Home /News /business /
HDFC ব্যাঙ্কের গ্রাহকদের জন্য বড় ধাক্কা! বাড়তে চলেছে ঋণের বোঝা

HDFC ব্যাঙ্কের গ্রাহকদের জন্য বড় ধাক্কা! বাড়তে চলেছে ঋণের বোঝা

এপ্রিল মাসেই লেন্ডিং রেট বাড়িয়ে দিয়েছিল ব্যাঙ্ক অফ বরোদা। ১০ পয়েন্ট লেন্ডিং রেট বাড়ায় স্টেট ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়াও।

  • Share this:

    #নয়াদিল্লি: এইচডিএফসি ব্যাঙ্কের ঋণ গ্রহীতাদের জন্য নতুন করে ঋণের বোঝা বাড়তে চলেছে। কারণ স্টেট ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়ার পথে হেটে এবার দেশের বৃহত্তম বেসরকারি ব্যাঙ্ক তাদের মারজিনাল কস্ট অফ লেন্ডিং রেট বাড়াচ্ছে। ব্যাঙ্ক সূত্রে খবর, ৩৫ বেসিস পয়েন্ট মারজিনাল কস্ট অফ লেন্ডিং রেট বাড়ানো হচ্ছে। অর্থাৎ এইচডিএফসি ব্যাঙ্ক থেকে বাড়ি গাড়ি কেনার ঋণ নিলে সুদের বোঝা বাড়বে। নতুন যারা ঋণ নেবেন তাদের জন্য তো বটেই যারা আগে ঋণ নিয়েছেন তাদেরও বেশি ইএমআই গুনতে হবে।

    আরও পড়ুন: চাহিদা আকাশছোঁয়া, কম বিনিয়োগেই লাভবান হতে শুরু করতে পারেন এই ব্যবসা!

    এপ্রিল মাসেই লেন্ডিং রেট বাড়িয়ে দিয়েছিল ব্যাঙ্ক অফ বরোদা। ১০ পয়েন্ট লেন্ডিং রেট বাড়ায় স্টেট ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়াও। মে মাসে আরবিআই-এর তরফ থেকে রেপো রেট ৪০ বিসিএস পয়েন্ট বাড়ানো হলে প্রথমবার এমসিএলআর বাড়ানোর সিদ্ধান্ত নেয় এইচডিএফসি ব্যাঙ্ক। মে নাগাদ ২৫ বেসিস পয়েন্ট এমসিএলআর বাড়িয়েছিল এইচডিএফসি ব্যাঙ্ক।

    উল্লেখ্য বেসিস পয়েন্ট মানে এক শতাংশের ১০০ ভাগের এক ভাগ। অন্যভাবে বললে ১০০ বেসিস পয়েন্ট মানে ১ শতাংশ। অর্থাৎ লোন ইএমআই-এর পরিমাণ বাড়তে পারে .৩৫ শতাংশ।

    আরও পড়ুন: পতনের সঙ্গে খুলল ভারতীয় শেয়ার বাজার, ১৬৫০০-র স্তরের নিচে নিফটি!

    এক রাতের ক্ষেত্রে: পুরনো রেট — ৭.১৫ শতাংশ; নতুন রেট — ৭.৫০ শতাংশ প্রতিমাসে

    একমাসের ক্ষেত্রে, যেখানে দিতে হত — ৭,২০ শতাংশ; এখন সেখানে দিতে হচ্ছে — ৭.৫৫ শতাংশ।

    তিনমাসের ক্ষেত্রে, যেখানে দিতে হত — ৭,২৫ শতাংশ; এখন সেখানে দিতে হচ্ছে — ৭.৬০ শতাংশ।

    ছয় মাসের ক্ষেত্রে, যেখানে দিতে হত — ৭,৩৫ শতাংশ; এখন সেখানে দিতে হচ্ছে — ৭.৭০ শতাংশ।

    এক বছরের ক্ষেত্রে, যেখানে দিতে হত — ৭,৫০ শতাংশ; এখন সেখানে দিতে হচ্ছে — ৭.৮৫ শতাংশ।

    দুই বছরের ক্ষেত্রে, যেখানে দিতে হত — ৭,৬০ শতাংশ; এখন সেখানে দিতে হচ্ছে — ৭.৯৫ শতাংশ।

    তিন বছরের ক্ষেত্রে, যেখানে দিতে হত — ৭,৭০ শতাংশ; এখন সেখানে দিতে হচ্ছে — ৮.০৫ শতাংশ।

    অর্থাৎ এইচডিএফসি ব্যাঙ্ক থেকে যেসব গ্রাহকরা ব্যক্তিগত ঋণ নিয়েছেন অথবা গাড়ি কেনার বা বাড়ি তৈরির জন্য ঋণ নিয়েছেন তাদের এবার বেশি ইএমআই গুনতে হবে। তবে রিসেট-এর তারিখ এলে তবেই ইএমআই সংশোধন করা হবে। এমসিএলআর-ভিত্তিক একটি লোন এর ক্ষেত্রে যদি অ্যামাউন্ট রিসেট করার তারিখ সেপ্টেম্বর ধার্য হয় তাহলে গ্রাহককে বেশি হারে ইএমআই দিতে হবে সেপ্টেম্বর থেকেই।

    আরও পড়ুন: আপনার অ্যাকাউন্টে এখনও আসেনি ১১তম কিস্তির টাকা ? জেনে নিন কেন...

    এইচডিএফসি ব্যাঙ্ক নিজেদের ওয়েবসাইটে জানিয়েছে, এমসিএলআর একটি ন্যূনতম সুদের হার যা প্রত্যেকটি আর্থিক প্রতিষ্ঠানকে এই একটি নির্দিষ্ট পরিমাণ ঋণ‌ের জন্য বরাদ্দ করতে হয়। এর মধ্যে দিয়ে সুদের হারের নিম্নসীমাকে চিহ্নিত করা যায়। রিজার্ভ ব্যাঙ্কের হস্তক্ষেপে অথবা কোন নির্দিষ্ট ব্যাংক স্বাধীনভাবে এই সীমা নির্ধারণ করতে পারে।

    Published by:Dolon Chattopadhyay
    First published:

    Tags: HDFC Bank, Lending rates, MCLR

    পরবর্তী খবর