Home /News /business /
Gold Prices: আরও বাড়তে পারে সোনার চাহিদা, দামে কেমন প্রভাব পড়বে? জেনে নিন!

Gold Prices: আরও বাড়তে পারে সোনার চাহিদা, দামে কেমন প্রভাব পড়বে? জেনে নিন!

Gold Prices: চলতি খাতে ঘাটতি বেড়েছে এবং মোট দেশজ উৎপাদন (জিডিপি) ৩ শতাংশে পৌঁছাবে বলে আশা করা হচ্ছে।

  • Share this:

#নয়াদিল্লি: ওয়ার্ল্ড গোল্ড কাউন্সিল (World Gold Council) অনুমান করেছে যে গত আর্থিক বছরে দাম বৃদ্ধি এবং রেকর্ড আমদানির কারণে স্বর্ণের জন্য ভোক্তাদের চাহিদা হ্রাস পেতে পারে। ওয়ার্ল্ড গোল্ড কাউন্সিলের (WGC) এই অনুমানের মধ্যেই একটি বিদেশি ব্রোকারেজ ফার্মের একটি রিপোর্টে বলা হয়েছে যে ক্রমবর্ধমান মুদ্রাস্ফীতির কারণে পরিবারের ‘হেজিং’-এর জন্য সোনার চাহিদা বাড়তে পারে। এমন পরিস্থিতিতে সোনার চাহিদা বৃদ্ধি পাওয়ার সম্ভাবনা বেশি রয়েছে। ঝুঁকির বিরুদ্ধে সুরক্ষার জন্য করা একটি বিনিয়োগকে হেজিং বলা হয়।

আরও পড়ুন: কেন্দ্রীয় সরকারি কর্মীদের জন্য বড় খবর! 8th Pay Commission বিষয়ে বিরাট আপডেট!

গত মাসের সরকারি তথ্যে দেখা গিয়েছে ২০২১ - ২২ আর্থিক বর্ষে সোনা আমদানি ৩৩.৩৪ শতাংশ বেড়ে ৮৩৭ টন বা ৪৬.১৫ বিলিয়ন ডলার হয়েছে যা ২০২০-২১ আর্থিক বর্ষে অতিমারীর কারণে নিম্নমানের চেয়ে ১.৫ গুণ বেশি এবং প্রাক-করোনাকালীন ২০১৬ - ২০ আর্থিক বর্ষের তুলনায় ১২ শতাংশ বেশি। এই কারণে চলতি খাতে ঘাটতি বেড়েছে এবং মোট দেশজ উৎপাদন (জিডিপি) ৩ শতাংশে পৌঁছাবে বলে আশা করা হচ্ছে।

আরও পড়ুন: ১ মাসে পাওয়া যেতে পারে ভালো রিটার্ন, দেখে নিন এক ঝলকে!

মহামারী দ্বারা প্রভাবিত ২০২০ - ২১ অর্থবছরে আমদানি ছিল মাত্র ৩৪.৬২ বিলিয়ন ডলার। ২০১২ - ১৩ আর্থিক বর্ষের রেকর্ড ৫৪ বিলিয়ন ডলার আমদানি করার পরে ভারতে সোনার আমদানি কমছে এবং ২০১৯ - ২০ আর্থিক বছরে তা কমে ২৮ বিলিয়ন ডলার হয়ে যায়। কিন্তু তারপরে আমদানি আবার বাড়তে শুরু করে এবং ২০২০ - ২১ অর্থবছরে ২৫ বিলিয়ন ডলার এবং ২০২১ - ২২ অর্থবছরে ৪৬ বিলিয়ন ডলারের বেশি হয়ে যায়।

আরও পড়ুন: Earn Money! SBI-এর দুরন্ত অফার! এই কাগজপত্র থাকলেই প্রতি মাসে ৬০ হাজার টাকা

ইউবিএস সিকিউরিটিজ ইন্ডিয়ার (UBS Securities India) তরফ থেকে সোমবার প্রকাশ করা রিপোর্ট অনুসারে, ২০২২ - ২৩ আর্থিক বর্ষে সোনার আমদানি সামান্য হ্রাস পেয়ে ৪৩ বিলিয়ন ডলার হবে বলে আশা করা হচ্ছে। ২০২১ - ২২ অর্থবছরে আমদানি বৃদ্ধির কারণে বাণিজ্য ঘাটতি ১৯২.৪১ বিলিয়ন ডলার হয় যেখানে আগের অর্থবছরে ১০২.৬২ বিলিয়ন ডলার ছিল। চিনের পর ভারত বিশ্বের দ্বিতীয় বৃহত্তম সোনার গ্রাহক দেশ। এখানে আমদানি মূলত জুয়েলারি শিল্প দ্বারা চালিত হয়। ২০২১ - ২২ সালে রত্ন ও গহনা রপ্তানি ৫০ শতাংশ বেড়ে প্রায় ৩৯ বিলিয়ন ডলার হয়েছে। ভারতীয় রিজার্ভ ব্যাঙ্কের (Reserve Bank of India) তথ্য অনুযায়ী, প্রথম ত্রৈমাসিকে চলতি অ্যাকাউন্টের ঘাটতি বেড়ে ২৩ বিলিয়ন ডলার বা জিডিপির ২.৭ শতাংশে পৌঁছেছে।

Published by:Dolon Chattopadhyay
First published:

Tags: Gold Investment, Gold Price

পরবর্তী খবর