Home /News /international /

Omicron: সুনামির মতো স্বাস্থ্য ব্যবস্থাকে আঘাত করবে ওমিক্রন, চরম সতর্কবার্তা হু-এর

Omicron: সুনামির মতো স্বাস্থ্য ব্যবস্থাকে আঘাত করবে ওমিক্রন, চরম সতর্কবার্তা হু-এর

ফাইল ছবি

ফাইল ছবি

WHO: হু-এর প্রধান বুধবার জেনেভায় বলেছেন, আমরা ওমিক্রন সংক্রমণ নিয়ে বিপুল ভাবে চিন্তিত। কারণ, এই ভাইরাসটি দ্রুত ছড়িয়ে পড়ছে ও সংক্রমণের সুনামি তৈরি করেছে।

  • Share this:

    #জেনেভা: বুধবার গোটা বিশ্বের জন্যই চরম সতর্কবার্তা জারি করল বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (World Health Organization)। সংস্থার তরফ থেকে সতর্ক করে বলা হয়েছে, করোনার ডেল্টা (Delta) ও ওমিক্রন (Omicron) প্রজাতির সংক্রমণ পৃথিবীর উপর সুনামির মতো আছড়ে পড়বে। যার ফলে স্বাস্থ্য ব্যবস্থা ভেঙে পড়ার তীব্র আশঙ্কা রয়েছে। করোনার ডেল্টা ও ওমিক্রন নামে এই যমজ দুই প্রজাতি বিশ্বজুড়ে রেকর্ড সংক্রমণ ঘটাচ্ছে, যার ফলে লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে হাসপাতালে ভর্তি রোগীর সংখ্যা, বাড়ছে মৃত্যুও। শেষ এক সপ্তাহে করোনা সংক্রমণের পরিমাণ বৃদ্ধি পেয়েছে ১১ শতাংশ, রেকর্ড সংক্রমণ দেখা দিয়েছে ফ্রান্স ও আমেরিকার। যার পিছনে ভূমিকা রয়েছে ডেল্টা ও ওমিক্রন প্রজাতির। হু-এর প্রধান বুধবার জেনেভায় বলেছেন, আমরা ওমিক্রন সংক্রমণ নিয়ে বিপুল ভাবে চিন্তিত। কারণ, এই ভাইরাসটি দ্রুত ছড়িয়ে পড়ছে ও সংক্রমণের সুনামি তৈরি করেছে।

    আরও পড়ুন: রাজ্যে ফের ওমিক্রন আক্রান্ত! সক্রিয় রোগীর সংখ্যা বেড়ে ১০, গোষ্ঠী সংক্রমণের আশঙ্কা...

    হু-এর প্রধান চিন্তিত টিকাকরণ নিয়েও। সেই কারণেই করোনার সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে নানারকম সমস্যা দেখা দিচ্ছে বলেও মনে করছেন তিনি। তিনি বুধবার বলেছেন, করোনার বিরুদ্ধে লড়তবে হবে ২০২২ সালেও। তিনি বলেছেন, ২০২১ সালের শেষে প্রতিটি দেশের ৪০ শতাংশ মানুষের পুরোপুরি করোনা টিকা পেয়ে যাওয়ার কথা। ২০২২ সালের মাঝামাঝি সেই শতাংশের হিসাব পৌঁছে যাওয়ার কথা ৭০ শতাংশের কাছাকাছি। তবে তিনি আশঙ্কা প্রকাশ করেছেন, বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার ১৯২টি প্রতিনিধি দেশের মধ্যে ৯২টি প্রতিনিধি দেশই এই লক্ষ্যমাত্রা ছুঁতে ব্যর্থ হতে পারে।

    আরও পড়ুন: নতুন আতঙ্ক ওমিক্রন, কাদের সংক্রামিত হওয়ার সম্ভাবনা বেশি? জানুন

    তিনি দুঃখ প্রকাশ করে বলেছেন, ইউরোপ-আমেরিকা-সহ পৃথিবীর বিভিন্ন দেশের ক্ষেত্রে টিকাকরণ, করোনা সংক্রমণ নিয়ে নানারকম ভুয়ো খবর ছড়িয়েছিল। সেই খবরগুলির কারণে অনেক মানুষই টিকা নিতে চাননি। সেই টিকাকরণ নিয়ে অনীহার ফলে এখন অনেককে ভুগতে হচ্ছে, এমনকী মৃত্যুর মুখ পর্যন্ত পৌঁছে গিয়েছেন তাঁরা। ২০২১ সাল জুড়ে করোনা নিয়ে ভুয়ো তথ্যের ফল ভুগতে হয়েছে পৃথিবীকে। যাঁরা করোনার বিরুদ্ধে লড়াই করছেন, তাঁদের লড়াই আরও কঠিন হয়েছে এই ভুয়ো তথ্য ছড়িয়ে পড়ার ফলে।

    Published by:Uddalak B
    First published:

    Tags: Omicron, WHO

    পরবর্তী খবর