কনফারেন্স নির্দিষ্ট স্থানের ৭৫ শতাংশ আসন সংখ্যার ভিত্তিতে উপস্থিতি নিয়ে চলতে পারবে। মুখ্যমন্ত্রী এ ছাড়াও বলেন আইপিএল-এর কথা। তিনি বলেন, একটি ভেন্যুতে ৭৫ শতাংশ উপস্থিতি রেখে কোনও অনুষ্ঠান আয়োজন করা যাবে। এর পরেই মুখ্যমন্ত্রী বলেন, পার্ক, এন্টারটেনমেন্ট পার্ক ও ট্যুরিস্ট স্পট খোলা থাকবে স্বাভাবিক নিয়মে। সুইমিং পুল-সহ একাধিক ক্ষেত্রেও ৭৫ শতাংশ উপস্থিতি নিয়ে কাজ চালানো যাবে।

আরও পড়ুন - আর্থিক বৃদ্ধির হার দাঁড়াবে ৮ থেকে ৮.৫ শতাংশে, অর্থনৈতিক সমীক্ষার রিপোর্ট পেশ কেন্দ্রের

এই নির্দেশিকা কার্যকর থাকবে আগামী ১৫ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত। তার পর আবারও সরকারের পক্ষ থেকে সিদ্ধান্ত নিয়ে একটি বৈঠক করা হবে। সেখানে পরবর্তী সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে। এ ছাড়া মুম্বই থেকে দিল্লির বিমান নিয়মিত করে দেওয়া হচ্ছে। বেঙ্গালুরুতে সংক্রমণ বেশি থাকায়, সেই শহর থেকে কলকাতার বিমানে এখনও নিয়ন্ত্রণ থাকছে। এ ছাড়া ইউকে-কলকাতা বিমানেও অনুমতি দেওয়া হচ্ছে। তবে যাত্রীদের কলকাতায় পৌঁছে আরটিপিসিআর করতে হবে।

সোমরাজ বন্দ্যোপাধ্যায়

Published by:Uddalak B
First published:

Tags: Coronavirus

পরবর্তী খবর