corona virus btn
corona virus btn
Loading

ভারত-চিন সংঘর্ষের ঘটনা দুর্ভাগ্যজনক বলে ব্যাখ্যা ভারতে নিযুক্ত চিনা রাষ্ট্রদূতের

ভারত-চিন সংঘর্ষের ঘটনা দুর্ভাগ্যজনক বলে ব্যাখ্যা ভারতে নিযুক্ত চিনা রাষ্ট্রদূতের
Sun Weidong

এই ঘটনাটি ভারত-চিন সম্পর্কের ইতিহাতে একটি বিক্ষিপ্ত ঘটনা বলে উল্লেখ করা হবে বলে জানান তিনি। ওয়েডং আরও বলেন, আলোচনার মাধ্যমে এই উত্তেজনা প্রশমন করতে হবে।

  • Share this:

#নয়াদিল্লি: লাদাখের গালওয়ান উপত্যকায় প্রকৃত নিয়ন্ত্রণ রেখায় (LAC) ভারত-চিন সংঘর্ষের পরে দুই মাসেরও বেশি সময় পেরিয়ে গিয়েছে। ঘটনায় ভারতের ২০ জন সেনা শহিদ হন। এরপর সীমান্তে শান্তি ফেরাতে ভারত ও চিনের মধ্যে বেশ কয়েক দফা আলোচনা হয়েছে, তবে এখনও পর্যন্ত পুরোপুরি শান্তি ফেরেনি সীমান্তে। এরই মধ্যে ভারতে চিনা রাষ্ট্রদূত সান ওয়েডং এই ঘটনাকে দুর্ভাগ্যজনক বলে ব্যাখ্যা করলেন। ঘটনাটি ভারত-চিন সম্পর্কের ইতিহাতে একটি বিক্ষিপ্ত ঘটনা বলে উল্লেখ করা হবে বলে জানান তিনি। ওয়েডং আরও বলেন, আলোচনার মাধ্যমে এই উত্তেজনা প্রশমন করতে হবে।

একটি সর্বভারতীয় সংবাদপত্রের খবর অনুযায়ী, ১৮ অগাস্ট ভারত-চিন যুব ফোরামের এক বৈঠকে নিজের মত প্রকাশ করেন সান ওয়েডং৷ রাষ্ট্রদূতের এই মন্তব্য মঙ্গলবার প্রকাশিত হয় চিনা দূতাবাস থেকে। এই ওয়েবিনারে সান ওয়েডং বলেন, 'উন্নতশীল দুই প্রতিবেশী দেশ ভারত ও চিনের পুরনো মানসিকতা থেকে মুক্ত হওয়া উচিৎ৷ এতে একে অপরের ক্ষতি হবে এবং এমন পরিস্থিতিতে ভুল পথে চালিত হবে দুই দেশই'৷

এর সঙ্গেই তিনি যোগ করেন যে, 'খুব বেশি দিন হয়নি যখন সীমান্তে একটি দুর্ভাগ্যজনক ঘটনা ঘটেছে যা চিন বা ভারত কারও কাছেই কাম্য নয়। এই পরিস্থিতি ঠিক করার চেষ্টা হচ্ছে। উন্নয়নের লক্ষ্যে উভয় দেশেরই একটি 'শান্তিপূর্ণ ও বন্ধুত্বপূর্ণ' পরিবেশ প্রয়োজন। চিন ও ভারত, প্রতিবেশী দেশ হিসেবে শান্তি বজার রাখতে হবে এবং কোনও প্রকার সংঘাত এড়ানো উচিত।' মত ভারতে চিনা রাষ্ট্রদূতের৷

জুনে গালওয়ানে অচলাবস্থার পরে দুই দেশের মধ্যে অর্থনৈতিক সম্পর্কে যে চিড় ধরেছে তা নিয়ে সান ওয়েডং বলেন,  'দুই দেশের অর্থনীতি একে অপরের সঙ্গে চুম্বকের মতো লেগে থাকলেই উন্নতি হবে৷ সেখানে দাঁড়িয়ে কোনও তার মধ্যে বিভেদ আসা উচিত নয়৷ ' তিনি আরও বলেন,  'চিন এবং ভারতের বিভিন্ন সামাজিক ব্যবস্থা এবং সাংস্কৃতিক ঐতিহ্য রয়েছে৷ দুই দেশেরই লক্ষ্য উন্নয়নের পথ অনুসরণ করা। '

Published by: Pooja Basu
First published: August 26, 2020, 10:56 AM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर