Home /News /entertainment /
Tarun Majumdar : তরুণ মজুমদারের পারলৌকিক ক্রিয়া সম্পন্ন দেবশ্রী রায়ের হাতে, উপস্থিত ‘শ্রীমান পৃথ্বীরাজ’-ও

Tarun Majumdar : তরুণ মজুমদারের পারলৌকিক ক্রিয়া সম্পন্ন দেবশ্রী রায়ের হাতে, উপস্থিত ‘শ্রীমান পৃথ্বীরাজ’-ও

তরুণ মজুমদারের পারলৌকিক ক্রিয়া সম্পন্ন করলেন দেবশ্রী রায়

তরুণ মজুমদারের পারলৌকিক ক্রিয়া সম্পন্ন করলেন দেবশ্রী রায়

Tarun Majumdar : সেই জুটিকে আবার পাশাপাশি দেখা গেল সেই সুতোর টানে, যে সুতো তাঁদের একসময় ছবির পর্দায় বেঁধে ছিল একসঙ্গে ৷

  • Share this:

    কলকাতা : ‘কুহেলী’-র ছোট্ট রাণু টেরও পায়নি তাকে ঘিরে কত বড় ষড়যন্ত্র পাক খেয়ে চলেছে৷ প্রাসাদের মতো বাড়িতে সে শুধু হাত ঘুরিয়ে নাচত ‘‘মেঘের কোলে রোদ হেসেছে, বাদল গেছে টুটি’’ গানের সঙ্গে ৷ ৯ বছর পর সেই ছোট্ট মেয়েই কিনা দুষ্টু মিষ্টি চোখে গাইছে ‘‘তোমার ডাকে সাড়া দিতে বয়েই গেছে৷’’ তখন অবশ্য তাঁর নাম দেবশ্রী৷ দিয়েছেন স্বয়ং ছবির পরিচালক তরুণ মজুমদার ৷ ‘চুমকি’ থেকে তিনি হয়েছিলেন ‘দেবশ্রী’৷

    শুধু নতুন নামই নয় ৷ কার্যত তাঁকে নতুন জন্ম, নতুন জীবন উপহার দিয়েছিলেন প্রয়াত পরিচালক ৷ জাতীয় পুরস্কারজয়ী অভিনেত্রী বার বার স্বীকার করেছেন তিনি ছিলেন এক তাল মাটির মতো ৷ তরুণ মজুমদার তাঁকে গড়ে পিটে নিয়েছেন৷ শুধু পরিচালক নয়, তিনি ছিলেন তাঁর শিক্ষাগুরু ৷ দেবশ্রী বলেন, তিনি যা কিছু করেছেন, যা কিছু শিখেছেন সবই তরুণ মজুমদারের জন্য ৷

    দেবশ্রীর পাশাপাশি তাঁর আরও দুই ‘আবিষ্কার’-এর নতুন নাম দিয়েছিলেন তরুণ মজুমদার ৷ ইন্দিরা হয়েছিলেন মৌসুমী চট্টোপাধ্যায়৷ শিপ্রা নাম হারিয়ে যায় মহুয়া রায়চৌধুরী পরিচয়ের আড়ালে ৷ মৌসুমী-মহুয়া-দেবশ্রীকে নিজের মেয়ে বলতেন ইন্ডাস্ট্রির তনুদা’৷ বলতেন, তাঁর ‘ছবির মেয়ে’-রাই পারলৌকিক ক্রিয়া সম্পন্ন করবেন ৷ কারণ তাঁর নিজের সন্তান নেই ৷ প্রয়াত পরিচালকের ইচ্ছে রক্ষা হল ৷ তাঁর ছায়াছবিকন্যা দেবশ্রী সম্পন্ন করলেন পারলৌকিক ক্রিয়া ৷

    আরও পড়ুন :  ‘আমি কোথায় দু’বার ভালবাসা কথাটা ব্যবহার করেছি? করেছেন স্বয়ং কবিগুরু রবীন্দ্রনাথ’

    শুক্রবার পূর্ণ দাস রোডে ডাকাত কালীবাড়িতে তরুণ মজুমদারের পারলৌকিক ক্রিয়া সম্পন্ন করলেন দেবশ্রী রায় ৷ অসুস্থতা নিয়েই নিজের পরম কর্তব্য পালন করেন তিনি ৷ প্রয়াত পরিচালকের পারলৌকিক ক্রিয়ায় এসেছিলেন অয়ন বন্দ্যোপাধ্যায়ও ৷ বাংলা ছায়াছবির দর্শকরা যাঁকে চেনেন ‘শ্রীমান পৃথ্বীরাজ’ নামে ৷ তরুণ মজুমদার পরিচালিত সুপারহিট ছবিটি মুক্তি পেয়েছিল ১৯৭৩ সালে ৷ আইকনিক এই ছবিতেই দর্শকদের সামনে আসেন অয়ন বন্দ্যোপাধ্যায় ৷ ছবির বাইরে তাঁর নাম পার্থসারথি ৷

    ছবি : ফেসবুক

    আরও পড়ুন :  বালিকা বধূ দেখেছেন ১৮ বার, তরুণ মজুমদার পরিচালিত মিষ্টি প্রেমের ছবি এখন বিরল, বললেন মিঠুন

    নায়িকাদের মতো নায়কের জন্যও নতুন নাম ছিল পরিচালকের ঝুলিতে ৷ ১৯৬৭ সালে মুক্তি পাওয়া তাঁর আর এক বক্স অফিসে চূড়ান্ত সফল ছবি ‘বালিকা বধূ’-র নায়কের নাম ছিল পার্থসারথি মুখোপাধ্যায়৷ তাই ‘শ্রীমান পৃথ্বীরাজ’-এর নায়কের নাম তরুণ মজুমদার রাখলেন ‘অয়ন৷’

    আরও পড়ুন :  তাঁর ছবিতে হাতেখড়ি শিশুশিল্পী হিসেবে, ‘তনুজেঠু’ তাঁর শিক্ষাগুরু, স্মৃতি-অর্ঘ্য প্রসেনজিতের

    পরবর্তীতে অভিনয়কে মূল পেশা হিসেবে গ্রহণ না করলেও আরও কিছু ছবিতে অভিনয় করেছিলেন অয়ন ৷ সেগুলির মধ্যে অন্যতম তরুণ মজুমদারের ‘দাদার কীর্তি’, ‘মেঘমুক্তি’, ‘পথ ও প্রাসাদ’ এবং ঋতুপর্ণ ঘোষের ‘হীরের আংটি’ ৷ তবে দর্শকদের কাছে তিনি এক ও অদ্বিতীয় শ্রীমান পৃথ্বীরাজ ৷

    ‘দাদার কীর্তি’ ছবিতে সন্তু এবং বীণার ভূমিকায় অয়ন বন্দ্যোপাধ্যায় ও দেবশ্রী রায়ের জুটি চূড়ান্ত জনপ্রিয় হয় ৷ সেই জুটিকে আবার পাশাপাশি দেখা গেল সেই সুতোর টানে, যে সুতো তাঁদের একসময় ছবির পর্দায় বেঁধে ছিল একসঙ্গে ৷

    Published by:Arpita Roy Chowdhury
    First published:

    Tags: Debashree Roy, Tarun Majumdar

    পরবর্তী খবর