• Home
  • »
  • News
  • »
  • business
  • »
  • Bitcoin: বিটকয়েন দিয়েছে ফাটাফাটি রিটার্ন, ১০০০ টাকার বিনিয়োগ হয়েছে ৭৬ কোটির বেশি

Bitcoin: বিটকয়েন দিয়েছে ফাটাফাটি রিটার্ন, ১০০০ টাকার বিনিয়োগ হয়েছে ৭৬ কোটির বেশি

প্রচীকী ছবি৷

প্রচীকী ছবি৷

১৩ বছর বয়সেই ক্রিপ্টোকারেন্সি বিটকয়েন দিয়েছে ফাটাফাটি রিটার্ন (Bitcoin)।

  • Share this:

#নয়াদিল্লি: ক্রিপ্টোকারেন্সি (Cryptocurrency) বিটকয়েনের (Bitcoin) বয়স প্রায় ১৩ বছর হয়ে গিয়েছে। কিশোর অবস্থায় প্রবেশ করা প্রথম ক্রিপ্টোকারেন্সি হল বিটকয়েন। বলা হয় যে বিটকয়েনের শ্বেতপত্র (Whitepaper Of Bitcoin) প্রথম জারি করা হয়েছিল ২০০৮ সালের ২৮ অক্টোবর।

সাতাশি নাকামোতো (Satoshi Nakamoto) প্রথম এটি জারি করেছিলেন। কিন্তু অনেকেই মনে করেন বিটকয়েন প্রথম জারি করা হয়েছিল ২০০৯ সালের ৩ জানুয়ারি। সেই হিসাবে ৩ জানুয়ারি বিটকয়েনের জন্মদিন বলে মনে করা হয়। সুতরাং ২০০৯ সালের ৩ জানুয়ারি থেকে হিসাব করলে বিটকয়েনের বয়স এখন ১৩ বছর। এই ১৩ বছর বয়সেই ক্রিপ্টোকারেন্সি বিটকয়েন করেছে ধামাকা। এই ১৩ বছর বয়সেই ক্রিপ্টোকারেন্সি বিটকয়েন দিয়েছে ফাটাফাটি রিটার্ন।

আরও পড়ুন: ২০২২-এর ৩১ মার্চের মধ্যে প্যান ও আধার লিঙ্ক জরুরি; না হলে কী হবে জানুন

মাডরেক্সের (Mudrex) সিইও ও সহ-সংস্থাপক এডুল পাটেল (Edul Patel) জানিয়েছেন যে পুরো বিশ্ব জুড়ে ক্রিপ্টোকারেন্সি এবং ব্লকচেনের উদয়ের পেছনে ফাউন্ডেশন পিলার হিসাবে কাজ করেছে বিটকয়েন। বিটকয়েনের এই ১৩ বছরের জার্নি একটি রোলার-কোস্টার রাইডের মতো। কিন্তু এর মধ্যেও ক্রিপ্টোকারেন্সি বিটকয়েন দিয়েছে ফাটাফাটি রিটার্ন। এমন ফাটাফাটি রিটার্ন অন্য কোনও অ্যাসেট এখনও দিতে পারেনি।

অস্তিত্বের লড়াই লড়ছে কারেন্সি

আইটিএসব্লকচেনের (Itsblockchain) ফাউন্ডার হিতেশ মালব্য জানিয়েছেন যে, ১৩ বছরের সফরে অনেকবার বিটকয়েনের মৃত্যু হয়েছে, আবার অনেকবার বিটকয়েনের জন্ম হয়েছে। বিটকয়েন এখনও তার অস্তিত্বের লড়াই লড়ছে। বিগত ২ বছরে বিটকয়েনে বিনিয়োগ করার মধ্যে অনেক পরিবর্তন ঘটেছে।

আরও পড়ুন: একটি টাকাও বিনিয়োগ নয়! সরকারের সঙ্গে ব্যবসায় মাসে লক্ষ লক্ষ টাকা আয়ের সেরা সুযোগ!

অতীতে ক্রিপ্টোকারেন্সির বাজারে অনিশ্চয়তা এবং বিভিন্ন ধরনের ক্রিপ্টোকারেন্সি থাকার ফলে বিটকয়েনে বিনিয়োগের পরিমাণ অনেকটাই কমে গিয়েছে।

বিটকয়েনের রিটার্নের ইতিহাস

যখন বিটকয়েনের শুরু হয়েছিল, তখন থেকে এর রিটার্ন ক্যাল্কুলেট করা সম্ভব নয়। কারণ যখন বিটকয়েন প্রথম বাজারে এসেছিল তখন তার মুল্য ছিল জিরো। ২০১০ সালে এর দাম বেড়ে হয়েছে ০.০৯ ডলার। ২০২১ সালের নভেম্বর মাসে বিটকয়েনের দাম পৌঁছে যায় উচ্চ সীমায়। ২০২১ সালের নভেম্বর মাসে বিটকয়েনের দাম বেড়ে হয় ৬৮,৭৯০ ডলার।

বিটকয়েন ১৩ বছর ধরে বেশ ভালো রিটার্ন দিয়েছে। ক্রিপ্টোকারেন্সির অন্যান্য প্রোডাক্টের মধ্যে এই বিটকয়েন ১৩ বছর বয়সেই ফাটাফাটি রিটার্ন দিতে সক্ষম হয়েছে। ১৩ বছর ধরে বিভিন্ন ওঠানামা লেগে থাকলেও বিটকয়েন উচ্চসীমায় পৌছাতে সক্ষম হয়েছে। কেউ যদি বিটকয়েনে ১০০০ টাকা বিনিয়োগ করে থাকে তাহলে সে রিটার্ন পাবে প্রায় ৭৬.৪৩ কোটি টাকা। এর থেকেই পরিষ্কার যে বিটকয়েন বিনিয়োগকারীদের দিয়েছে ফাটাফাটি রিটার্ন।

Published by:Debamoy Ghosh
First published: