পেনশনভোগীদের জন্য অ্যালার্ট! ট্রেজারি থেকে ফোন এলে করতে হবে এই কাজ

Cyber Fraud Alert: বেশ কিছু পদ্ধতি সামনে এসেছে যার মাধ্যমে সাইবার অপরাধীরা গ্রাহকদের ঠকাচ্ছেন ৷

Cyber Fraud Alert: বেশ কিছু পদ্ধতি সামনে এসেছে যার মাধ্যমে সাইবার অপরাধীরা গ্রাহকদের ঠকাচ্ছেন ৷

  • Share this:

    #নয়াদিল্লি: সরকারি পেনশনভোগীদের জন্য গুরুত্বপূর্ণ খবর ৷ দেশের পেনশনভোগীরা বর্তমানে সাইবার অপরাধীদের টার্গেটে রয়েছেন ৷ গত কয়েক মাসে পেনশনভোগীদের সঙ্গে প্রতারনার একাধিক ঘটনা সামনে এসেছে ৷ সাইবার অপরাধীরা এমন সময় এবং পদ্ধতি ব্যবহার করছেন যে অ্যাকাউন্ট হোল্ডাররা বোঝার আগেই তাদের অ্যাকাউন্ট খালি হয়ে যাচ্ছে ৷ জানা গিয়েছে, এরকম বেশ কয়েকজন রয়েছে যাঁদের প্রায় ১০ থেকে ১৫ লক্ষ টাকার লোকসান হয়েছে ৷ সাধারন মানুষকে  ফ্রডের হাত থেকে বাঁচানোর জন্য News18Hindi-এর তরফে গ্রাহকদের সচেতন করার জন্য একটি সিরিজ চালানো হয়েছে ৷ বেশ কিছু পদ্ধতি সামনে এসেছে যার মাধ্যমে সাইবার অপরাধীরা গ্রাহকদের ঠকাচ্ছেন ৷

    আরও পড়ুন: https://bengali.news18.com/news/business/bank-of-baroda-launches-bob-world-to-provide-banking-services-under-one-roof-dc-655712.html

    বেঁচে থাকার প্রমান পত্র দিতে হবে -

    দেখা গিয়েছে, সাইবার অপরাধীরা প্রথমে টার্গেট সিলেক্ট করে তাদের ফোন করেছেন ৷ ফোনে বলা হয় আপনি যদি আপনার পেনশন জারি রাখতে চান তাহলে নিজের জীবিত হওয়ার প্রমান পত্র জমা দিতে হবে ৷ তারপর বলা হয় অনলাইনেও লাইফ সার্টিফিকেট জমা দিতে পারবেন ৷ এই ভাবে কথা বলতে বলতে ব্যাঙ্কের ডিটেল নেওয়ার চেষ্টা করা হয় ৷ ভুল করে কেউ ব্যাঙ্কের ডিটেল দিয়ে দিলে কয়েক মুহূর্তের মধ্যে অ্যাকাউন্ট থেকে খালি হয়ে যায় সমস্ত টাকা ৷

    আরও পড়ুন: https://bengali.news18.com/news/business/start-this-food-related-business-and-earn-lacs-and-lacs-of-rupees-dc-655746.html

    প্রতারকদের জালে পুলিশকর্মী-

    চলতি বছরের জুন মাসে কানপুরের কল্যাণপুরের বাসিন্দা রামকুমার শুক্লার ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট থেকে উধাও হয়ে গিয়েছে ৬ লক্ষ টাকা ৷ অন্যদিকে, অবসরপ্রাপ্ত পুলিশকর্মী রাজেশ কুমারের অ্যাকাউন্ট থেকে ১০ লক্ষ টাকা তুলে নেওয়া হয়েছে ৷ অগাস্ট ২০২১ সাইবার ফ্রডরা উত্তরপ্রদেশের অবসরপ্রাপ্ত পুলিশকর্মী রামসেবক ১৫ লক্ষ ৯০ হাজার টাকা খুইয়েছেন ৷

    সন্ধে বা রাতের দিকে সাধারনত এই ফোন কল করা হয় -

    সাধারনত প্রতারকরা সন্ধে বা রাতের দিকে ফোন করে থাকে ৷ এর মূল উদ্দেশ্য হচ্ছে সেই সময় ব্যাঙ্কে গিয়ে অ্যাকাউন্ট ফ্রিজ করা সম্ভব নয় ৷ যাঁরা অবসরপ্রাপ্ত তাঁদের মধ্যে বেশিরভাগ জন খুব এখটা টেক সেভি নয় যে ইন্টারনেট ব্যাঙ্কিংয়ের মাধ্যমে ট্রানজাকশন আটকে দেবে ৷ ফলে এই সময়টাই বেছে নিয়েছে সাইবার অপরাধীরা ৷

    আরও পড়ুন: https://bengali.news18.com/news/business/you-can-get-up-to-4-lac-rupees-benefits-if-you-have-airtel-prepaid-sim-dc-655866.html

    সাইবার ফ্রডস্টাররা প্রতিদিন নতুন নতুন পদ্ধতি ব্যবহার করে মানুষদের টাকা লুট করছে ৷ ফলে সকলকেই টাকা পয়সার বিষয়ে সব সময়েই সতর্ক থাকতে হবে ৷ আপনাকে যদি কেউ ফোন করে বলে যে ট্রেজারি থেকে ফোন করছি তাহলে ভুলেও সেটা বিশ্বাস করবেন না ৷ এরকম ফোন এলে নিজে ট্রেজারিতে গিয়ে খোঁজ নিন ৷ কাউকে কখনও ভুলেও ব্যাঙ্ক সংক্রান্ত কোনও তথ্য দেবেন না ৷ সাইবার ফ্রডের শিকার হয়ে থাকলে 115260 নম্বরে ফোন ডায়েল করে অভিযোগ জানাতে পারবেন ৷ এর পাশাপাশি সাইবার ক্রাইমের ওয়েবসাইটে গিয়ে অভিযোগ জানাতে পারবেন ৷ সব সময় মনে রাখবেন ব্যাঙ্কের কর্মীরা কখনও আপনাকে ফোন করে অ্যাকাউন্টের বা কার্ডের ডিটেল চাইবেন না ৷

    Published by:Dolon Chattopadhyay
    First published: