corona virus btn
corona virus btn
Loading

গালওয়ানে পিছু হঠল সেনা, ‘ভারত সমঝোতা ভাঙলে বড় ক্ষতি হবে’ কড়া সাবধানবাণী চিনের

গালওয়ানে পিছু হঠল সেনা, ‘ভারত সমঝোতা ভাঙলে বড় ক্ষতি হবে’ কড়া সাবধানবাণী চিনের
Photo- File

চিনের সরকারি সংবাদপত্রের সম্পাদকীয়তে বলা হয়েছে , গালওয়ানে ভারত-চিন সংঘর্ষের জন্য ভারতীয় সেনাই দায়ী

  • Share this:

#বেজিং :  চিন শুক্রবার বিবৃতি জারি করে জানিয়েছে, গালওয়ান ঘাঁটি ও পূর্ব লাদাখের প্রকৃত নিয়ন্ত্রণ রেখা বরাবর (LAC)  সেনা সরানোয় কার্যকারী ভূমিকা নিয়েছে ৷ তারা জানিয়েছে, এখন পরিস্থিতি অনেক বেশি স্থিতিশীল ও ভাল মনে হচ্ছে ৷ চিনের বিবৃতি অনুযায়ী যে যে জায়গায় উত্তেজনা তৈরি হওয়া সম্ভব সেই সেই জায়গায় দ্রুত দু' পক্ষের ঐক্যমতে সেনা সরানোর কাজ শুরু হয়ে গিয়েছে৷ এদিকে সেনা সরানোর কাজ চললেও চিনের সরকারি সংবাদমাধ্যম আক্রমণাত্মক অবস্থান থেকে পিছু হঠেনি ৷ তারা বারবার ভারতকে সাবধান করছে, এলএসি থেকে দূরে যেতে এবং সমঝোতা না ভাঙতে ৷

চিনের বিদেশ মন্ত্রকের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে পূর্ব লাদাখের হট স্প্রিং থেকে সব অস্থায়ী বেস চিন সরিয়ে দিয়েছে ৷ পাশাপাশি সেই এলাকা থেকে সমস্ত সেনাও সরিয়ে নিয়েছে তারা৷ চিনের সরকারি সংবাদমাধ্যম জানিয়েছে, গালওয়ানে হওয়া সমঝোতা ভারতীয় সেনাকে সম্মানের সঙ্গে মেনে চলতে হবে ৷ আর তারা এও বলেছে ভারত যদি সেটা না মানে তাহলে ফল খুব খারাপ হবে ৷ বিদেশমন্ত্রক জানিয়েছে, ‘কমান্ডার স্তরে যে কথাবার্তা হয়েছে তাতে ২ পক্ষই সহমত হয়েছে আর তাই গালওয়ান থেকে সেনা সরানো হচ্ছে ৷ এছাড়া অন্য এলএসি বরাবর এলাকা থেকেও সেনা সরানোর কাজ চলছে ৷ এই মুহূর্তে সীমায় স্থিতি আগের চেয়ে ভাল ৷

চিনা প্রশাসন যেখানে নিয়ম মেনে নরম সুরে কথা বলছে ঠিক সেখানেই চিনের সংবাদমাধ্যমের এরকম কড়াভাবে আক্রমণ করার বিষয়টি ভারত একেবারেই ভালভাবে নিচ্ছে না ৷ এই নীতিকে ওয়াকিবহাল মহল দু -মুখো নীতি হিসেবে দেখছে ৷ তাদের বক্তব্য একদিকে শান্তির কথা বলে অন্যদিকে হুমকি দেওয়া মোটেই ঠিক নয় ৷

চিনের সরকারি সংবাদপত্রের সম্পাদকীয়তে বলা হয়েছে , গালওয়ানে  ভারত-চিন সংঘর্ষের জন্য ভারতীয় সেনাই দায়ী ৷ তারা উপদেশ দিয়েছে ভারতীয় সেনা প্রকৃত নিয়ন্ত্রণ রেখা বরাবর যদি সমঝোতা বজায়  রাখে তাহলে এই ধরনের ঘটনা ঘটার সম্ভাবনা অনেকটাই কম হয়ে যাবে ৷

চিন যতই ভারতীয় সেনাকে আক্রমণাত্মক বলুক, আমেরিকা, অস্ট্রেলিয়া, এমনকি ব্রিটেনও ভারতকে এশিয়ার প্রতিবেশী দেশগুলির বিরুদ্ধে আক্রমণাত্মক থাকতে পরামর্শ দিয়েছে৷ আমেরিকা পরিষ্কার ভাষায় জানিয়ে দিয়েছিল যদি চিনের সঙ্গে যুদ্ধ হয় তাহলে তাদের সেনা ভারতের পাশে থাকবে ৷

চিনা প্রশাসনের পক্ষ থেকে ঝাও লিঝিয়ান দুই পক্ষ পরামর্শ অনুযায়ী সমন্বয় বজায় রেখে চলবে ৷ ডাব্লু এম সি সি -র বৈঠকে সেনা ও প্রশাসনিক স্তরে যে কথাবার্তা হচ্ছে তাতে সহমত হয়েছে দু পক্ষই ৷ সেনা পিছনে সরানোর কাজ করবে দুই দেশই ৷

Published by: Debalina Datta
First published: July 10, 2020, 2:50 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर