‘‌ওরা আমাকে মারতে আসছে’‌, সুশান্তের কথায় ভয় পেয়ে ফ্ল্যাট ছেড়েছিলেন বান্ধবী রিয়া

তারকা অভিনেতার আত্মহত্যায় আষ্ঠেপৃষ্ঠে রয়েছে রহস্য ৷ পেশাগত নাকি নিজস্ব জীবন কিসের থেকে এমন চরম অবসাদের শিকার হলেন সুশান্ত সিং রাজপুতের মতো মানুষ! প্রাথমিক তদন্তের উপর ভিত্তি করে পুলিশের অনুমান সুশান্তের মৃত্যুর কারণ লুকিয়ে তাঁর ফোনেই ৷

সুহিত্রা লিখেছেন, ভাট সাহাব বারবার বলেছিলেন, রিয়ার কিছু করার ছিল না। ওখানে থাকলে রিয়াও নিজের ভারসাম্য় হারাতেন।

  • Share this:

    #‌মুম্বই:‌ সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যুর পর থেকেই নানারকম তত্ত্ব উঠে আসছে। কেন তিনি অবসাদে ডুবে গেলেন, তা অনেকেই অনুসন্ধানের চেষ্টা করছেন। কেউ কেউ মুখও খুলছেন তা নিয়ে। এবার সেই তালিকায় যুক্ত হলেন লেখক সুহিত্রা সেনগুপ্ত। তিনি দাবি করেছেন, কয়েকদিন ধরেই অসংলগ্ন ব্যবহার করছিলেন সুশান্ত সিং রাজপুত।

    তিনি বলেছিলেন, ‘‌মহেশ ভাটের অফিসে সুশান্তের সঙ্গে পরিচয় হয়েছিল। সেখান থেকেই সুশান্তের বিষয়ে জানতে পেরেছিলেন তিনি। তিনি বলেছেন, শেষ একবছরে বাইরের জগতের সঙ্গে সব যোগাযোগ বন্ধ করে দিয়েছিলেন সুশান্ত। তারপর একটা সময়ের পর সুশান্ত নিজের মনের মধ্যেই গলা শুনতে পেতেন। সুশান্তের মনে হত কেউ তাঁকে মারতে আসছে। একদিন সুশান্তের বাড়িতে অনুরাগ কাশ্যপের ছবি চলছিল। সেটার পর সুশান্ত রিয়াকে ফোন করে বলেছিলেন, ‘‌আমি অনুরাগের একটি ছবি করতে অস্বীকার করেছি। এবার ও আমাকে মারতে আসছে।’‌ তখনই এই কথা শুনে রিয়া নাকি ভয় পেয়ে সুশান্তের ফ্ল্যাট ছেড়ে বেরিয়ে আসেন।

    সুহিত্রা লিখেছেন, ‘‌ভাট সাহাব বারবার বলেছিলেন, রিয়ার কিছু করার ছিল না। ওখানে থাকলে রিয়াও নিজের ভারসাম্য় হারাতেন। রিয়া অপেক্ষা করছিলেন কবে সুশান্তের বোন আসবে আর দাদার দেখভালের দায়িত্ব নেবে।’‌

    Published by:Uddalak Bhattacharya
    First published: