• Home
  • »
  • News
  • »
  • explained
  • »
  • Explained: কে ছিলেন জর্জ মুথুট? সোনা বাঁধা রাখার ব্যবসায় কী ভাবেই বা তিনি চূড়ান্ত বিত্তশালী হলেন?

Explained: কে ছিলেন জর্জ মুথুট? সোনা বাঁধা রাখার ব্যবসায় কী ভাবেই বা তিনি চূড়ান্ত বিত্তশালী হলেন?

Photo-File

Photo-File

সোনা বন্ধক রেখে ঋণ, এই ব্যবসার সঙ্গেই যুক্ত ছিলেন জর্জ মুথুট। যার উপরে ভর করে তৈরি করেন Muthoot Finance Ltd।

  • Share this:

#নয়াদিল্লি: শুক্রবার রাতে দিল্লিতে নিজের বাড়ির চার তলা থেকে পড়ে গিয়ে মৃত্যু হয় মুথুট গ্রুপের চেয়ারম্যান এম জি জর্জ মুথুটের (MG George Muthoot)। বয়স হয়েছিল ৭২। তাঁর মৃত্যুতে শোকের ছায়া নামে শিল্পজগতে।

শুক্রবার রাতে দিল্লির পূর্ব কৈলাস এলাকায় নিজের বাড়ির চার তলা থেকে আচমকাই পড়ে যান শিল্পপতি। তাঁকে তড়িঘড়ি উদ্ধার করে নিকটবর্তী হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসকরা মৃত বলে ঘোষণা করেন। পরে ময়নাতদন্তের প্রাথমিক রিপোর্টে জানা যায়, শিল্পপতির শরীরে কোনও অস্বাভাবিক কিছু পাওয়া যায়নি।

সোনা বন্ধক রেখে ঋণ, এই ব্যবসার সঙ্গেই যুক্ত ছিলেন জর্জ মুথুট। যার উপরে ভর করে তৈরি করেন Muthoot Finance Ltd। সারা দেশে এই কোম্পানির ব্যবসা রয়েছে। যার মার্কেট ক্যাপিটালিজম ৫১ কোটিরও বেশি। এবং মোট আয় ৮,৭২২ কোটি।

কে এই জর্জ মুথুট?

১৯৪৯ সালে কেরলের পাঠানমিথিত্তা জেলার কোজেনচেরিতে জন্ম তাঁর। মুথুট ফিন্যান্স গ্রুপের প্রতিষ্ঠাতা মুথুট নিনান মাথাইয়ের নাতি তিনি।

সাধারণ স্কুলে পড়াশোনার পর মণিপাল ইনস্টিটিউট অফ টেকনোলজি থেকে মেকানিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং নিয়ে পড়াশোনা করেন। পরে পারিবারিক ব্যবসায়ে যোগ দেন। ১৯৭৯ সালে ম্যানেজিং ডিরেক্টরের পদে আসীন হন। ১৯৯৩ সালে চেয়ারম্যানের দায়িত্ব পান।

গত শতকের আটের দশকে যৌথ পরিবার ভেঙে যায়, ফলে ব্যবসাও ভাগাভাগি হয়ে যায়। তার পর Muthoot Pappachan Group তৈরি হয় যা Muthoot Finance-এর প্রতিযোগী হয়ে দাঁড়ায়। সোনা বন্ধক থেকে ঋণ দেওয়ার ব্যবসাও ছড়িয়ে দেন তিনি।

কোচির সদর দপ্তর থেকে বিদেশের মাটিতেও পা রাখে জর্জের এই গোষ্ঠী। ৩১ শাখা থেকে মুথুট গোষ্ঠীর ৫,৫৫০-রও বেশি শাখা ছড়িয়ে গিয়েছে গোটা দেশে। তবে যে ব্যবসার হাত ধরে চূড়ান্ত সাফল্য এসেছে, সেই মুথুট ফাইনান্সকে নতুন শিখরে পৌঁছে দিয়েছিলেন তিনি। গত ডিসেম্বরের ত্রৈমাসিকে ওই সংস্থার থেকে ঋণের পরিমাণ ছিল ৫৬ হাজার কোটি টাকা।

এখানেই শেষ নয়, ২০২০-তে ফোর্বর্স এশিয়ার বিচারে দেশের ধনীদের মধ্যে ২৬ নম্বরে ছিলেন মুথুট। ছিলেন কেরলের Malankara Orthodox Church-এর সদস্যও।

তাঁর মৃত্যুর পর মুথুট ফিন্যান্সের তরফে এক বিবৃতিতে জানানো হয়েছে, M G George Muthoot-এর মৃত্যু কোম্পানি, অংশীদার, পরিবার ও বন্ধুদের কাছে একটা বিরাট ক্ষতি। তাঁর মৃত্যুতে প্রত্যেকটি কর্মচারি ও কোম্পানি গভীরভাবে শোকাহত। তাঁর পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানাই।

কী ভাবে হঠাৎ ছাদ থেকে পড়ে গেলেন তিনি? কী ভাবে মৃত্যু হল তাঁর?

পুলিশ জানাচ্ছে, হঠাৎ কোনও ভাবে নিজেকে সামলাতে না পেরে পড়ে যান জর্জ। তবে, এই ঘটনায় তদন্ত শুরু হয়েছে। পরিবারের সদস্যদের বক্তব্য রেকর্ড করা হচ্ছে। পাশাপাশি খতিয়ে দেখা হচ্ছে বাড়ির ও আশপাশের CCTV ফুটেজ।

তবে, পুলিশ এও জানাচ্ছে, মৃত্যুর আগে জর্জ একাই ছিলেন। CCTV ফুটেজে দেখা গিয়েছে, তিনি চার তলায় একা দাঁড়িয়েছিলেন।

Published by:Debalina Datta
First published: