সমকামে লিঙ্গ এক হলেও সেটাও তো প্রেম, সেলুলয়েডে ফুটে উঠেছে সেই ছবিই

সমকামে লিঙ্গ এক হলেও সেটাও তো প্রেম, সেলুলয়েডে ফুটে উঠেছে সেই ছবিই
  • Share this:

ARUNIMA DEY

#কলকাতা: সেলুলয়েডে বারবার ফুটে উঠেছে সমকাম... রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরেরর পূজা পর্যায়ের গান শুনলে কখনও তা প্রেম পর্যায়ের বলে মনে হতেই পারে। আবার উল্টোটাও হয়। প্রেম পর্যায়ে রয়েছে পূজার ছোঁয়া। প্রেম এবং পূজার যে নিবিড় সম্পর্ক, তা রবীন্দ্রনাথের গানে বারবার ফিরে আসে। প্রেমের সংজ্ঞা বা অর্থ নিয়ে নানা লোকের নানা মত। কেউ বলেন, প্রেম ভীষণ ক্ষণস্থায়ী।  আবেগ, প্রেম আসে যায় ভালবাসা রয়ে যায়। কিন্তু ভালোবাসা যদি পুজোই হয়, তাহলে তা নারী-পুরুষের মধ্যেই হতে হবে এমন কোনও বাঁধা ছক কে কবে ঠিক করে দিল কে জানে!

