পাকিস্তান: ১৪ বছরের কিশোরীকে বিয়ে করলেন ৫০ বছরের পাক-সাংসদ

পাকিস্তান: ১৪ বছরের কিশোরীকে বিয়ে করলেন ৫০ বছরের পাক-সাংসদ
ওই নাবালিকা কিশোরী স্থানীয় একটি সরকারি বালিকা বিদ্যালয়ের ছাত্রী । স্কুলের রেজিস্টার অনুযায়ী তার জন্ম ২৮ অক্টোবর, ২০০৬ ।

ওই নাবালিকা কিশোরী স্থানীয় একটি সরকারি বালিকা বিদ্যালয়ের ছাত্রী । স্কুলের রেজিস্টার অনুযায়ী তার জন্ম ২৮ অক্টোবর, ২০০৬ ।

  • Share this:

    #বালুচিস্তান: ১৪ বছরের এক কিশোরীকে বিয়ে করার অভিযোগ উঠল পাকিস্তানের এক সাংসদের বিরুদ্ধে । জানা গিয়েছে ওই সাংসদের নাম মৌলানা সালাহুদ্দিন আয়ুবি । ২০১৮ সাল থেকে সংসদের প্রতিনিধি তিনি । তাঁর বয়স পঞ্চাশের কোঠায় । সম্প্রতি ১৪ বছরের এক কিশোরীকে বিয়ে করার অভিযোগ উঠেছে তাঁর বিরুদ্ধে ।

    গোটা ঘটনাটি জানাজানি হয় বালুচিস্তানের চিত্রাল এলাকার একটি সমাজসেবী সংগঠন পুলিশে অভিযোগ দায়ের করার পর । এরপর পুলিশ ঘটনার তদন্তে নামে । দেখা যায়, ওই নাবালিকা কিশোরী স্থানীয় একটি সরকারি বালিকা বিদ্যালয়ের ছাত্রী । স্কুলের রেজিস্টার অনুযায়ী তার জন্ম ২৮ অক্টোবর, ২০০৬ । এর থেকেই স্পষ্ট ওই কিশোরী এখনও নাবালিকা । তার বিয়ের বয়স হয়নি ।

    পুলিশ অভিযোগ দায়ের হওয়ার পরেই ওই কিশোরীর বাড়িতে তদন্তের স্বার্থে যান পুলিশ আধিকারিকরা । কিন্তু কিশোরীর বাবা তার মেয়ের বিয়ের ঘটনা সম্পূর্ণ অস্বীকার করেন । শুধু তাই নয়, একটি এফিডেভিটও দাখিল করেন তিনি ।


    পাকিস্তানে মেয়েদের বিয়ের বয়স ১৬ বছর । সেখানে মাত্র ১৪ বছরের একটি কিশোরীকে বিয়ের অভিযোগ উঠেছে তার থেকে চার গুণ বয়সের এক ব্যক্তির বিরুদ্ধে । তবে গোটা ঘটনায় এখনও অভিযুক্ত ব্যক্তি বা ওই নাবালিকার কোনও বক্তব্য জানা যায়নি ।

    Published by:Simli Raha
    First published:

    লেটেস্ট খবর