Home /News /india-china /
গালওয়ানে পিছু হঠল সেনা, ‘ভারত সমঝোতা ভাঙলে বড় ক্ষতি হবে’ কড়া সাবধানবাণী চিনের

গালওয়ানে পিছু হঠল সেনা, ‘ভারত সমঝোতা ভাঙলে বড় ক্ষতি হবে’ কড়া সাবধানবাণী চিনের

Photo- File

Photo- File

চিনের সরকারি সংবাদপত্রের সম্পাদকীয়তে বলা হয়েছে , গালওয়ানে ভারত-চিন সংঘর্ষের জন্য ভারতীয় সেনাই দায়ী

  • Share this:

    #বেজিং :  চিন শুক্রবার বিবৃতি জারি করে জানিয়েছে, গালওয়ান ঘাঁটি ও পূর্ব লাদাখের প্রকৃত নিয়ন্ত্রণ রেখা বরাবর (LAC)  সেনা সরানোয় কার্যকারী ভূমিকা নিয়েছে ৷ তারা জানিয়েছে, এখন পরিস্থিতি অনেক বেশি স্থিতিশীল ও ভাল মনে হচ্ছে ৷ চিনের বিবৃতি অনুযায়ী যে যে জায়গায় উত্তেজনা তৈরি হওয়া সম্ভব সেই সেই জায়গায় দ্রুত দু' পক্ষের ঐক্যমতে সেনা সরানোর কাজ শুরু হয়ে গিয়েছে৷ এদিকে সেনা সরানোর কাজ চললেও চিনের সরকারি সংবাদমাধ্যম আক্রমণাত্মক অবস্থান থেকে পিছু হঠেনি ৷ তারা বারবার ভারতকে সাবধান করছে, এলএসি থেকে দূরে যেতে এবং সমঝোতা না ভাঙতে ৷

    চিনের বিদেশ মন্ত্রকের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে পূর্ব লাদাখের হট স্প্রিং থেকে সব অস্থায়ী বেস চিন সরিয়ে দিয়েছে ৷ পাশাপাশি সেই এলাকা থেকে সমস্ত সেনাও সরিয়ে নিয়েছে তারা৷ চিনের সরকারি সংবাদমাধ্যম জানিয়েছে, গালওয়ানে হওয়া সমঝোতা ভারতীয় সেনাকে সম্মানের সঙ্গে মেনে চলতে হবে ৷ আর তারা এও বলেছে ভারত যদি সেটা না মানে তাহলে ফল খুব খারাপ হবে ৷ বিদেশমন্ত্রক জানিয়েছে, ‘কমান্ডার স্তরে যে কথাবার্তা হয়েছে তাতে ২ পক্ষই সহমত হয়েছে আর তাই গালওয়ান থেকে সেনা সরানো হচ্ছে ৷ এছাড়া অন্য এলএসি বরাবর এলাকা থেকেও সেনা সরানোর কাজ চলছে ৷ এই মুহূর্তে সীমায় স্থিতি আগের চেয়ে ভাল ৷

    চিনা প্রশাসন যেখানে নিয়ম মেনে নরম সুরে কথা বলছে ঠিক সেখানেই চিনের সংবাদমাধ্যমের এরকম কড়াভাবে আক্রমণ করার বিষয়টি ভারত একেবারেই ভালভাবে নিচ্ছে না ৷ এই নীতিকে ওয়াকিবহাল মহল দু -মুখো নীতি হিসেবে দেখছে ৷ তাদের বক্তব্য একদিকে শান্তির কথা বলে অন্যদিকে হুমকি দেওয়া মোটেই ঠিক নয় ৷

    চিনের সরকারি সংবাদপত্রের সম্পাদকীয়তে বলা হয়েছে , গালওয়ানে  ভারত-চিন সংঘর্ষের জন্য ভারতীয় সেনাই দায়ী ৷ তারা উপদেশ দিয়েছে ভারতীয় সেনা প্রকৃত নিয়ন্ত্রণ রেখা বরাবর যদি সমঝোতা বজায়  রাখে তাহলে এই ধরনের ঘটনা ঘটার সম্ভাবনা অনেকটাই কম হয়ে যাবে ৷

    চিন যতই ভারতীয় সেনাকে আক্রমণাত্মক বলুক, আমেরিকা, অস্ট্রেলিয়া, এমনকি ব্রিটেনও ভারতকে এশিয়ার প্রতিবেশী দেশগুলির বিরুদ্ধে আক্রমণাত্মক থাকতে পরামর্শ দিয়েছে৷ আমেরিকা পরিষ্কার ভাষায় জানিয়ে দিয়েছিল যদি চিনের সঙ্গে যুদ্ধ হয় তাহলে তাদের সেনা ভারতের পাশে থাকবে ৷

    চিনা প্রশাসনের পক্ষ থেকে ঝাও লিঝিয়ান দুই পক্ষ পরামর্শ অনুযায়ী সমন্বয় বজায় রেখে চলবে ৷ ডাব্লু এম সি সি -র বৈঠকে সেনা ও প্রশাসনিক স্তরে যে কথাবার্তা হচ্ছে তাতে সহমত হয়েছে দু পক্ষই ৷ সেনা পিছনে সরানোর কাজ করবে দুই দেশই ৷

    Published by:Debalina Datta
    First published:

    Tags: India China FaceOff

    পরবর্তী খবর