• হোম
  • »
  • খবর
  • »
  • IPL
  • »
  • ANDREW TYE QUESTIONS ON IPL 2021 ARRANGEMENTS AMIDST CORONA SCOND WAVE IN INDIA SMJ

Ipl 2021: 'হাসপাতালে ভর্তি হতে পারছে না মানুষ, আর এত টাকা খরচ করে আইপিএল!'

Ipl 2021: 'হাসপাতালে ভর্তি হতে পারছে না মানুষ, আর এত টাকা খরচ করে আইপিএল!'

অস্ট্রেলিয়ার পার্থের বাসিন্দা টাই এখনো পর্যন্ত আইপিএলে কোনও ম্যাচ খেলেননি।

অস্ট্রেলিয়ার পার্থের বাসিন্দা টাই এখনো পর্যন্ত আইপিএলে কোনও ম্যাচ খেলেননি।

  • Share this:

    #নয়াদিল্লি:

    ভারতে লাগাতার বাড়ছে করোনা সংক্রমনের হার। ভাইরাসের দ্বিতীয় ঢেউয়ে ভয়ঙ্কর অবস্থা গোটা দেশে। এরই মধ্যে ভারতের করোনা পরিস্থিতি উদ্বেগজনক হওয়ায় আইপিএল ছেড়ে বাড়ি ফেরার সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন রাজস্থান রয়্যালসের পেসার অ্যান্ড্রু টাই। এবার তিনি করোনা মহামারীর মধ্যে আইপিএল আয়োজন নিয়ে বড়সড় প্রশ্ন তুলে দিলেন। এদিন এই অজি ক্রিকেটার বলেছেন, ''আইপিএল দেখলে যদি কিছু মানুষের মুখে হাসি ফোটে তা হলে চলুক। খেলা দেখতে বসে এই মহামারীর মধ্যেও কিছু মানুষ যদি সব কিছু ভুলে থাকতে পারে তা হলে কোনো ক্ষতি নেই। কিন্তু এই ব্যাপারটাকে ভারতের নিরিখে দেখতে হবে। যে দেশে মানুষ হাসপাতালে ভর্তি হতে পারছে না, সেখানে ফ্র্যাঞ্চাইজি, এতগুলো কোম্পানি, সরকার কী করে আইপিএলের জন্য এত টাকা খরচ করছে! এখন তো সব টাকা খরচ হওয়া উচিত স্বাস্থ্য খাতে। ''

    টাই এদিন cricket.com.au-কে বলেছেন, ''দেখুন সবার ভাবনা-চিন্তা সমান হয় না। সবার দৃষ্টিভঙ্গিও এক হবে না। আমি অন্যদের ভাবনা ও দৃষ্টিভঙ্গিকে সম্মান জানাই। যদি কেউ মনে করেন, এই দুর্যোগের সময় ক্রিকেট দেখলে মন ভাল থাকবে, তা হলে তার ভাবনাকে আমি সম্মান জানাচ্ছি। কিন্তু একইসঙ্গে এটাও মনে রাখতে হবে, ভারতে এখন যা পরিস্থিতি তাতে এত টাকা খরচ করে আইপিএল আয়োজনের প্রয়োজন ছিল না। বরং সেই টাকা মানুষের জন্য খরচ হতে পারত। আইপিএলে যারা খেলছেন তারা সুরক্ষিত। কারণ তারা রয়েছেন বিশ্বের সব থেকে সুরক্ষিত জৈব সুরক্ষা বলয়ে। কিন্তু এরই মধ্যে বেশ কিছু ক্রিকেটারের মধ্যে প্রশ্ন জেগেছে, কতদিন তারাই বা সুরক্ষিত থাকবে!''

    অস্ট্রেলিয়ার পার্থের বাসিন্দা টাই এখনো পর্যন্ত আইপিএলে কোনও ম্যাচ খেলেননি। তাঁকে এবার রাজস্থান রয়্যালস এক কোটি টাকায় দলে নিয়েছিল। কিন্তু টাই একটিও ম্যাচ না খেলে অস্ট্রেলিয়ায় ফিরে যাচ্ছেন। তিনি এদিন বলেছেন, ''পার্থে ভারতের থেকে যাওয়া লোকজনের সংখ্যা প্রতিদিন বেড়েই চলেছে। ভারতের থেকে ওখানে ফিরলে আগে হোটেলে কোয়ারেন্টাইন থাকতে হবে। পার্থের প্রশাসন পশ্চিম অস্ট্রেলিয়ায় ভারত থেকে যাওয়া মানুষের সংখ্যা নিয়ন্ত্রণ করতে চাইছে। ফলে পরে গেলে আমার পক্ষে শহরে ফেরা মুশকিল হয়ে যাবে। তাই বাড়ি ফেরার সিদ্ধান্ত নিয়েছি। তা ছাড়া জৈব সুরক্ষা বলয়ে থাকার ক্লান্তি আর নিতে পারছিলাম না।''

    Published by:Suman Majumder
    First published: