Home /News /international /
নদীতে ঝাঁপ দিয়ে মালিকের আত্মহত্যা, নদীর পারে ৪ দিন অপেক্ষা করল তাঁর কুকুর

নদীতে ঝাঁপ দিয়ে মালিকের আত্মহত্যা, নদীর পারে ৪ দিন অপেক্ষা করল তাঁর কুকুর

প্রভুর অপেক্ষয় ঠায় বসে কুকুরটি।

প্রভুর অপেক্ষয় ঠায় বসে কুকুরটি।

কুকুরটি সেতু ছেড়ে কোথাও যেতে চায়নি। তার বিশ্বাস ছিল তার মনিব ফিরবে।

  • Share this:

    #ইউহান: একদিকে ভাইরাল পশুহত্যার নির্মম আখ্যান। অন্য দিকে উঠে আসছে পোষ্যের প্রভুভক্তির নিত্যনতুন নজির। সম্প্রতি সোশ্যা মিডিয়া ছেয়ে গিয়েছে করোনার আঁতুড়ঘর ইউহানের এক পোষ্যের কাহিনিতে। কুকুরটির মালিক নদীতে ঝাঁপ মেরে আত্মহত্যা করেছিলেন। খিদতৃষ্ণা ভুলে চার দিন কুকুরটি ওই নদীর সেতুতে বসে অপেক্ষা করে প্রভুর জন্য। পরে ওই আত্মহননকারীর এক বন্ধু এসে কুকুরটিকে সেখান থেকে সরায়।

    ডেইলি মেল-এ প্রকাশিত একটি খবরে বলা হয়েছে, কুকুরকে নিয়ে হাঁটতে বেরিয়ে গত ৩০ মে এক ব্যক্তি ইউহানেরর ইয়াজি নদীতে লাফিয়ে আত্মহত্যা করে। তার পর চার দিন পেরিয়ে গেলেও কুকুরটি প্রভুর জন্য অপেক্ষা করে গিয়েছে ওই নদীর ধারে ঠায় বসে। স্থানীয় এক পুলিশকর্মী কুকুরটির ছবি তুলে সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করেন। ইউহানের স্থানীয় সংবাদপত্রের মতে, কোনও খাবারের লোভ দেখিয়েই এই চারদিন কুকুরটিকে বশ মানানো যায়নি।

    ইউহানের প্রাণী সংরক্ষণ সমিতির তরফে ডু ফ্যান নামক এক ব্যক্তি বলেন, কুকুরটি সেতু ছেড়ে কোথাও যেতে চায়নি। তার বিশ্বাস ছিল তার মনিব ফিরবে। পুলিশের সিসিটিভি ফুটেজে প্রমাণ হয় কুকুরটি গোটা আত্মহত্যার ঘটনাটি দেখেছিল। মিস্টার ঝু নামক এক ব্যক্তি কুকুরটির মালিকের বন্ধু। তিনি চার দিন পরে বহু প্রচেষ্টার পর কুকুরটিকে ফেরত আনেন। তার দেখাশোনার পাকাপাকি দায়িত্বও নেন তিনি।

    Published by:Arka Deb
    First published:

    Tags: Dog, Wuhan

    পরবর্তী খবর