Home /News /international /
Ukraine Russia War|Share Market News: ইউক্রেন-রাশিয়ার যুদ্ধ পরিস্থিতি, এই সময় যে ১০ শেয়ারে লগ্নি লাভজনক!

Ukraine Russia War|Share Market News: ইউক্রেন-রাশিয়ার যুদ্ধ পরিস্থিতি, এই সময় যে ১০ শেয়ারে লগ্নি লাভজনক!

প্রতীকী ছবি ৷

প্রতীকী ছবি ৷

এই রণং দেহি আবহাওয়ায় কোন কোন শেয়ারে বিনিয়োগ (Invest)করা যায়? তাঁর হদিশ দিয়েছেন বিশেষজ্ঞরা।

  • Share this:

#নয়াদিল্লি: ইউক্রেন ও রাশিয়ার (Ukraine Russia War) মধ্যে যুদ্ধ পরিস্থিতি। সীমান্তে মোতায়েন হয়েছে সেনা, কামান। আকাশে চক্কর কাটছে যুদ্ধ বিমান। এই আবহে জোর ধাক্কা খেল শেয়ার বাজার (Share Market)। অ্যাঞ্জেল ওয়ানের প্রধান বিশ্লেষক, প্রযুক্তি ও ডেরিভেটিভস সমিত চহবান বলেন, ‘যতক্ষণ না যুদ্ধ পরিস্থিতি স্থিমিত হচ্ছে ততক্ষণ বাজারে অস্থিরতা থাকবে। তাই এই সময় বিনিয়োগের ক্ষেত্রে খুব বেশি আক্রমণাত্মক হওয়া উচিত হবে না’।

এই রণং দেহি আবহাওয়ায় কোন কোন শেয়ারে বিনিয়োগ (Invest)করা যায়? তাঁর হদিশ দিয়েছেন বিশেষজ্ঞরা।

আরও পড়ুন:  State Bank of India: বিরাট সুযোগ স্টেট ব্যাঙ্কের! এসবিআই-এ অনলাইনে রেকারিং ডিপোজিটের সহজ পদ্ধতি

কোল ইন্ডিয়া (Coal India): কেনা যায়: এলটিপি – ১৬৭.৩০ টাকা, স্টপ লস – ১৫৫ টাকা, টার্গেট – ১৪৪ টাকা, রিটার্ণ – ১০ শতাংশ। গত কয়েক সপ্তাহে কোল ইন্ডিয়ার শেয়ার দর ফের উর্ধমুখী হচ্ছে। বর্তমানে তা ১৬৯-১৭০ টাকায় ঘোরাফেরা করছে। আগামী ৪-৫ সপ্তাহের মধ্যে এই দর আরও বাড়তে পারে।

হিতাচি এনার্জি ইন্ডিয়া (Hitachi Energy India): কেনা যায়: এলটিপি – ৩,১০৫.৩৫ টাকা, স্টপ লস – ২,৯১০ টাকা, টার্গেট – ৩,৪৪০ টাকা, রিটার্ন – ১১ শতাংশ। গত শুক্রবার থেকে হিতাচি এনার্জি ইন্ডিয়ার শেয়ার রকেটের গতিতে উঠছে। আগামী কয়েক সপ্তাহ তা বজায় থাকবে বলেই মনে করছেন বাজার বিশেষজ্ঞরা। তাই হিতাচি এনার্জি ইন্ডিয়ায় বিনিয়োগের এটাই সেরা সময়।

অ্যাস্টার ডিএম হেলথকেয়ার (Aster DM Healthcare): কেনা যায়: এলটিপি – ১৮৯.৮৫ টাকা, স্টপ লস –১৭৬ টাকা, টার্গেট – ২১০ টাকা, রিটার্ন – ১১ শতাংশ। গত কয়েক সপ্তাহ ধরে অ্যাস্টার ডিএম হেলথকেয়ারের শেয়ার দর ক্রমশ পড়ছিল। কিন্তু এবার উল্টোচিত্র। ক্রমশই ঊর্ধগতি নিচ্ছে অ্যাস্টার ডিএম হেলথকেয়ার। আগামী কয়েক সপ্তাহ তা বজায় থাকবে, শুধু তাই নয়, আরও শক্তিশালী হবে।

আরও পড়ুন:  SBI SMS Alert: এই সহজ পদ্ধতিতে বন্ধ করুন স্টেট ব্যাঙ্কের এই পরিষেবা ধাপে ধাপে

 

ভোল্টাস (Voltas): কেনা যায়: এলটিপি – ১২৫২.৫০ টাকা, স্টপ লস – ১২১৩ টাকা, টার্গেট – ১৩২০ টাকা, রিটার্ন – ৫.৪ শতাংশ। ১২৫২ টাকা থেকে ১২৪০ টাকার মধ্যে এই শেয়ার কেনার পরামর্শ দিচ্ছেন বিশেষজ্ঞরা। খুব কম সময়ের মধ্যে এর দর বাড়তে পারে বলে অনুমান।

বরুণ বেভারেজেস (Varun Beverages): কেনা যায়: এলটিপি – ৯৫৩.৮০ টাকা, স্টপ লস – ৯২৫ টাকা, টার্গেট – ১,০২১ টাকা, রিটার্ন – ৭ শতাংশ। নভেম্বর এবং ডিসেম্বর মাসে মূল্য-ভিত্তিক কিছু সংশোধনের পরে, স্টকটি ধীরে ধীরে সাড়া ফেলছে। স্বল্পমেয়াদী চার্টে 'হায়ার টপ হায়ার বটম' কাঠামো তৈরি করেছে। যাকে ভালো লক্ষণ বলছেন বিশেষজ্ঞরা।

পঞ্জাব ন্যাশনাল ব্যাঙ্ক(PNB): বিক্রি করাই লাভজনক: এলটিপি – ৩৭.৭৫ টাকা, স্টপ লস –৩৯ টাকা, টার্গেট – ৩৩ টাকা, রিটার্ন – ১২.৬ শতাংশ। অন্যান্য পিএসইউ ব্যাঙ্কগুলির তুলনায় এর পারফর্মেন্স নিম্নমুখী। বাজার আরও নড়বড় করলে পিএনবি-র স্টক চাপে ফেলে দিতে পারে। তাই এখনই এর শেয়ার বিক্রি করে দেওয়ার আদর্শ সময়।

আইআরবি ইনফ্রাস্ট্রাকচার (IRB Infrastructure): কেনা যায়: এলটিপি – ২৫৬.১০ টাকা, স্টপ লস – ২২৫ টাকা, টার্গেট – ৩২৫ টাকা, রিটার্ন – ২৭ শতাংশ। প্রাথমিকভাবে আইআরবি ইনফ্রাস্ট্রাকচারের শেয়ার দর উর্ধমুখী। ২৫২ টাকা থেকে ২৪৫ টাকার মধ্যে এর শেয়ার কিনে রাখা যায়। এর দর ৩২৫ টাকা পর্যন্ত বাড়তে পারে বলে মনে করা হচ্ছে।

আল্ট্রাটেক সিমেন্ট (UltraTech Cement): বিক্রি করাই লাভজনক: এলটিপি – ৬৯১৬.৬০ টাকা, স্টপ লস – ৭,১০০ টাকা, টার্গেট – ৬,৫০০ টাকা, রিটার্ন – ৬ শতাংশ। জুলাই ২০২১-এর পর প্রথমবার এর শেয়ার দর নামতে পারে বলে অনুমান। টেকনিকাল ব্রেকডাউনের কারণেই এমনটা হওয়ার সম্ভাবনা, বলছেন বিশেষজ্ঞরা। তাই এই পরিস্থিতিতে আল্ট্রাটেক সিমেন্টের শেয়ার বিক্রি করে দেওয়ার পরামর্শ দেওয়া হচ্ছে।

আরও পড়ুন:  KYC Update: আজই কেওয়াইসি আপডেট করুন, নইলে বড় সমস্যা দাঁড়িয়ে আছে আপনার জন্য

ভোল্টাস (Voltas): কেনা যায়: এলটিপি – ১২৫২.৫০ টাকা, স্টপ লস – ১,২১২ টাকা, টার্গেট – ১,৩১০ টাকা, রিটার্ন – ৪.৬ শতাংশ। বৃহত্তর বাজার কিছুটা খারাপ হলেও গত ৩-৪ ট্রেডিং সেশনে ভোল্টাসের স্টক ক্রমশ ঊর্ধমুখী হয়েছে। তাই এই সময় ১২৪০ টাকা থেকে ১২৩৫ টাকার মধ্যে এই শেয়ার কিনে রাখার পরামর্শ দিচ্ছেন বিশেষজ্ঞরা।

এভারেডি ইন্ডাস্ট্রিজ (Eveready Industries): কেনা যায়: এলটিপি – ৩৫৯.৭০ টাকা, স্টপ লস – ৩১৮ টাকা, টার্গেট – ৩৯২ টাকা, রিটার্ন – ৯ শতাংশ। গত তিনটি ট্রেডিং সেশনে আচমকাই এভারেডি ইন্ডাস্ট্রিজের শেয়ার ঝড় তুলেছে। কেউ কিছু বুঝে ওঠার আগের এর বাজার দর বৃদ্ধি পেয়েছে ২০ শতাংশ। এর ভলিউমের কার্যকলাপ দেখে বিশেষজ্ঞরা বলছেন, আগামী দিনে বিপুল পরিমাণে এই স্টকের শেয়ার কেনা হবে।

Published by:Arjun Neogi
First published:

Tags: Investment, Share Market News, Ukraine crisis

পরবর্তী খবর