Home /News /birbhum /
Birbhum News: প্রায় ১১ ঘন্টা, বীরভূম তোলপাড় করে ফেলল ইডি! তাহলে কি এখানেও? প্রবল গুঞ্জন

Birbhum News: প্রায় ১১ ঘন্টা, বীরভূম তোলপাড় করে ফেলল ইডি! তাহলে কি এখানেও? প্রবল গুঞ্জন

টানা [object Object]

Birbhum News: কলকাতার পর বুধবার প্রথম সরগরম হয়ে ওঠে বীরভূম।

  • Share this:

    #বীরভূম: বুধবার সকাল হতেই টানটান উত্তেজনা শুরু হয় বীরভূমের সদর শহর সিউড়িতে। সকাল ঠিক সাড়ে আটটা নাগাদ কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থার তিন থেকে চারটি টিম হাজির হয় শহরে। এরপরেই তাদের আলাদা আলাদাভাবে বিভিন্ন জায়গায় ছড়িয়ে যেতে দেখা যায়। কলকাতার পর বুধবার প্রথম সরগরম হয়ে ওঠে বীরভূম। শিক্ষক নিয়োগ দুর্নীতি মামলায় তদন্তে নেমে ইডি প্রাক্তন মন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায় ঘনিষ্ঠ অর্পিতা মুখোপাধ্যায়ের দুটি ফ্ল্যাট থেকে প্রায় ৫০ কোটি টাকা উদ্ধার করার পর সিউড়িতে কেন্দ্রীয় এই তদন্তকারী সংস্থার আধিকারিকরা হানা দিতেই শহরবাসীর মধ্যে কৌতূহল শুরু হয় তাহলে কি এখানেও! বুধবার কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থার আধিকারিকরা সিউড়িতে এসে প্রথমেই সকাল সাড়ে আটটা নাগাদ হানা দেন পাথর ব্যবসায়ী টুলু মন্ডলের রবীন্দ্রপল্লীর রাজপ্রসাদ সমান ডালিলা বাড়িতে। সেখানে আধিকারিকদের একটি টিম প্রবেশ করে তল্লাশি চালানোর পাশাপাশি একটি টিম চলে যায় সাজানো পল্লীতে। সেখানেও রয়েছে এই প্রভাবশালী পাথর ব্যবসায়ীর একটি বাড়ি। এর পাশাপাশি ইডির আরেকটি টিম চলে যায় সিউড়ির পাইকপাড়া। সেখানেও এই ব্যবসায়ীর আরেকটি বাড়িতে হানা দেন তারা।

    আরও পড়ুন: আরও ফ্ল্যাটের হদিশ মিলবে পার্থ-অর্পিতার? আরও কোটি-কোটি টাকা? অর্পিতাকে ঘিরে ধরছে ইডি

    প্রথম দফায় ঘন্টা চারেক তল্লাশি চালানোর পর পাইকপাড়ার বাড়ি থেকে বেরিয়ে যান আধিকারিকরা। তবে লাগাতার তল্লাশি চলতে থাকে রবীন্দ্রপল্লীর ডালিলা এবং সাজানো পল্লীর বাড়িতে। সাজানো পল্লীর বাড়ি থেকে ইডি আধিকারিকরা বের হন ঠিক সন্ধ্যা সাতটা নাগাদ। এখানে প্রায়ই সাড়ে ১০ ঘণ্টা ধরে তল্লাশি চালান আধিকারিকরা। এরপর রবীন্দ্রপল্লীর ডালিলা বাড়ি থেকে আধিকারিকদের বের হতে দেখা যায় সাতটা পনের নাগাদ।

    আরও পড়ুন: করতেন রান্নার কাজ, হঠাৎ বড় সরকারি চাকরি! অর্পিতার ষষ্ঠ শ্রেণি পাশ বোনের কথা জানলে আকাশ থেকে পড়বেন

    দীর্ঘ কয়েক ঘন্টা ধরে এইভাবে তল্লাশি চালানোর পরিপ্রেক্ষিতে স্বাভাবিকভাবেই শহরের বাসিন্দাদের মধ্যে চরম কৌতূহল তৈরি হয়। সবার মনেই একটি প্রশ্ন জাগতে শুরু করে তাহলে কি এখানেও! যদিও এই দুটি বাড়ি থেকে ঠিক কি পেয়েছেন কেন্দ্রীয় এই তদন্তকারী সংস্থার আধিকারিকরা তা নিয়ে তাদের বারংবার প্রশ্ন করা হলে কোন উত্তর দেননি। মুখে কুলুপ এঁটে তারা তাদের গাড়িতে চড়ে বোলপুরের দিকে রওনা দেন। তবে বের হওয়ার সময় তাদের হাতে ছিল বেশ কিছু নথিপত্র এবং একটি মোবাইল। সূত্র মারফর জানা যাচ্ছে এই দুটি বাড়ি থেকে বেশ কিছু গুরুত্বপূর্ণ নথি তাদের হাতে এসেছে এবং তারা একটি মোবাইল সিজ করেছেন। --মাধব দাস

    First published:

    Tags: ED, Partha Chatterjee Arrest, SSC Scam

    পরবর্তী খবর