Home /News /entertainment /
KK Love Life: লাজুক কেকে সহজ হতে পারতেন না প্রেমপর্বে, স্ত্রী জ্যোতির সঙ্গে আশৈশব সম্পর্ক ভেঙে গেল খর জ্যৈষ্ঠে

KK Love Life: লাজুক কেকে সহজ হতে পারতেন না প্রেমপর্বে, স্ত্রী জ্যোতির সঙ্গে আশৈশব সম্পর্ক ভেঙে গেল খর জ্যৈষ্ঠে

কেকে ও জ্যোতি বিয়ে করেন ১৯৯১ সালে

কেকে ও জ্যোতি বিয়ে করেন ১৯৯১ সালে

KK Love Life: প্রথমে বন্ধুত্ব, তার পর সময়ের সঙ্গে সঙ্গে সম্পর্ক রূপান্তরিত প্রেমে৷ কেকে ও জ্যোতি বিয়ে করেন ১৯৯১ সালে৷ তখন তাঁদের বয়স মাত্র ২৩ বছর৷

  • Share this:

    কলকাতা : শুধু অর্ধাঙ্গিনীই নন৷ স্ত্রী জ্যোতি কৃষ্ণ আক্ষরিক অর্থেই ছিলেন কৃষ্ণকুমার কুন্নথের জীবনের ‘জ্যোতি’৷ দু’জনের শৈশব প্রেম পরিণতি পেয়েছিল বিয়েতে৷ সেই সম্পর্ক ছিন্ন হল খর জ্যৈষ্ঠে৷ দীর্ঘ দশকের যাত্রাসঙ্গীকে একা রেখে চলে গেলেন কেকে৷ একবার কপিল শর্মার শো-এ এসে তাঁদের প্রেমপর্বের কথা বলেছিলেন কেকে৷ তাঁদের প্রথম দেখা ষষ্ঠ শ্রেণীতে পড়ার সময়৷ প্রথমে বন্ধুত্ব, তার পর সময়ের সঙ্গে সঙ্গে সম্পর্ক রূপান্তরিত প্রেমে৷ কেকে ও জ্যোতি বিয়ে করেন ১৯৯১ সালে৷ তখন তাঁদের বয়স মাত্র ২৩ বছর৷

    এতটাই লাজুক ছিলেন যে জ্যোতির সঙ্গে প্রেমপর্বেও তিনি সহজ হতে পারতেন না৷ নিজেই জানিয়েছেন কেকে৷ জ্যোতি ছাড়া আর কোনও নারী তাঁর জীবনে আসেননি৷ অন্য কারওর সঙ্গে গড়ে ওঠেনি সম্পর্কও৷ ঠিকই করে নিয়েছিলেন যদি বিয়ে করতে হয় তবে জ্যোতিকেই করবেন৷ তবে প্রেমপর্বের পথ আগাগোড়া মসৃণ ছিল না৷ জ্যোতিকে বিয়ে করার জন্য আর কোনও চাকরি না পেয়ে তিনি বাধ্য হয়ে সেলসম্যানের চাকরি করেছিলেন৷ বিয়ের তিন বছর পর ১৯৯৪ সালে কেরিয়ারে প্রথম বার বড় ব্রেক পান কেকে৷ এর পর ধীরে ধীরে বলিউডের প্লে ব্যাক দুনিয়ায় নিজের রাজপাট গড়ে তোলেন তিনি৷ জীবনের বন্ধুর পথে চড়াই উতরাই পেরিয়ে তাঁর পাশে আগাগোড়া ছিলেন স্ত্রী জ্যোতি৷ তাঁদের প্রেমই যেন অনুরণিত হয়েছে কেকে-এর কণ্ঠে অমর হয়ে থাকা অজস্র গানে৷

    আরও পড়ুন : ‘এ তুমি কেমন তুমি KK-এর গানকে হিংসে কর’, তাঁর গানের প্যারোডিতেই বিঁধলেন ভাস্বর

    আরও পড়ুন : এক শিল্পী গান গেয়ে শেষ হয়ে গেল, এক শিল্পী...পৌষালীর শ্লেষাত্মক পোস্ট ভাইরাল

    স্ত্রী, ছেলে নকুল এবং মেয়ে তামারাকে নিয়ে নিজের সুখী পারিবারিক বৃত্ত আড়ালেই রাখতেন কেকে৷ কাজের বাইরে ব্যক্তিগত জীবন তিনি বেশি প্রচারের আলোয় আনতেন না৷ সেই পারিবারিক পরিসর এখন কালবৈশাখীতে বিধ্বস্ত৷ কেকে-এর নশ্বর দেহ মুম্বই নিয়ে যেতে কলকাতায় এসেছিলেন তাঁর স্ত্রী জ্যোতি ও ছেলে নকুল৷ মানসিক আঘাতে বিধ্বস্ত জ্যোতি কথা বলার মতো অবস্থায় ছিলেন না৷ দৃশ্যতই ভেঙে পড়েন তিনি৷

    আরও পড়ুন : দর্শক-শ্রোতাকে মরে যেতে বলা থেকে জলসায় বিজ্ঞাপনী জিঙ্গল! রূপঙ্করের পুরনো বিতর্ক

    জীবনের যশ খ্যাতির জন্য কেকে স্বীকৃতি দিতেন তাঁর স্ত্রীকে৷ তাঁর রেখে যাওয়া গানই এখন অবলম্বন জ্যোতির৷ সঙ্গীকে ‘অলবিদা’ জানানোর পর এখন তাঁর রেখে যাওয়া সুরেই বাঁচবেন কেকে-এর জ্যোতি৷

    Published by:Arpita Roy Chowdhury
    First published:

    Tags: KK, KK Wife

    পরবর্তী খবর