সমকামিতা আইনি স্বীকৃতি পেয়েছে। কিন্তু সামাজিক স্বীকৃতি? এখনও তো অনেকেই বলেন, এ তো প্রকৃতির বিরুদ্ধে। কেউ আবার বলেন ঘা কতক দিলেই সব ঠিক। আবার কেউ বলেন, সমকামিতা হালফিলের কোনও ব্যাপার নয়। সভ্যতার শুরু থেকেই রয়ে গিয়েছে সমকাম। কখনও কোথাও তা পেয়েছে স্বীকৃতি, আবার কোথাও রয়ে গিয়েছে আড়ালে। তাই গণমাধ্যমেও বারবার উঠে এসেছে সমকাম। বিদেশে যেমন, তেমন এ দেশেও। যদি সিনেমাকেই দেশের সবচেয়ে শক্তিশালী গণমাধ্যম বলে ধরে নেওয়া হয়, তাহলে ভারতীয় সিনেমায় সমকাম এসেছে একটু দেরিতে। সমকাম নিয়ে অন্যতম সাহসী ছবি ‘ফায়ার’। ৯-এর দশকের দীপা মেহতার এই ছবি বিপ্লব বলা চলে। দুই জা-এর চরিত্রে নন্দিতা দাস এবং শাবানা আজমি। নারী মানেই মেনে নেওয়া, মানিয়ে নেওয়া এই মানসিকতাকে ধাক্কা দিয়ে মানসিক-শারিরীক চাহিদাকে প্রধান্য দেওয়া হয়েছে ছবিতে। সূক্ষ্ম অনুভূতির ‘ফায়ার’ সেই সময় অনেকেরই পছন্দ হয়নি। ‘হনিমুন ট্রাভেলস প্রাইভেট লিমিটেড’ ছবিতে হালকা মেজাজে সমকামিতা তুলে ধরেছেন পরিচালক রিমা কাগতি। হানিমুনে গিয়ে কেউ নিজের সদ্য বিবাহিতা স্ত্রীর থেকেও সদ্য পরিচয় হওয়া এক পুরুষকে বেশি ভালোবেসে ফেলেছিলেন , তা সে সময় দর্শকদের হাসিয়েছিল। এটা যে কোনও সিরিয়াস বিষয় হতে পারে, তা বোঝার মতো সাবালক কি তখন দর্শক হয়েছিল, তা নিয়ে প্রশ্ন উঠতেই পারে। মধূর ভান্ডারকর ছবিতে সাধারণত সত্যি ঘটনা তুলে ধরার চেষ্টা করেন। ‘ফ্যাশন’ সেই তালিকাতেই পড়ে। ফ্যাশন জগতের নানা কালো দিকের সঙ্গে সমকামও দেখিয়েছেন পরিচালক। শুধুমাত্র সমাজের ভয়ে সমীর সোনি গে হয়েও বিয়ে করতে বাধ্য হন। সবকিছু জেনেও সমীরের কলেজের বান্ধবী তাঁকে বিয়ে করতে রাজি হন। হয়তো এই ঘটনা এখনও ঘটে চলেছে। ‘বম্বে টকিজ’-এ করণ জোহর পরিচালিত গল্প ‘অজিব দাস্তা হ্যায় ইয়ে’-তে সমকাম রয়েছে। সমাজে প্রতিষ্ঠিত মানুষেরও নিজেকে সমকামী হিসেবে মেলে ধরতে সমস্যা এবং নকল মুখোশ পরে থাকার গল্প বলে এই ছবি। গে চরিত্রে শকীব সেলিম ও রণদীপ হুডা অসাধারণ। ‘আলিগড়’-এর কথা বলতেই হয়। সমকামিতা যে আজও সমাজে বাস্তব সমস্যা, তা চোখে আঙুল দিয়ে দেখিয়ে দেয় এই ছবি।  মনোজ বাজপেয়ী, রাজকুমার রাও অনবদ্য। এই ছবিগুলো সমালোচকদের স্বীকৃতি পেয়েছে। তবে সে অর্থে কমার্শিয়াল বলা চলে না। কিন্তু নয়া দউর-এর পরিচালকরা এন্টারটেনমেন্ট কোশান্ট বজায় রেখেও অনায়াসেই ছবিতে সমকাম নিয়ে আসতে জানেন । এরকমই একটি ছবি ‘দোস্তানা’। মা কা লাডলা ছবির শেষে কিন্তু "বিগড়" হি গয়া। সমকামিতাকে "বিগড়ানো" একেবারেই বলা চলে না যদিও। ছবির সিক্যুয়েলের কাজও শুরু হয়ে গিয়েছে। নতুন ছবিতে থাকছেন কার্তিক আরিয়ন। এই তালিকাতেই পড়ে ‘কাপুর অ্যান্ড সন্স’।  হ্যান্ডসম ফাওয়াদ খান ছবিতে গে জানতে পেরে তন্বীরা হতাশ হয়েছেন ঠিকই। কিন্তু সমকাম যে স্বাভাবিক একটা ব্যাপার সেটা ফুটে উঠেছে ছবিতে। গে লভ স্টোরি পর্দায় ফুটে উঠেছে বেশ কয়েকবার।  তবে লেসবিয়ান প্রেম পর্দায় তেমন ভাবে দেখানো হয়নি। সোনম কাপুর অভিনীত ‘এক লড়কি কো দেখা তো অ্যায়সা লগা’ দুই মেয়ের প্রেমের গল্প। ‘ফায়ার’-এর মতো সাহসী নয় এই ছবি. তবে একটা ফিল গুড ব্যাপার রয়েছে। সমস্ত কিছুকে ছাপিয়ে গিয়েছে ‘শুভ মঙ্গল জাদা সাবধান’। কমেডির মোড়কে গে লভ স্টোরি দেখার জন্য মুখিয়ে সকলে। এই ধরনের ছবিতে আয়ুষ্মান ছাড়া আর কাউকে ভাবা যায় না। গে লভ স্টোরিতেও তিনি কামাল করবেন, তা বাজি রেখে বলা যায়। বাংলা ছবিও কিন্তু সমকামিতা দেখিয়ে এসেছে বহু দিন ধরে। ঋতুপর্ণ ঘোষের ছবি ‘চিত্রাঙ্গদা’, ‘মেমোরিস ইন মার্চ’, ‘আরেকটি প্রেমের গল্প’ সমকাম বোঝার মন তৈরি করে দেওয়ার মতো ছবি। ব্যক্তিগত জায়গা থেকে এই তিনটি ছবি তৈরি। ঋতুপর্ণ নিজেকে মেলে ধরেছিলেন। ‘নগরকীর্তন’-এ পুঁটি এবং মধুরের মধ্য়ে সমকামী সম্পর্ক দেখানো হয়।  ঋদ্ধি সেন এই ছবির জন্য জাতীয় পুরস্কার পান।  ঋত্বিক চক্রবর্তীও অতুলনীয়। এই সমকামী প্রেমের পরিণতি চোখে জল এনে দেয়। এমন প্রেমে বিশ্বাসী, অবিশ্বাসী সমস্ত দর্শকই চেয়েছিলেন পুঁটি-মধুর প্রেম পরিণতি পেলে কী এমন ক্ষতি হতো! হালফিলে মুক্তি পাওয়া ছবি ‘দ্বিতীয় পুরুষ’। ছবিটি সকলের দেখা হয়নি বলে পুরো ভাঙব না। তবে এই গল্পেও সমকামের ছোঁয়া রয়েছে। আপনার পছন্দ হতে পারে, না-ই বা হতে পারে তবে মুখ ফিরিয়ে নেবেন না। সমকাম সমপ্রেম প্রেমই তো।

First published: February 14, 2020, 2:24 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर