Home /News /west-bardhaman /
Paschim Bardhaman: অজয় নদীর জলস্তর বৃদ্ধি! শিবপুরে অস্থায়ী সেতু বন্ধ করল প্রশাসন

Paschim Bardhaman: অজয় নদীর জলস্তর বৃদ্ধি! শিবপুরে অস্থায়ী সেতু বন্ধ করল প্রশাসন

title=

আপাতত সেপ্টেম্বর মাস পর্যন্ত অজয় নদের ওপর অস্থায়ী ব্রিজে পুরোপুরি ভাবে যাতায়াত বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নিল জেলা প্রশাসন।

  • Share this:

    #পশ্চিম বর্ধমান : আপাতত সেপ্টেম্বর মাস পর্যন্ত অজয় নদের ওপর অস্থায়ী ব্রিজে পুরোপুরি ভাবে যাতায়াত বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নিল জেলা প্রশাসন। এদিন পশ্চিম বর্ধমান জেলার জেলা পরিষদের সহ-সভাধিপতি সমীর বিশ্বাস পানাগড় থেকে সংবাদ মাধ্যমকে জানিয়েছেন, প্রতি বছর বর্ষার সময় শিবপুর থেকে বীরভূম যাওয়ার অস্থায়ী ব্রীজ ক্ষতিগ্রস্ত হয় অজয় নদে জলস্তর বেড়ে যাওয়ার ফলে। এবছর একইভাবে জলস্তর বেড়ে যাওয়ার ফলে বৃহস্পতিবার থেকে বিপদজনক হয়ে পড়েছে অস্থায়ী ব্রীজ। যে কারনে কোনরকম ঝুঁকি না নিয়ে বৃহস্পতিবার থেকেই সেতুটি দিয়ে যাতায়াত বন্ধ রাখা হয়। তবে বর্ষার মরশুম শুরু হয়ে যাওয়ায় কোনরকম ঝুঁকি না নিয়ে আগামী সেপ্টেম্বর মাস পর্যন্ত অস্থায়ী ব্রীজে যাতায়াত পুরোপুরি ভাবে বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। যদিও এই অস্থায়ী সেতুটি বন্ধ হয়ে যাওয়ার প্রভাব সরাসরি এসে পড়বে কিছু মানুষের জীবনে।

    বিশেষ করে স্থানীয় মানুষজনের যাতায়াত জীবিকা নির্বাহ নিয়ে সমস্যার সম্মুখীন হতে হবে। অনেক সময় দেখা যায় সময় বাঁচানোর জন্য অনেকেই নৌকা ব্যবহার করে ওই জায়গাটি দিয়ে যাতায়াত করেন। তবে সেটিও ঝুঁকিপূর্ণ। তবে পাশেই একটি স্থায়ী সেতু নির্মাণের কাজ চলছে। জেলা প্রশাসনের আশা, খুব শীঘ্রই ওই সেতুটি চালু হবে। কিন্তু অস্থায়ী সেতুটি বন্ধের জন্য জেলা প্রশাসন যে সিদ্ধান্ত নিয়েছে, তার সঙ্গে সহমত হলেও স্থানীয়রা রীতিমতো বিড়ম্বনার শিকার হচ্ছেন।

    আরও পড়ুন: কয়লা, বালি, মাদক - অবৈধ কারবার রুখতে সক্রিয় ভূমিকায় পুলিশ

    তবে আগামী দিনের পরিস্থিতি যেমন থাকবে তার ওপর সিদ্ধান্ত নেবে জেলা প্রশাসন। যে সমস্ত মানুষ নিত্যদিন অস্থায়ী ব্রীজের ওপর দিয়ে যাতায়াত করেন, তাদের জন্য বিকল্প ব্যবস্থার চিন্তাভাবনাও রয়েছে জেলা প্রশাসনের। কিন্তু বর্তমানে অস্থায়ী সেতুতে যাতায়াত বন্ধ হয়ে যাওয়ায়, দুই জেলার মধ্যে যোগাযোগ ব্যবস্থা বিচ্ছিন্ন হয়েছে।

    Nayan Ghosh
    Published by:Soumabrata Ghosh
    First published:

    Tags: Panagarh, Paschim bardhaman

    পরবর্তী খবর