corona virus btn
corona virus btn
Loading

অ্যাপ তৈরিতে এবার আত্মনির্ভরতার ডাক, চিনকে টক্কর দিতে নতুন চ্যালেঞ্জ নরেন্দ্র মোদির

অ্যাপ তৈরিতে এবার আত্মনির্ভরতার ডাক, চিনকে টক্কর দিতে নতুন চ্যালেঞ্জ নরেন্দ্র মোদির
প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। ফাইল চিত্র।

কী ভাবে ডিজিটাল অ্যাপের প্রয়োজনীয়তা মেটানো হবে তাই নিয়ে যখন সন্দিহান দেশবাসী, পথ বাতলালেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি।

  • Share this:

#নয়াদিল্লি: ডিজিটাল স্ট্রাইক। সার্জিকাল স্ট্রাইকের তুলনায় কোনও অংশে কম নয়, ভারতের এই রণকৌশল। গালওয়ানে চিনা আগ্রাসনের কয়েকদিনের মধ্যে ৫৯ টি চিনা অ্যাপ বাতিল করে সেই বার্তাই দিয়েছে কেন্দ্র।

কিন্তু পাশাপাশি প্রশ্ন উঠছে বিকল্প নিয়েই। কী ভাবে ডিজিটাল অ্যাপের প্রয়োজনীয়তা মেটানো হবে তাই নিয়ে যখন সন্দিহান দেশবাসী ৷ পথ বাতলালেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। আত্মনির্ভরতা অর্জনের কথা আগেই বলেছিলেন তিনি। এবার সেই সুতোতেই গাঁথলেন তথ্যপ্রযুক্তি জগতের অনন্ত সম্ভাবনাকে। তথ্য প্রযুক্তির স্টার্টআপ সংস্থাগুলিকে অ্যাপ তৈরির চ্যালেঞ্জ দিলেন তিনি। প্রধানমন্ত্রীর স্লোগান: আত্মনির্ভর দেশ গড়ার জন্য কোডিং করা যাক।

প্রধানমন্ত্রী এ দিন বলেন, "আমাদের টেক স্টার্টআপ ও টেক কমিউনিটিকে উৎসাহিত করতে বৈদ্যুতিন ও তথ্য প্রযুক্তি মন্ত্রক অটল ইনোভেশন মিশনের অধীনে নিয়ে আসছে আত্মনির্ভর ভারত চ্যালেঞ্জ। এই চ্যালেঞ্জটির স্পষ্টতই দু'টি অংশ রয়েছে। একদিকে আমাদের লক্ষ্য চালু অ্যাপগুলির জোরদার বিপণন। অন্যদিকে নতুন অ্যাপ তৈরি করা।"

প্রধানমন্ত্রী জানাচ্ছেন, ইতিমধ্যেই বাজারে থাকা অ্যাপগুলিকে কয়েকটি ক্যাটাগরির ভিত্তিতে বাছাই করা হবে। ই-লার্নিং, ওয়ার্ক ফ্রম হোম, বিজনেস, গেমিং, অফিসের নানা ব্যবহারিক উপযোগিতা, সোশ্যাল নেটওয়ার্কিং ভিত্তিক অ্যাপগুলির মধ্যে থেকে সবচেয়ে ভাল অ্যাপগুলিকে বেছে নেওয়া হবে ট্র্যাক ১-এ। অন্য দিকে ট্র্যাক ২ বাছাই করা হবে শ্রেষ্ঠ উদ্ভাবনকে। সেরা ভাবনাগুলিকে বাস্তবায়িত করার জন্য প্রয়োজনীয় সাহায্য করবে সরকারই। সাহায্য করা হবে ইনকিউবিশন, বাজারিকরণের মতো ধাপগুলিকে।

৫৯ টি অ্যাপ ব্যান করে ভারত পিছিয়ে পড়েনি, বরং আত্মনির্ভরতার পথে প্রথম পদক্ষেপ করেছে। এই বার্তাই দিয়ে প্রধানমন্ত্রী চাইছেন বিশ্বের বাজারে ভারতীয় টেক স্টার্ট আপের শক্তি তুলে ধরতে।

কী ধরণের অ্যাপ নিয়ে এগনো যেতে পারে? প্রধানমন্ত্রী কয়েকটি সূত্রও দিয়েছেন। তাঁর কথায়-

পুরনো ভারতীয় খেলাগুলিকে ফিরিয়ে আনা যেতে পারে অ্যাপের মাধ্যমে।

সঠিক বয়সের জন্য খেলা ও লেখাপড়়ার সামঞ্জস্য বিধানের অ্যাপ তৈরি করা যেতে পারে।

তৈরি করা যেতে পারে এমন কিছু অ্যাপ যা কাউন্সেলিংয়ে সহায়ক হবে।

প্রধানমন্ত্রী জানিয়েছেন, এই আত্মনির্ভর অ্যাপ চ্যালেঞ্জকে শক্তিশালী করতে সরকারের হাত ধরবে বেশ কয়ে কয়েকটি নামজাদা সংস্থা।

Published by: Arka Deb
First published: July 4, 2020, 5:17 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर