• Home
  • »
  • News
  • »
  • kolkata
  • »
  • Covid in Kolkata: পুজোয় ঘোরার মাশুল! আতঙ্ক বাড়ছে কলকাতায়, আজই কনটেইনমেন্ট জোন ঘোষণা?

Covid in Kolkata: পুজোয় ঘোরার মাশুল! আতঙ্ক বাড়ছে কলকাতায়, আজই কনটেইনমেন্ট জোন ঘোষণা?

পুজোর আনন্দের মাশুল?

পুজোর আনন্দের মাশুল?

Covid in Kolkata: সোমবার রিভিউ বৈঠকে কলকাতার কোথায়, কোথায় কনটেইনমেন্ট জোন করা হতে পারে, তা নিয়ে আলোচনা হতে পারে।

  • Share this:

    #কলকাতা: পুজোতে দেদার আড্ডা, ভিড়ে ঠাসাঠাসি করে প্যান্ডেল হপিং। করোনা পরিস্থিতিতে (Corona in Kolkata) এবার সেই আনন্দেরই মাশুল গুণতে হতে পারে। কারণ পুজোর পর থেকেই ফের রাজ্যে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ক্রমশই বাড়ছে। কয়েক মাস আগে কোভিডের দ্বিতীয় ঢেউতে নাজেহাল অবস্থা অবস্থা হয়েছিল গোটা দেশের। সেই সময় পরিস্থিতি উদ্বেগজনক হয়েছিল এই রাজ্যেও। কিন্তু পুজোর পর কলকাতা ও রাজ্যের বিভিন্ন অংশে ফের বাড়বাড়ন্ত করোনার। ফলে এবার ফের কনটেইনমেন্ট জোন করা নিয়ে শুরু হয়েছে আলোচনা। আর এই পরিস্থিতিতে কলকাতাকে নিয়েই চিন্তা সবচেয়ে বেশি। কলকাতার পাঁচটি বরোতে সংক্রমণ আশঙ্কাজনক হয়ে উঠছে। সোমবার এ নিয়েই রিভিউ বৈঠকে কলকাতার কোথায়, কোথায় কনটেইনমেন্ট জোন করা হতে পারে, তা নিয়ে আলোচনা হতে পারে। সেখানে উপস্থিত থাকবেন পুরসভার স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞরা, পুলিশ কর্তারা এবং পুর প্রশাসক ফিরহাদ হাকিম।

    দিন দুই আগেই করোনা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে কলকাতার নগরপাল সহ বিভিন্ন জেলার জেলাশাসক ও পুলিশ কর্তাদের সঙ্গে বৈঠক করেন রাজ্যের মুখ্যসচিব হরিকৃষ্ণ দ্বিবেদী ৷ ওই বৈঠকেও কলকাতায় কঠোর ভাবে করোনা সংক্রান্ত বিধিনিষেধ লাগু করার জন্য পুলিশ কমিশনারকে নির্দেশ দেন তিনি৷ পাশাপাশি যে এলাকাগুলিতে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা উল্লেখযোগ্য ভাবে বাড়ছে, সেই এলাকায় কন্টেইনমেন্ট জোন চালু করার নির্দেশও দিয়েছেন মুখ্যসচিব।

    আরও পড়ুন: 'BJP-র পক্ষে এর চেয়ে লজ্জার আর কী হতে পারে?' ফের বিস্ফোরক তথাগত রায়! নিশানায় কে?

    গত ২৪ ঘণ্টায় রাজ্যে নতুন করে করোনা আক্রান্ত(Covid-19 Bengal) হয়েছেন ৯৮৯ জন। কিন্তু রাজ্য প্রশাসনের সবথেকে বেশি চিন্তা বাড়ছে কলকাতাকে নিয়ে৷ কারণ সেখানে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা আক্রান্ত হয়েছেন ২৭৩ জন। আক্রান্তদের মধ্যে অনেকেরই আবার করোনার দু'টি ডোজেরই টিকা নেওয়া হয়ে গিয়েছে৷ কলকাতা ছাড়াও চিন্তা বাড়ছে উত্তর চব্বিশ পরগণা নিয়েও৷ সেখানেও চব্বিশ ঘণ্টায় আক্রান্তের সংখ্যা ১৪৬ জন। এ ছাড়াও হাওড়া, হুগলি এবং দক্ষিণ চব্বিশ পরগণাও উদ্বেগ বাড়াচ্ছে রাজ্য প্রশাসনের।

    আরও পড়ুন: বাবুলের হাত ধরে প্রচারের 'শুভারম্ভ' তৃণমূলের, দিলীপ মনে করালেন টালিগঞ্জের কথা

    এই পরিস্থিতিতে কলকাতা ও জেলার পুলিশ প্রশাসনের কর্তাদের একাধিক নির্দেশ দিয়েছেন মুখ্যসচিব৷ যে এলাকাগুলিতে আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ছে, সেখানে যেমন কঠোর ভাবে কনটেইনমেন্ট জোন চালু করার নির্দেশ দিয়েছেন, তেমনি নাইট কারফিউয়ের ক্ষেত্রেও কড়া মনোভাব নিতে বলা হয়েছে। শুধু তাই নয়, মাস্ক পরা নিয়েও কড়া নজরদারি চালানোর নির্দেশ দিয়েছেন মুখ্যসচিব হরিকৃষ্ণ দ্বিবেদী৷ পাশাপাশি টিকাকরণের গতি বৃদ্ধির উপরেও জোর দিতে বলা হয়েছে৷ এই পরিস্থিতিতে আজ, কলকাতায় কোন কনটেইনমেন্ট জোন ঘোষণা করা হয় কিনা, সেটাই এখন দেখার।

    Published by:Suman Biswas
    First published: