Home /News /business /
Multibagger Stock: দু’মাসে ৪৪ থেকে বেড়ে ৫৩০ টাকা, ১০০০ শতাংশ রিটার্ন! আপনি কিনেছেন এই স্টক?

Multibagger Stock: দু’মাসে ৪৪ থেকে বেড়ে ৫৩০ টাকা, ১০০০ শতাংশ রিটার্ন! আপনি কিনেছেন এই স্টক?

Multibagger Stock: মাত্র ৫২ দিনে বিনিয়োগকারীদের বাম্পার রিটার্ন দিয়েছে এই মাল্টিব্যাগার স্টক।

  • Share this:

#নয়াদিল্লি: বলা হয় শেয়ার বাজারের গলিঘুঁজি বুঝতে পারলেই কোটি কোটি টাকা কামানো সম্ভব। তা যে সত্যি সেটাই আবার প্রমাণ করল এসইএল ম্যানুফ্যাকচারিং কোম্পানি লিমিটেডের স্টক। মাত্র ৫২ দিনে বিনিয়োগকারীদের বাম্পার রিটার্ন দিয়েছে এই মাল্টিব্যাগার স্টক।

গত বছর অর্থাৎ ২০২১ সালে বেশ কয়েকটি মাল্টিব্যাগার স্টক বাজারে ঝড় তুলেছিল। নতুন বছরে মাত্র ৩ মাস কেটেছে। তার মধ্যেই সাড়া ফেলে দিয়েছে এসইএল ম্যানুফ্যাকচারিং কোম্পানি লিমিটেডের স্টক। মাত্র ৫২ দিনে এই স্টকের দাম ৪৪ টাকা থেকে বেড়ে হয়েছে ৫৩০ টাকা। অর্থাৎ প্রায় ১০০০ শতাংশেরও বেশি রিটার্ন দিয়েছে বিনিয়োগকারীদের।

আরও পড়ুন: ক্রিপ্টোর দামে বড়সড় পতন, আপনার কাছে এই কয়েনগুলো নেই তো?

মাত্র ২ মাসে বিনিয়োগকারীদের লাখপতি বানিয়েছে এই স্টক। পরিসংখ্যানে চোখ বোলালে দেখা যাবে, চলতি বছরের ৩ জানুয়ারি এই শেয়ারের দাম ছিল ৪৪.৪০ টাকা। মাত্র ৫২ দিনে তা একলাফে বেড়ে হয়েছে ৫২৯.৫৫ টাকা। ২০২২ সালে এই স্টকটি এখনও পর্যন্ত বিনিয়োগকারীদের ১০৯২.৬৮ শতাংশ রিটার্ন দিয়েছে। আর্থাৎ এসইএল ম্যানুফ্যাকচারিং-এর স্টক এই বছরে ৫২টি ট্রেডিং সেশনে বিনিয়োগকারীদের ১০০০ শতাংশের বেশি লাভ দিয়েছে৷ কেউ যদি এই স্টকে ১ লক্ষ টাকা বিনিয়োগ করে থাকেন, তবে আজ তা বেড়ে ১১.৯২ লক্ষ টাকা হয়েছে।

আরও পড়ুন: স্টার্ট আপ বিনিয়োগকারীদের স্বস্তি, বড় আপডেট দিল কেন্দ্র, কী কী সুবিধা হবে!

আশ্চর্যজনক ব্যাপার হল, পাঁচ মাস আগে অর্থাৎ ২০২১ সালের ২৭ অক্টোবর এসইএল ম্যানুফ্যাকচারিং-এর স্টকের দাম নেমে যায় মাত্র ৩৫ পয়সায়। কিন্তু তারপর থেকেই ঘুরে দাঁড়াতে শুরু করে এই স্টক। আর পিছন ফিরে তাকাতে হয়নি। চলতি বছরের ১৫ মার্চ বন্ধ হওয়া ট্রেডিং সপ্তাহে স্টকটি পৌঁছয় ৪৮০.৩৫ টাকায়। অথচ এক মাস আগেই এই স্টকের দাম যাচ্ছিল ১৯৯.৯০ টাকা। যা এখন বেড়ে ৪৮০.৩৫ টাকা হয়েছে। পাঁচ মাস আগে যদি কোনও বিনিয়োগকারী এই স্টকে ১০ হাজার টাকা বিনিয়োগ করতেন, তাহলে আজ এর পরিমাণ বেড়ে ১.৩৭ কোটি টাকা হত।

আরও পড়ুন: ৩১ মার্চ থেকে চেকে আর টাকা দেওয়া যাবে না মিউচুয়াল ফান্ডে, কেন এই সিদ্ধান্ত?

তবে বিনিয়োগকারীদের সাবধান হওয়ার পরামর্শ দিচ্ছেন বিশেষজ্ঞরা। কারণ, কোম্পানির ৮ জন প্রোমোটার রয়েছে যাদের মোট শেয়ার ৭৫.২৭ শতাংশ। এছাড়াও, ১৬,৫২১ জন পাবলিক শেয়ারহোল্ডার কোম্পানিতে মোট ২৪.৭৩ শতাংশ শেয়ারে বিনিয়োগ করেছেন। চলতি অর্থবছরের তৃতীয় কোয়ার্টারে কোম্পানিটির ৪২,১৭৮টি শেয়ার বিদেশি বিনিয়োগকারীদের হাতে ছিল। তবে যেসব শেয়ারে পাবলিক শেয়ারহোল্ডারদের অংশীদারিত্ব কম সেসব শেয়ারে বিনিয়োগকারীদের খুব সাবধানে বিনিয়োগ করার পরামর্শ দিচ্ছেন বিশেষজ্ঞরা। কোম্পানিটি গত কয়েক বছর ধরে ক্রমাগত লোকসানে চলছে।

Published by:Dolon Chattopadhyay
First published:

Tags: Multibagger Stock

পরবর্তী খবর