Home /News /explained /
Explained: কীভাবে আর্থিক সঙ্কট কাটিয়ে ছন্দে ফেরার চেষ্টা চালাচ্ছে বার্সেলোনা?

Explained: কীভাবে আর্থিক সঙ্কট কাটিয়ে ছন্দে ফেরার চেষ্টা চালাচ্ছে বার্সেলোনা?

বার্সেলোনার আর্থিক সঙ্কটের জন্য প্রাক্তন ক্লাব প্রেসিডেন্ট জোসেপ বার্তোমেউকে (Josep Bartomeu) অভিযুক্ত করা হয়েছে।

  • Share this:

যাত্রা শুরু হয়েছিল সেই ১৮৯৯ সালে। বাঙালি যেমন তার খেলা নিয়ে উন্মাদনা, বিশেষ করে ফুটবল-প্রীতির জন্য বিখ্যাত, সেই একই কথা বলা যায় স্পেনের বাসিন্দাদের সম্পর্কেও। কেন না, পরিসংখ্যান যা বলছে, তার থেকে একটা তথ্য পরিষ্কার- বার্সেলোনা ফুটবল দলের সঙ্গে বরাবরই জড়িয়ে রয়েছে তার খেলাপ্রেমী সাধারণ মানুষের কথা। ১৮৯৯ সালে সুইস, ইংরেজ এবং স্পেনের কাতালান নাগরিকদের হাত ধরে গড়ে উঠেছিল দলটি। এক দীর্ঘ সময় ধরে ভক্তরাই ছিলেন এই বার্সেলোনা ফুটবল দলের প্রধান পৃষ্ঠপোষক।

প্রায় দুই দশক চ্যাম্পিয়ন্স লিগে অভিজাত ক্লাবগুলির সঙ্গে লড়াই করার পর বার্সেলোনা (Barcelona) ইউরোপীয় ফুটবলের দ্বিতীয় স্তরে নেমে গিয়েছে। যা এই ক্লাবের প্রতিপত্তি ও আর্থিক অবস্থার উপর বড় আঘাত। বৃহস্পতিবার ইউরোপা লিগে (Europa League) প্লে অফের প্রথম লেগে নাপোলির বিরুদ্ধে ১-১ গোলে ড্র করে বার্সোলোনা। তবে, স্প্যানিশ লা লিগার গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচে বড় জয় পেয়েছে বার্সেলোনা। জায়ান্ট কিলার খ্যাত ভ্যালেন্সিয়াকে ৪-১ গোলে উড়িয়ে দিয়েছে জাভি হার্নান্দেজের দল। কাতালান ক্লাবটির হয়ে এই ম্যাচে দুরন্ত হ্যাটট্রিক করেন শীতকালীন ট্রান্সফার উইন্ডোতে আর্সেনাল থেকে আসা পিয়েরে-এমেরিক অবামেয়াং। বর্তমানে লা লিগার পয়েন্ট তালিকার চতুর্থ স্থানে রয়েছে জাভি হার্নান্দেজের বার্সেলোনা। ২৪ ম্যাচে বার্সার পয়েন্ট ৪২। ২৫ ম্যাচে ৩০ পয়েন্ট নিয়ে ১২ নম্বরে রয়েছে ভ্যালেন্সিয়া। ৫৭ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে রয়েছে রিয়াল। ৫১ ও ৪৬ পয়েন্ট নিয়ে দ্বিতীয় ও তৃতীয় স্থানে যথাক্রমে সেভিয়া ও বেতিস। ১৮ বছর আগে ক্লাবটি নিম্ন-স্তরের উয়েফা কাপে (UEFA Cup) শেষবার খেলেছিল। এরপর থেকে প্রতিবারই চ্যাম্পিয়ন্স লিগের (Champions League) নকআউট পর্বে জায়গা করে নিয়েছে ও পাঁচবার শিরোপা জিতেছে।

আরও পড়ুন : অপ্রতিরোধ্য ভারতের অগ্রগতি! আগামী ২০ বছরে গ্রিন এনার্জি সুপারপাওয়ারে পরিণত হবে দেশ: মুকেশ আম্বানি!

কাতালান ক্লাবের এই দ্রুত পতনের জন্য দায়ী সাম্প্রতিক আর্থিক সঙ্কটও। গত গ্রীষ্মে লিওনেল মেসি (Lionel Messi) দল ছেড়ে পিএসজি (PSG)-তে গিয়েছেন। আমরা এই প্রতিবেদনে বার্সেলোনার আর্থিক সঙ্কট (Barcelona’s Financial Struggles) কীভাবে শুরু হয়েছিল এবং ইউরোপে শীর্ষ প্রতিযোগী হিসাবে তার মর্যাদা পুনরুদ্ধার করার জন্য ক্লাবটি এখন কী করছে, তার বিস্তারিত জানব।

ক্লাবের সমস্যাগুলি কী কী?

বার্সেলোনার আর্থিক সঙ্কটের জন্য প্রাক্তন ক্লাব প্রেসিডেন্ট জোসেপ বার্তোমেউকে (Josep Bartomeu) অভিযুক্ত করা হয়েছে। বার্তামেউ গত বছর পদ ছাড়েন। তাঁর বিরুদ্ধে প্রশাসনে অনিয়ম এবং মেসির সঙ্গে বিবাদের অভিযোগ উঠেছিল। এছাড়াও কোভিড অতিমারীও ক্লাবটিকেও প্রভাবিত করেছিল। দলের প্রথম সারির খেলোয়াড়দের ক্রমবর্ধমান উচ্চ বেতন বেশিরভাগ সমস্যা তৈরি করেছিল। গ্লোবাল স্পোর্টস স্যালারির সার্ভে অনুসারে, বার্তোমেউর প্রশাসনের শেষের দিকে বার্সেলোনা সমস্ত খেলাধুলায় সর্বোচ্চ বেতনের অধিকারী ছিল। গত বছর নতুন প্রেসিডেন্ট জোয়ান লাপোর্তা (Joan Laporta) আসার সময় খেলোয়াড়দের খরচ ক্লাবের মোট আয়কে ছাড়িয়ে যায়।

আরও পড়ুন : বৃহত্তম জীবন বিমা সংস্থা এলআইসি কেন বাজারে শেয়ার ছাড়ছে? জানুন...

ক্লাবের ঋণ: বার্সেলোনা ক্লাবের ঋণ প্রায় ১.৩ বিলিয়ন ইউরো বা প্রায় ১.৫ বিলিয়ন মার্কিন ডলারে পৌঁছেছে। যার মধ্যে রয়েছে প্রায় ৩৯০ মিলিয়ন ইউরো বা ৪৪৩ মিলিয়ন ডলার খেলোয়াড়দের বেতন সম্পর্কিত এবং ৬৭০ মিলিয়ন ইউরো বা ৭৬১ মিলিয়ন ডলার ব্যাঙ্কের পাওনা। প্রায় ৪০ মিলিয়ন ইউরো বা ৪৫ মিলিয়ন ডলার ক্ষতি সদস্যপদ পুনর্নবীকরণ না হওয়ার কারণে। এছাড়াও অতিমারীর কারণে মোট ক্ষতির পরিমাণ ছিল ৯১ মিলিয়ন ইউরো বা ১০৩ মিলিয়ন ডলার। বার্সোলোনা ১ লাখ ৩৭ হাজারের বেশি সদস্যের মালিকানাধীন ক্লাবের মোট লোকসানের পরিমাণ ৪৮১ মিলিয়ন ইউরো বা ৫৪৭ মিলিয়ন ডলার। ২০২০-২১ সালে ক্লাবের আয় ছিল ৬৩১ মিলিয়ন ইউরো বা ৭১৭ মিলিয়ন ডলার।, যা আগের বছরের থেকে ৮৫৫ মিলিয়ন ইউরো বা ৯৭২ মিলিয়ন কম।

খেলোয়াড়দের বেতন

গত পাঁচ মরসুমে খেলোয়াড়দের বেতন ৬১ শতাংশ বেড়েছে। লাপোর্তা বলেছেন যে এটির পরিমাণ প্রায় ৮৩৫ মিলিয়ন ইউরো বা ৯৪৯ মিলিয়ন ডলার, যা ক্লাবের রাজস্বের প্রায় ১১০ শতাংশ। সর্বোচ্চ বেতনের খেলোয়াড়দের মধ্যে ছিলেন লিওনেল মেসি। তিনি প্রতি মরসুমে ১৩৮ মিলিয়ন বা ১৫৬ মিলিয়ন ডলার নিতেন পারিশ্রমিক হিসাবে। এছাড়াও আন্তোয়ান গ্রিজম্যান (Antoine Griezmann), ফিলিপ কৌতিনহো (Philippe Coutinho) এবং উসমান ডেম্বেলেও (Ousmane Dembélé) মোটা অর্থ বেতন নিতেন। ডোম্বলে শীতকালীন ট্রান্সফারে ছাড়ার প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করার পর স্কোয়াডে থাকা একমাত্র ব্যক্তি। লাপোর্তা এজেন্টদের কমিশন দেওয়ার অভিযোগও করেছেন, যা স্বাভাবিকের চেয়ে বেশি, কখনও কখনও তা ৩০ শতাংশ পর্যন্ত।

আরও পড়ুন :  প্রাণিহত্যা নয়, এ বার মাংস পাওয়া যাবে বাতাস থেকেই!

বেতন সীমা

উচ্চ বেতন বার্সেলোনার পক্ষে স্কোয়াডকে একত্রিত করা কঠিন করে তুলেছিল। কারণ স্প্যানিশ লিগের কঠোর ফেয়ার-প্লে বিধি রয়েছে, যা বেশিরভাগ ক্লাবের আর্থিক অবস্থার সঙ্গে যুক্ত। প্রতিটি ক্লাবের একটি আলাদা বেতনের সীমা রয়েছে যা রাজস্ব, খরচ এবং ঋণ ইত্যাদি বিষয়গুলির উপর ভিত্তি করে গণনা করা হয়। এটি একটি ক্লাবের আয়ের প্রায় ৭০ শতাংশের সমানুপাতিক। ২০২১-২২ সালে বার্সেলোনার ক্যাপ কমিয়ে ৯৭ মিলিয়ন ইউরো বা ১১০ মিলিয়ন ডলার করা হয়েছিল, যা প্রতিদ্বন্দ্বী রিয়াল মাদ্রিদের (Real Madrid) চেয়ে সাতগুণেরও বেশি কম। বার্সেলোনার সংকট ইতিমধ্যেই লিগকে বাধ্য করেছে গত মরসুমে ক্লাবের ক্যাপ ৬৭১ মিলিয়ন ইউরো বা ৭৬৩ মিলিয়ন ডলার থেকে ছেঁটে ৩৮২ মিলিয়ন ইউরো বা ৪৩৪ মিলিয়ন ডলারে নামিয়ে আনতে।

সমস্যা মেটাতে কী করা হয়েছিল?

লাপোর্তা প্রায় ২০০ মিলিয়ন ইউরো বা ২২৭ মিলিয়ন ডলার বেতন কমিয়ে ক্লাবের ঋণ মেটাতে পদক্ষেপ নিয়েছেন। পেদ্রি গনজালেজ (Pedri González), গাভি পায়েজ (Gavi Páez) এবং নিকো গঞ্জালেজের (Nico González) মতো তরুণ খেলোয়াড়দের প্রথম দলে উন্নীত করার উপর মনোযোগ দিয়েছেন। এছাড়াও মূল বিষয় ছিল ক্লাবের কয়েকজন সর্বোচ্চ বেতনভোগী খেলোয়াড়ের বেতন কম করা এবং বিনামূল্যের এজেন্টদের স্বাক্ষর করানো।

বেতন হ্রাস: ক্লাবটি গত বছর জেরার্ড পিকে (Gerard Piqué), সার্জিও বুস্কেটস (Sergio Busquets) এবং জর্ডি আলবার (Jordi Alba) মতো খেলোয়াড়দের বেতন কমিয়েছে। এই বছর এটি স্যামুয়েল উমতিতির বেতনও কমানো হয়েছে। কৌতিনহো এবং ইউসুফ ডেমিরের দল ছাড়ার পর বেতনের উপরে চাপ আরও কমে। আর তাতেই ক্লাবটিকে ফেরান টোরেস, দানি আলভেস, আদামা ট্রাওরে এবং পিয়ের-এমেরিক আউবামেয়াংকে সই করিয়েছে। গত মরসুমে গ্রিজম্যানকে অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদে ফেরত নিয়েছে, সেই দলবদলে ঋণের অর্থ আংশিকভাবে মেমফিস ডেপে এবং এরিক গার্সিয়াকে চুক্তিবদ্ধ করতে সহায়তা করেছিল। খরচ কমাতে লুইস সুয়ারেজকে এক বছর আগে অ্যাটলেটিকোতেও ছেড়ে দেওয়া হয়েছিল।

ভবিষ্যৎ: লাপোর্তা ক্লাবের অর্থায়নের একটি পাঁচ বছরের পুনর্গঠন প্রকল্প চালু করেছেন। এতে ৫০০ মিলিয়ন ইউরো বা ৬৬৮ মিলিয়ন ডলারেরও বেশি ঋণে গোল্ডম্যান শ্যাসের সঙ্গে ক্লাবের চুক্তি অন্তর্ভুক্ত ছিল। ক্যাম্প নউ স্টেডিয়াম এবং অন্যান্য সুযোগ-সুবিধাগুলি আবারও চালু করার জন্য ১.৫ বিলিয়ন ইউরো বা ১.৭ মিলিয়ন ডলার প্যাকেজ ঘোষণা করা হয়েছে। থমকে যাওয়া কাজগুলি আবারও শুরু করা হয়েছে। নতুন স্পনসরের খোঁজ চালাচ্ছে ক্লাবটি। এছাড়াও স্ট্রিমিং কোম্পানি Spotify-র সঙ্গে এই মরসুমের শেষেই নতুন করে চুক্তি হতে পারে। ইউরোপা লিগে খেলা মানে কম অর্থ পুরস্কার হিসেবে উপার্জন করবে বার্সেলোনা।

Published by:Arpita Roy Chowdhury
First published:

Tags: Barcelona, Barcelona Football Club, Europa League, UEFA Cup

পরবর্তী খবর