Akshay Kumar: অক্ষয় কুমারের মা আইসিউ-তে! তড়িঘড়ি দেশে ফিরলেন অভিনেতা

Akshay Kumar: মুম্বইয়ের হাসপাতালের আইসিইউ-তে ভর্তি অক্ষয়ের মা। মায়ের অসুস্থতার খবর পেয়েই তাই দেশে ফেরার সিদ্ধান্ত নেন অক্ষয়।

Akshay Kumar: মুম্বইয়ের হাসপাতালের আইসিইউ-তে ভর্তি অক্ষয়ের মা। মায়ের অসুস্থতার খবর পেয়েই তাই দেশে ফেরার সিদ্ধান্ত নেন অক্ষয়।

  • Share this:

    #মুম্বই: অসুস্থ অভিনেতা অক্ষয় কুমারের (Akshay Kumar) মা অরুণা ভাটিয়া (Aruna Bhatia)। তাই সোমবার সকালে দ্রুত ইংল্যান্ড থেকে মুম্বইয়ের বাড়িতে ফিরলেন তিনি। অক্ষয় তাঁর আসন্ন ছবি 'সিন্ডরেলা' ছবির শ্যুটিং এর জন্য ইংল্যান্ডে রয়েছেন বিগত কয়েক সপ্তাহ ধরে। কিন্তু তাঁর মা অসুস্থ এবং মুম্বইয়ের হিরানন্দনি হাসপাতালে ভর্তি। তাই শীঘ্রই দেশে ফিরেছেন তিনি।

    আরও পড়ুন- "সিদ্ধার্থের মা একা, এমন ভুল ভাববেন না!" সোশ্যালে চরম অসন্তোষ প্রকাশ বিকাশ গুপ্তার

    সূত্রের খবর, মুম্বইয়ের হাসপাতালের আইসিইউ-তে ভর্তি অক্ষয়ের মা। মায়ের অসুস্থতার খবর পেয়েই তাই দেশে ফেরার সিদ্ধান্ত নেন অক্ষয়। অক্ষয়ের এক ঘনিষ্ঠ সূত্রের কথায়, অক্ষয় ওর মায়ের খুব কাছের। তাই তড়িঘড়ি ফিরেছে ও। তবে নিজে শ্যুটিং থেকে চলে এলেও ছবির প্রযোজককে শ্যুটিং চালিয়ে নিয়ে যেতে বলেছেন তিনি। অক্ষয় সব সময়ে বিশ্বাস করে যে, কাজ থেমে থাকা উচিত নয়। ব্যক্তিগত সমস্যা এলেও কাজ যেন থেমে না থাকে।"

    আরও পড়ুন- 'মানি হাইস্ট ৫'-এ অভিনয় করেছেন বিরাট কোহলি ও ববি দেওল? দর্শকদের অবাক দাবিতে নেটদুনিয়া সরগরম

    এই মুহূর্তে অক্ষয় কুমারের হাতে রয়েছে একগুচ্ছ ছবি সেগুলি নিয়ে তিনি খুবই ব্যস্ত রয়েছেন। তাঁর হাতে রয়েছে ৮টি ছবি ও ১টি ওয়েব সিরিজ। আটটি ছবির মধ্যে রয়েছে বেলবটম, সূর্যবংশী, আতরঙ্গি রে, পৃথ্বীরাজ, বচ্চন পাণ্ডে, রক্ষাবন্ধন, রাম সেতু, ওএমজি-ও মাই গড ২। আর ওয়েব সিরিজটি হল- দ্য এন্ড। গত বছরই মুক্তি পাওয়ার কথা ছিল অক্ষয় কুমারের সূর্যবংশী। এই ছবিতে রয়েছেন ক্যাটরিনা কাইফ ও রণবীর সিংও। কিন্তু করোনার জন্য গত বছর মুক্তি পায়নি এই ছবি। তাই এই ছবির জন্য অপেক্ষা করে রয়েছেন তাঁর অনুরাগীরা।  এছাড়াও তিনি আরও বেশ কয়েকটি ছবিতে কাজ করতে চলেছেন বলে কানাঘুষো খবর। এর মধ্যে একটি হল তামিল সাইকোলজিকাল থ্রিলার রাতসাসন এর রিমেক। এর হিন্দি ছবির নামই হল মিশন সিন্ডেরেলা যেটির জন্য ইংল্যান্ডে ছিলেন তিনি। ছবিতে রয়েছেন রকুল প্রীতও। পরিচালনা করছেন রঞ্জিত তিওয়ারি।

    Published by:Swaralipi Dasgupta
    First published: