• Home
  • »
  • News
  • »
  • ipl
  • »
  • Sanjiv Goenka Lucknow franchise : লখনউয়ের মালিকানা নিয়ে আইপিএলে ফিরতে পেরে খুশি সঞ্জীব গোয়েঙ্কা

Sanjiv Goenka Lucknow franchise : লখনউয়ের মালিকানা নিয়ে আইপিএলে ফিরতে পেরে খুশি সঞ্জীব গোয়েঙ্কা

লখনউ ফ্র্যাঞ্চাইজির মালিকানা নিয়ে নতুন স্বপ্ন সঞ্জীবের

লখনউ ফ্র্যাঞ্চাইজির মালিকানা নিয়ে নতুন স্বপ্ন সঞ্জীবের

Sanjiv Goenka delighted to be back in IPL with Lucknow franchise with record bid . লখনউ ফ্র্যাঞ্চাইজির মালিকানা নিয়ে আইপিএলের পুরনো সংসারে ফিরতে পেরে সঞ্জীব গোয়েঙ্কা জানিয়েছেন তিনি খুশি। কিন্তু শক্তিশালী দল তৈরি করে ভাল পারফর্ম করা আসল লক্ষ্য

  • Share this:

    #দুবাই: আইপিএলে অতীতে রাইজিং পুনে সুপার জায়ান্ট দলের মালিকানা ছিল তার হাতে। অধিনায়ক ছিলেন মহেন্দ্র সিং ধোনি। যেবার চেন্নাই সুপার কিংস আইপিএল থেকে বহিস্কৃত ছিল, সেবার আইপিএল ফাইনাল পর্যন্ত উঠেছিল তারা। মুম্বই ইন্ডিয়ান্স দলের কাছে হেরে গিয়ে চ্যাম্পিয়ন হতে পারেননি পুনে সুপার জায়ান্ট। কিন্তু আক্রমনাত্মক ক্রিকেটে নজর কেড়েছিল দলটা। স্টিভ স্মিথ, বেন স্টোকস, ইমরান তাহির, জর্জ বেইলিদের মত ক্রিকেটাররা খেলেছিলেন এই দলের হয়ে।

    আরও পড়ুন - Sunny Gavaskar tips : পাকিস্তান ম্যাচ ভুলে গিয়ে নতুন প্রত্যয় তৈরি হবে ভারত, আশাবাদী সুনীল গাভাসকার

    তাই পুরনো সংসারে ফিরতে পেরে সঞ্জীব গোয়েঙ্কা জানিয়েছেন তিনি খুশি। কিন্তু শক্তিশালী দল তৈরি করে ভাল পারফর্ম করা আসল লক্ষ্য। এমনিতেই দেশের সেরা ফুটবল টুর্নামেন্ট আইএসএল এ এটিকে মোহনবাগানের আশি শতাংশ মালিকানা রয়েছে তার সংস্থার হাতে। গত মরশুমে ফাইনালে উঠেও চ্যাম্পিয়ন হতে পারেনি রয় কৃষ্ণ, ডেভিড উইলিয়ামসরা। এবারও শক্তিশালী দল সবুজ মেরুন। আইএসএল চ্যাম্পিয়ন হওয়ার পাশাপাশি আবার ক্রিকেটে ফিরতে পারা, কলকাতার ব্যবসায়ীর কাছে বড় পাওনা।

    তিনি প্রায় ৭০০০ কোটি টাকার দর হেঁকেছেন৷ আইপিএল (IPL) হাই প্রোফাইল বিডাররা (IPL Team Auction 2022) নিজেদের ভাগ্যপরীক্ষার জন্য বিডিং জমা দিয়েছেন৷ এই তালিকায় রয়েছে প্রিমিয়ার লিগ ক্লাব ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড থেকে আদানি গ্রুপ৷ টোরেন্ট ফার্মাসিউটিক্যালস, হিন্দুস্তান মিডিয়া ভেঞ্চুরস প্রাইভেট লিমিটেড, আরপি সঞ্জীব গোয়েঙ্কা গ্রুপ, কাপরি গ্লোবাল এবং সিঙ্গাপুর ভিত্তিক ইরেলিয়া কোম্পানি পিটিই লিমিটেড৷

    একসময় মহেন্দ্র সিং ধোনির সঙ্গে যুক্ত রিতি স্পোর্টসও দুটি নতুন আইপিএল দলের জন্য বিড করেছে৷ বিসিসিআই (BCCI) টেন্ডার ডাকা -র টাইমলাইন দুবার ধরে সময় বাড়িয়েছে৷ ২০ অক্টোবর অবধি শেষবার ডেডলাইন বাড়ানো হয়েছে৷ এটা করা হয়েছে শুধুমাত্র ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড যাতে বিড জমা দিতে পারে৷ রিপোর্ট অনুসারে বিসিসিআই (BCCI) আশা করছে দুটি নতুন আইপিএল ফ্রাঞ্চাইজি থেকে ৭ হাজার কোটি থেকে ১০ হাজার কোটি টাকা করে৷

    ২২ টি কোম্পানি ১০ লক্ষ টাকা দিয়ে টেন্ডার পেপার তুললেও মাত্র ১০ টি পার্টি বিড জমা দিয়েছে৷নতুন দলগুলির জন্য মিনিমাম ২০০০ কোটি টাকা৷ তবে সঞ্জীব গোয়েঙ্কা যখন মালিকানা নিয়েছেন, লখনউ ফ্র্যাঞ্চাইজি ভাল দল বানাবে তাতে সন্দেহ নেই।

    Published by:Rohan Chowdhury
    First published: