• Home
  • »
  • News
  • »
  • india-china
  • »
  • অনুপ্রবেশের চেষ্টা করেনি চিনা সেনা, লাদাখে দুই বাহিনীর ধস্তাধস্তির পর দাবি বেজিংয়ের

অনুপ্রবেশের চেষ্টা করেনি চিনা সেনা, লাদাখে দুই বাহিনীর ধস্তাধস্তির পর দাবি বেজিংয়ের

ভারতীয় সেনা এই পাহাড় চূড়োগুলি দখল করার পরেই রেজাং লা এবং রেচেন লা-র কাছাকাছি তিন হাজার অতিরিক্ত সশস্ত্র বাহিনী মোতায়েন করেছে চিনা৷ মলডো সেনা ঘাঁটি থেকে অতিরিক্ত বাহিনী এনে এই এলাকাগুলিতে মোতায়েন করেছে চিনের সেনাবাহিনী৷

ভারতীয় সেনা এই পাহাড় চূড়োগুলি দখল করার পরেই রেজাং লা এবং রেচেন লা-র কাছাকাছি তিন হাজার অতিরিক্ত সশস্ত্র বাহিনী মোতায়েন করেছে চিনা৷ মলডো সেনা ঘাঁটি থেকে অতিরিক্ত বাহিনী এনে এই এলাকাগুলিতে মোতায়েন করেছে চিনের সেনাবাহিনী৷

ভারতীয় সেনার তরফে দেওয়া বিবৃতিতে অভিযোগ করা হয়েছে, পূর্ব লাদাখে স্থিতাবস্থা বদলে দিতে উস্কানিমূলক পদক্ষেপ করে চিনা সেনা৷

  • Share this:

    #বেজিং: চিনা বাহিনী কখনওই প্রকৃত নিয়ন্ত্রণরেখা পেরোয় না৷ লাদাখে ভারতীয় এবং চিনা বাহিনীর মধ্যে নতুন করে ধস্তাধস্তির খবরে এমনই প্রতিক্রিয়া দিল চিনা বিদেশমন্ত্রক৷ ভারতের অভিযোগ ছিল, লাদাখে প্যাংগং হ্রদের কাছে অনুপ্রবেশের চেষ্টা করেছিল চিনা সেনা৷ শনিবার রাতে চিনা বাহিনীর এই প্ররোচনামূলক পদক্ষেপে বাধা দেয় ভারত৷ তার পরই দু' দেশের বাহিনীর মধ্যে ধস্তাধস্তি হয় বলে খবর৷ চিনা বিদেশমন্ত্রকের অবশ্য দাবি, উত্তেজনা প্রশমনে দুই দেশের মধ্যে আলোচনা শুরু হয়েছে৷

    এক বিবৃতিতে চিনা বিদেশমন্ত্রকের মুখপাত্র ঝাও লিঝিয়ান দাবি করেন, 'চিনের সীমান্ত রক্ষা বাহিনী কখনওই প্রকৃত নিয়ন্ত্রণরেখা পেরোয় না৷'

    ভারতীয় সেনার তরফে দেওয়া বিবৃতিতে অভিযোগ করা হয়েছে, পূর্ব লাদাখে স্থিতাবস্থা বদলে দিতে উস্কানিমূলক পদক্ষেপ করে চিনা সেনা৷ যা আটকে দিয়েছে ভারতীয় সেনাবাহিনী৷ চিনা অনুপ্রবেশ রুখতে ওই এলাকায় নজরদারি এবং নিরাপত্তা আরও বাড়ানো হচ্ছে বলেও সেনার তরফে জানানো হয়েছে৷

    বিবৃতিতে ভারতীয় সেনা জানিয়েছে, 'সামরিক ও কূটনৈতিক স্তরে ঐক্যমতের ভিত্তিতে যে সিদ্ধান্তে পৌঁছনো হয়েছিল, তা ভঙ্গ করে স্থিতাবস্থা বদলে দিতে ২৯ তারিখ রাতে পূর্ব লাদাখে প্ররোচনামূলক পদক্ষেপ করে চিনা বাহিনী৷' বিবৃতিতে আরও জানানো হয়েছে, 'প্যাংগং তাসো লেকের দক্ষিণ দিকে চিনা সেনার এই সক্রিয়তা রুখতে বাধা দেয় ভারতীয় বাহিনী৷ একতরফা ভাবে ওই অঞ্চলের পরিস্থিতি বদলে দেওয়ার উদ্দেশ্যে চিনা বাহিনীর গতিবিধি রুখতে ভারতীয় সেনা এলাকায় নিজেদের অবস্থান আরও সুদৃঢ় করেছে৷ ভারতীয় সেনা আলোচনার মাধ্যমে শান্তি ফেরানোরই পক্ষে, কিন্তু একই সঙ্গে নিজেদের এলাকার অখণ্ডতা রক্ষার বিষয়ে দৃঢ়প্রতিজ্ঞ৷'

    Published by:Debamoy Ghosh
    First published: