• হোম
  • »
  • খবর
  • »
  • Explained
  • »
  • WHICH COUNTRIES HAVE RESTRICTED TRAVEL TO AND FROM INDIA AMID COVID 19 SECOND WAVE REASON BEHIND SDG

Coronavirus 2nd Wave: করোনায় লাল তালিকাভুক্ত ভারত, যাওয়া-আসায় লাগাম একাধিক দেশের! তালিকা দেখুন...

Coronavirus 2nd Wave: করোনায় লাল তালিকাভুক্ত ভারত, যাওয়া-আসায় লাগাম একাধিক দেশের! তালিকা দেখুন...

গত সোমবারই ইউনাইটেড কিংডম আমাদের দেশকে তার ট্র্যাভেল লিস্টে লাল তালিকাভুক্ত করেছে।

গত সোমবারই ইউনাইটেড কিংডম আমাদের দেশকে তার ট্র্যাভেল লিস্টে লাল তালিকাভুক্ত করেছে।

  • Share this:

#নয়াদিল্লি: দেশে হু-হু করে বাড়ছে করোনা আক্রান্তের (Coronavirus) সংখ্যা। বাড়ছে মৃতের (COVID Death) সংখ্যাও। গত ২৪ ঘণ্টায় ভারতে আক্রান্ত ৩ লাখ ১৪ হাজার মানুষ। যা গত প্রায় দেড় বছরে সব চেয়ে বেশি। যত দিন যাচ্ছে করোনা গ্রাফ উর্ধ্বমুখী (Corona Graph in India)। এই পরিস্থিতিতে একাধিক দেশ ভারতকে লাল তালিকাভুক্ত (Red Listed) করেছে এবং বেশ কয়েকটি দেশ ভারতে ভ্রমণে নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে। গত সোমবারই ইউনাইটেড কিংডম আমাদের দেশকে তার ট্র্যাভেল লিস্টে লাল তালিকাভুক্ত করেছে। এর পরই US সেন্টার ফর ডিজিজ কন্ট্রোল অ্য়ান্ড প্রিভেনশন (CDC)-ও একটি নির্দেশিকা জারি করে জানিয়ে দিয়েছে ভারতে ভ্রমণ এড়িয়ে যান।

এখানেই শেষ নয়, রবিবার হংকং-এর একটি ইমারজেন্সি সার্কিট ব্রেকার তৈরি করে ১৪ দিনের জন্য ভারতে ও ভারত থেকে সমস্ত ভ্রমণ বাতিল করেছে। একই সিদ্ধান্ত নিয়েছে নিউজিল্যান্ডও। ভারত থেকে ট্র্যাভেলারদের ঢোকা নিষিদ্ধ করেছে তারা।

এখন প্রশ্ন, এত দিন সব ঠিক ছিল, কেন হঠাৎ ভারতে ভ্রমণ বাতিল করছে দেশগুলি?

ব্রিটেন এ বিষয়ে বিশ্লেষণ দিতে গিয়ে জানিয়েছে, সম্প্রতি ১০৩ জনের মধ্যে করোনার নতুন একটি স্ট্রেইন পাওয়া গিয়েছে, যা শুধুমাত্র ভারতে রয়েছে। আর তার পরই এই লাল তালিকাভুক্ত করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। রবিবার হংকং-ও ভারতে সমস্ত উড়ান বাতিল করে এবং ভারত থেকেও উড়ান বাতিল করে।

শুধু নতুন স্ট্রেইনই নয়, এই ক্ষেত্রে আরও একটি বিষয় নিয়ে চিন্তায় তারা, তা হল ভারতে বাড়তে থাকা কোভিড সংক্রমণ। যা খুবই চিন্তার। US-এর CDC-র উপদেষ্টা কমিটি তাদের রিপোর্টে জানিয়েছে, লেভেল ৩ থেকে লেভেল ৪ পর্যন্ত যে স্কেল রয়েছে,তাতে সব চেয়ে বেশি ও আগে রয়েছে ভারত। প্রতি দিন কয়েক হাজার করে বাড়ছে আক্রান্তের সংখ্যা।

ইউনাটেড কিংডম বা ব্রিটেনের ট্র্যাভেল লিস্টে লাল তালিকাভুক্ত হলে কী হবে?

ব্রিটেন সরকারের নির্দেশিকা অনুযায়ী, ২৩ এপ্রিল ভোর ৪টের আগে যদি কেউ সে দেশে পৌঁছায় ভারত থেকে তা হলে তাকে ১০ দিন সেল্ফ আইসোলেশনে থাকতে হবে। দ্বিতীয় দিন ও অষ্টম দিনে দু'টি কোভিড টেস্ট করাতে হবে। এক্ষেত্রে যদি কেউ ব্রিটিশ নাগরিক হন বা আইরিশ বা অন্য দেশের কেউ, তা হলে তাদের রেসিডেন্সি রাইটস থাকতে হবে। তবুও ভারত থেকে ফিরলে কোনও হোটেলে আইসোলেশনের ব্যবস্থা করতে হবে।

US সেন্টার ফর ডিজিজ কন্ট্রোল অ্য়ান্ড প্রিভেনশন কেন নিল এই সিদ্ধান্ত?

CDC তাদের ট্রাভেল নোটিস পেজে উল্লেখ করেছে, বর্তমানে ভারতে করোনার যা পরিস্থিতি তাতে যদি কেউ টিকা নিয়েও থাকেন, তাও তারা সেখানকার স্ট্রেইন ছড়াতে পারেন। ফলে সেই বিষয়টি এড়ানোর জন্য আপাতত ভারতে ভ্রমণ এড়িয়ে যাওয়াই ভালো। যদি কোনও কারণে যেতেই হয় সেখানে, তা হলে অবশ্য়ই ভ্যাকসিন নিয়ে নিন আগে এবং সেখানে গিয়ে ভিড় এড়িয়ে চলুন। ছ'ফুট দূরত্ব বজায় রাখুন ও হাত স্যানিটাইজ় করুন বার বার।

তা হলে কf আমেরিকা ও ব্রিটেনে যাওয়ার সুযোগ রয়েছে?

এখনও পর্যন্ত যা তথ্য রয়েছে, তা বলছে Air India, Vistara, United, British Airways এখনও ভারতের সঙ্গে উড়ান চালাচ্ছে। দিল্লি, মুম্বই ও বেঙ্গালুরুর মতো কয়েকটি শহর থেকে লন্ডন, নিউ ইয়র্ক, জন এফ কেনেডি ও নিউ ইয়র্কে উড়ান চলছে।

Published by:Shubhagata Dey
First published: