Home /News /birbhum /
Birbhum: মহঃবাজারেও হানা ইডি আধিকারিকদের, শেষমেষ কি এল হাতে!

Birbhum: মহঃবাজারেও হানা ইডি আধিকারিকদের, শেষমেষ কি এল হাতে!

title=

শিক্ষক নিয়োগ দুর্নীতি মামলায় ইডি কলকাতায় হানা দিয়ে এবার নজর রেখেছে বীরভূমের দিকে। জানা যাচ্ছে, মঙ্গলবার রাতেই ইডির আটটির বেশি টিম বীরভূমে পা রাখে।

  • Share this:

    #বীরভূম : শিক্ষক নিয়োগ দুর্নীতি মামলায় ইডি কলকাতায় হানা দিয়ে এবার নজর রেখেছে বীরভূমের দিকে। জানা যাচ্ছে, মঙ্গলবার রাতেই ইডির আটটির বেশি টিম বীরভূমে পা রাখে। কেন্দ্রীয় বাহিনীর নিরাপত্তা বেষ্টনীতে এই কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থার আধিকারিকরা বুধবার সকাল থেকে তল্লাশি শুরু করেন জেলার আনাচে-কানাচে। প্রথমেই বোলপুর, তারপর নানুর, সিউড়ি, এমনকি শেষমেশ কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থার আধিকারিকদের হানা দিতে দেখা যায় মহম্মদ বাজার ব্লকে। এই এলাকায় এদিন ইডি আধিকারিকদের তিনটি টিম পৌঁছায়। প্রথম একটি টিম সকাল সাড়ে নটা নাগাদ পৌঁছে যায় মহম্মদ বাজার ব্লকের রায়পুর এলাকায় থাকা টুলু মন্ডলের পেট্রোল পাম্পে। সেখানে প্রায় পাঁচ ঘন্টা ধরে তল্লাশি চালানোর পর দুপুর দুটো পনের নাগাদ টিমটি বেরিয়ে যায়। একইভাবে অন্য একটি টিম সকাল সাড়ে নটা নাগাদ পৌঁছে যায় সোঁতসাল ‌‌‌‌এলাকায় থাকা টুলু মন্ডলের ডিসিআর অফিসে। সেখানে বৈকাল সাড়ে পাঁচটা পর্যন্ত তল্লাশি চালান সিবিআই আধিকারিকরা।

    এরই মধ্যে সিউড়ি থেকে আরেকটি কেন্দ্রীয় তদন্তকারীর সংস্থার টিম এসে পৌঁছায় পাঁচামি এলাকায়। সেখানে টুলু মন্ডলের যে সকল খাদান এবং ক্রাশার রয়েছে সেই সকল এলাকা ঘুরে দেখেন আধিকারিকরা এবং সেখানকার অফিসগুলিতে তারা হানা দিয়ে সিউড়ি তল্লাশি চালান। বিকাল চারটে নাগাদ এই এলাকা থেকে তারা বের হন।

    আরও পড়ুনঃ বিনামূল্যে মেয়েদের ক্যারাটে প্রশিক্ষণ দিয়ে নজির পুলিশকর্মীর

    অন্যদিকে রায়পুর পেট্রোল পাম্প থেকে বেরিয়ে আসা আধিকারিকদের টিমটি পৌঁছে যায় রামপুরহাট এলাকার সালবাদরা পাথর খাদান ও ক্রাশার এলাকায়। সেখানেও বেশ কিছুক্ষণ ধরে তল্লাশি চালানোর পর আধিকারিকদের টিম এলাকা ছাড়ে। একের পর এক জায়গায় এইভাবে হানা দেওয়ার পরিপ্রেক্ষিতে সকাল থেকেই টানটান উত্তেজনা মহম্মদবাজার এলাকায়।

    আরও পড়ুনঃ প্রায় ১১ ঘন্টা, বীরভূম তোলপাড় করে ফেলল ইডি! তাহলে কি এখানেও? প্রবল গুঞ্জন

    তবে এই সকল চার চারটি জায়গায় হানা দিয়ে আধিকারিকদের হাতে কি এসেছে তা সম্পর্কে তারা কিছু জানাননি। তবে সত্তর মারফত জানা যাচ্ছে সেখানে বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ কাগজপত্র খতিয়ে দেখার পাশাপাশি বেশি নথি তারা সংগ্রহ করে নিয়ে গেছেন। এখন সেই সকল নথিতে কি রয়েছে তাই এখন প্রশ্নের।

    Madhab Das
    Published by:Soumabrata Ghosh
    First published:

    Tags: Birbhum

    পরবর্তী খবর