Home /News /astrology /
Gemstones: বিবাহে বিলম্ব? কার কোন গ্রহরত্ন ধারণ করলে মিলবে সুরাহা, বলছেন জ্যোতিষবিশারদ

Gemstones: বিবাহে বিলম্ব? কার কোন গ্রহরত্ন ধারণ করলে মিলবে সুরাহা, বলছেন জ্যোতিষবিশারদ

বিবাহে বিলম্ব? কার কোন গ্রহরত্ন ধারণ করলে মিলবে সুরাহা, বলছেন জ্যোতিষবিশারদ

বিবাহে বিলম্ব? কার কোন গ্রহরত্ন ধারণ করলে মিলবে সুরাহা, বলছেন জ্যোতিষবিশারদ

Gemstones for Marriage: জ্যোতিষবিদদের মতে, বিবাহে কোনও বাধা-বিপত্তি এলে অথবা বিয়ে না-হলে গ্রহরত্ন কাজে আসে। সেক্ষেত্রে রাশিচক্র অনুযায়ী গণনা করে জ্যোতিষীদের পরামর্শ মেনে তবেই গ্রহরত্ন ধারণ করতে হবে।

  • Share this:

#নয়াদিল্লি: অনেক সময় জীবনের নানা রকম সমস্যায় আমরা জ্যোতিষশাস্ত্রের (Astrology) উপরেই ভরসা করে থাকি। আর জ্যোতিষবিদ বা জ্যোতিষীরা (Astrologers) সেই সব সমাধানের পথ বাতলে দেন এবং সাধারণত নানা গ্রহরত্ন ধারণ করার পরামর্শ দিয়ে থাকেন। সাধারণত রাশিচক্র, দশা, সমস্যা এবং লগ্ন- এই সব বিষয়ের উপর ভিত্তি করে দুর্বল গ্রহগুলিকে শক্তিশালী করে তোলার জন্য গ্রহরত্ন পরার নিদান দেন তাঁরা। বিশেষজ্ঞদের অভিমত, জন্মকোষ্ঠীর পঞ্চম এবং নবম কক্ষাধিপতি দেবতাদের তুষ্ট রাখতে গ্রহরত্ন (Gemstones) ধারণ করা হয়।

যদিও বিশেষজ্ঞরা বলেন যে, খাঁটি গ্রহরত্নের সঙ্গে নকল গ্রহরত্নের ফারাক করা খুবই মুশকিল। ধরে নেওয়া যাক, কোনও ব্যক্তি একটা গ্রহরত্ন ধারণ করেছেন। আর সেই গ্রহরত্নটা যদি তাঁর ভাগ্য ফেরাতে পারে, তবেই সেটাকে খাঁটি বলে গণ্য করা হবে। তাই এক্ষেত্রে বিশেষজ্ঞদের পরামর্শ, কোনও ভাল সার্টিফায়েড জায়গা থেকেই গ্রহরত্ন কেনা উচিত। আর সেই সঙ্গে এটা কেনার সঠিক রশিদও রাখতে হবে। শুধু তা-ই নয়, ওই গ্রহরত্ন ধারণেরও নির্দিষ্ট কিছু নিয়ম রয়েছে। যে গ্রহরত্ন ধারণ করা হচ্ছে, তার নির্দিষ্ট নির্ধারিত দিনে নির্দিষ্ট আঙুলে তা পরতে হবে। তবে তার আগে হাত ও আঙুলের শুদ্ধিকরণ জরুরি।

আরও পড়ুন-যৌবন ধরে রাখার রহস্যের চাবিকাঠি, প্রতিদিন এক গ্লাস করে নিজের মাসদুয়েকের মূত্র পান করছেন যুবক!

জ্যোতিষবিদদের মতে, বিবাহে কোনও বাধা-বিপত্তি এলে অথবা বিয়ে না-হলে গ্রহরত্ন কাজে আসে। সেক্ষেত্রে রাশিচক্র অনুযায়ী গণনা করে জ্যোতিষীদের পরামর্শ মেনে তবেই গ্রহরত্ন ধারণ করতে হবে। তাই যাঁদের বিয়ের যোগ তৈরি হচ্ছে না, অথবা দেরি হচ্ছে, তাঁদের উচিত কোনও ভাল জ্যোতিষীকে দিয়ে গণনা করিয়ে গ্রহরত্ন ধারণ করা। আর তা ধারণ করার আগে ওই গ্রহরত্ন খাঁটি কি না, সেটা অবশ্যই ওই জ্যোতিষীকে দিয়ে যাচাই করিয়ে নিতে হবে। এমনটাই মত বিশেষজ্ঞদের।

সেই সঙ্গে তাঁরা গ্রহরত্ন সনাক্ত করার পদ্ধতিও বাতলে দিয়েছেন। গ্রহরত্নের মূল্য নির্ভর করে এর ধরনের উপর। স্বচ্ছতা, ঔজ্জ্বল্য এবং খাঁটি রঙের মাধ্যমেই এর মূল্য নির্ধারিত হবে। নির্দিষ্ট গ্রহের ধাতুর সঙ্গেই ওই গ্রহরত্ন ধারণ করা উচিত। তবে আজকাল বহু সিন্থেটিক গ্রহরত্ন (Synthetic Gemstones) বাজারে এসেছে। রাসায়নিক এবং তাপ ব্যবহার করে এই ধরনের গ্রহরত্নে ঔজ্জ্বল্য আনা হয়। যাতে সেগুলি একেবারে খাঁটি পাথরের মতোই দেখায়। বিশেষ করে এটা করা হয় পোখরাজের (Topaz) ক্ষেত্রে।

আরও পড়ুন- ঠোঁট দেখছেন না মোরগ? আগে যা নজরে পড়বে, তা-ই বলবে আপনি লাজুক না খোলামেলা

জ্যোতিষবিদ বিডি শ্রীবাস্তব (BD Srivastava) জানিয়েছেন, আজকাল বহু জায়গায় জারকন (Zircon)-কে হিরে বলে বাজারে চালানো হচ্ছে। শুধু তা-ই নয়, নীলি (Neeli) নামের এক পাথরকে নীলা বলে চালিয়ে দেওয়া হচ্ছে। তাঁর মতে, গ্রহ যেমন প্রাকৃতিক, ঠিক তেমনই গ্রহরত্নও প্রাকৃতিক হওয়া উচিত। আর গ্রহের অবস্থান অনুসারে গ্রহরত্ন ধারণ করা উচিত এবং এর উপকার পাওয়ার জন্য তা সময়ে সময়ে পরিবর্তন করতে হবে।

এবার আসা যাক সাত ধরনের প্রধান গ্রহরত্নের কথায়। এর মধ্যে উল্লেখযোগ্য- চুনি (Ruby), মুক্তো (Pearl), প্রবাল (Coral), পান্না (Emerald), হিরে (Diamond) এবং নীলা (Sapphire)।

মেষ (Aries) এবং বৃশ্চিক (Scorpio) রাশির অধিপতি হল মঙ্গল গ্রহ (Mars)। আর এই রাশির জাতক-জাতিকাদের গ্রহরত্ন হল প্রবাল।

বৃষ (Taurus) এবং তুলা (Libra) রাশির অধিপতি হল শুক্র গ্রহ (Venus)। আর তাই এই রাশির জাতক-জাতিকাদের গ্রহরত্ন হিরে।

মিথুন (Gemini) এবং কন্যা (Virgo) রাশির উপর অধিষ্ঠান করছে বুধ গ্রহ (Mercury), ফলে এই রাশির জাতক-জাতিকাদের গ্রহরত্ন হচ্ছে পান্না।

ধনু (Sagittarius) এবং মীন (Pisces) রাশির অধিপতি হল বৃহস্পতি গ্রহ (Jupiter)। আর এই রাশির জাতক-জাতিকাদের গ্রহরত্ন হল পোখরাজ।

মকর (Capricorn) এবং কুম্ভ (Aquarius) রাশির অধিপতি হল শনি গ্রহ (Saturn)। আর এই রাশির জাতক-জাতিকাদের গ্রহরত্ন হল নীলা।

সিংহ (Leo) রাশির উপর অধিষ্ঠান করছে সূর্য (Sun)। ফলে এই রাশির জাতক-জাতিকাদের গ্রহরত্ন হল চুনী।

কর্কট (Cancer) রাশির অধিপতি হল চন্দ্র (Moon)। তাই এই রাশির জাতক-জাতিকাদেক গ্রহরত্ন হল মুক্তো।

Published by:Siddhartha Sarkar
First published:

Tags: Gemstones

পরবর্তী খবর