Home /News /technology /
অনলাইনে পেমেন্ট করেন? সাবধান! ফ্রড থেকে বাঁচতে মেনে চলুন এই টোটকা

অনলাইনে পেমেন্ট করেন? সাবধান! ফ্রড থেকে বাঁচতে মেনে চলুন এই টোটকা

Online Payment Frauds: এই সমস্ত বিষয়ের ওপর গুরুত্ব দিলে অনলাইন পেমেন্ট করলেও ইউজারদের কোন সমস্যায় পড়তে হবে না

  • Share this:

    Online Payment Frauds: বর্তমানে বিপুল জনপ্রিয়তা অর্জন করেছে অনলাইন পেমেন্ট। এখন অনেকেই ঘরে বসেই বিভিন্ন ধরনের পেমেন্ট করছেন অনলাইনের মাধ্যমে। করোনা মহামারীর পর থেকে এই অনলাইন পেমেন্টের জনপ্রিয়তা ঝড়ের গতিতে বেড়েছে। অনলাইনে পেমেন্ট করার প্রবণতা যত বাড়ছে, একই সঙ্গে পাল্লা দিয়ে বাড়ছে বিভিন্ন ধরনের দুর্নীতি। কারণ হ্যাকাররা অনলাইন পেমেন্টের মাধ্যমে বিভিন্ন ধরনের দুর্নীতি করে চলেছে। এর জন্য অনলাইন পেমেন্ট করার সময় সুরক্ষিতভাবে সেটি করা উচিত। এর জন্য অতি অবশ্যই কয়েকটি বিষয় মাথায় রাখা উচিত। এই সমস্ত বিষয়ের ওপর গুরুত্ব দিলে অনলাইন পেমেন্ট করলেও ইউজারদের কোন সমস্যায় পড়তে হবে না। এক নজরে দেখে নেওয়া যাক কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ উপায়।

    অনলাইন পেমেন্ট করার অ্যাপ -

    বর্তমানে অনলাইন পেমেন্ট জনপ্রিয়তা লাভ করার কারণে বিভিন্ন ধরনের অনলাইন পেমেন্ট মোবাইল অ্যাপ রয়েছে। কিন্তু ইউজারদের একটি বিষয় মনে রাখতে হবে যে কোনও অনলাইন পেমেন্ট অ্যাপ ইনস্টল করা উচিত নয়। ইউজারদের অতি অবশ্যই গুগল প্লে স্টোর থেকে বৈধ অনলাইন পেমেন্ট অ্যাপ ডাউনলোড করা দরকার। এর জন্য সবার আগে প্লে স্টোরে গিয়ে সেই অ্যাপের ভেরিফাইড ব্যাজ দেখে নিতে হবে অর্থাৎ সেই অ্যাপটি বৈধ কি না। এছাড়াও সেই অ্যাপের রিভিউ একবার ভালো করে দেখে নেওয়া দরকার। এই দুটি বিষয় দেখে নিয়ে তারপরে সেই অনলাইন পেমেন্ট অ্যাপ ডাউনলোড করা দরকার। এই ক্ষেত্রে মনে রাখা প্রয়োজন জনপ্রিয় অনলাইন পেমেন্ট অ্যাপ ব্যবহার করা সবথেকে বুদ্ধিমানের কাজ।

    আরও পড়ুন - সেকেন্ড হ্যান্ড গাড়ি কিনবেন ভাবছেন? এই ব্য়াপারগুলো না দেখলে ঠকতে হবে কিন্তু

    Phone Pay অ্যাপ হল ভারতের সবথেকে বেশি ব্যবহার করা অনলাইন পেমেন্ট অ্যাপ। এছাড়াও ভারতের জনপ্রিয় অনলাইন পেমেন্ট অ্যাপ হল গুগল পে, পেটিএম। ভারত সরকার দ্বারা চালু করা হয়েছে BHIM অ্যাপ। এছাড়াও ভারতে রয়েছে Amazon Pay, Jio Money, Mobikwik, Paypal ইত্যাদির মতো পেমেন্ট অ্যাপ।

    পাবলিক ওয়াই-ফাই ব্যবহার করে ট্রানজাকশন করা উচিত নয় -

    অনেক ইউজার বিনামূল্যে ইন্টারনেট ব্যাবহার করার নেশায় পাবলিক ওয়াই-ফাই ব্যবহার করেন। বর্তমানে মেট্রো-রেলওয়ে স্টেশন, পার্ক, কোচিং সেন্টার, মল ইত্যাদি বিভিন্ন জায়গায় ফ্রি ওয়াইফাই-এর সুবিধা পাওয়া যায়। কিন্তু এই ধরনের ফ্রি ওয়াইফাই ব্যবহার করে কখনও অনলাইন পেমেন্ট করা উচিত নয়। কারণ এর মাধ্যমে ইউজারদের অসুবিধায় পড়তে হতে পারে। অর্থাৎ অনলাইন পেমেন্ট অ্যাপ ব্যবহার করার সময় সবসময় সুরক্ষিত ইন্টারনেট ডেটা ব্যবহার করা প্রয়োজন।

    ওটিপি শেয়ার করা উচিত নয় -

    অনলাইন পেমেন্ট করার সময় ব্যাঙ্কের তরফ ইউজারদের মোবাইলে ওটিপি নম্বর পাঠানো হয়। সেই ওটিপি ছাড়া কোনও ভাবেই অনলাইন পেমেন্ট করা সম্ভব নয়। অর্থাৎ এই ওটিপি খুবই গুরুত্বপূর্ণ। সুতরাং এই ওটিপি সকলের সঙ্গে শেয়ার করা উচিত নয়।

    অজানা লিঙ্কে ক্লিক করা উচিত নয় -

    বর্তমানে হ্যাকাররা ইউজারদের বিভিন্ন ধরনের মেসেজ এবং ইমেল পাঠাচ্ছে। সেই সকল মেসেজ এবং ইমেলে বিভিন্ন ধরনের লিঙ্ক পাঠানো হচ্ছে। বিভিন্ন ধরনের অফার এবং ব্যাঙ্ক অথবা কোম্পানির কথা বলে সেই ধরনের মেল পাঠানো হচ্ছে। কিন্তু ভুলেও এই ধরনের অজানা লিঙ্কে ক্লিক করা উচিত নয়। এই সকল লিঙ্কে লুকিয়ে রয়েছে টাকা নয়ছয় হয়ে যাওয়ার ভয়ঙ্কর বিপদ।

    আরও পড়ুন - বিল পেমেন্ট করতে আর লাইনে দাঁড়াতে হবে না, ঘরে বসেই মোবাইলের মাধ্যমে বিল দিন ২ মিনিটে

    ওয়েব ব্রাউজিং ব্যবহার করার উপায় -

    অনলাইনে শপিং করার সময় সেই সকল ওয়েবসাইট ব্যবহার করা উচিত যা খুবই জনপ্রিয় এবং যাদের কোটির ওপর ইউজার রয়েছে। যেমন অ্যামাজন, ফ্লিপকার্ট, স্ন্যাপডিল ইত্যাদি। বর্তমানে বাজারে বিভিন্ন ধরনের শপিং ওয়েবসাইট রয়েছে। কিন্তু অজানা শপিং ওয়েবসাইট কখনও ব্যবহার করা উচিত নয়। কারণ এদের ইউআরএলে লুকিয়ে রয়েছে বিভিন্ন ধরনের বিপদ। এই সমস্ত ইউআরএলে ক্লিক করলে মোবাইল অথবা ডিভাইসের বিভিন্ন ধরনের তথ্য চুরি হয়ে যেতে পারে। এছাড়াও শপিং করার সময় নিজেদের এটিএম, ব্যাঙ্ক ডিটেল ইত্যাদি দিতে হয়। এর জন্য এমন কোনও ওয়েবসাইট থেকে শপিং করা উচিত যেটি বৈধ এবং জনপ্রিয়।

    কার্ড ব্যবহার করার সময় সতর্ক থাকা উচিত -

    অনলাইন পেমেন্ট করার সময় কার্ড ব্যবহার করার সময় ইউজারদের খুবই সতর্ক থাকতে হবে। সেই সময় সবার আগে দেখে নেওয়া দরকার সেই কার্ড রিডিং মেশিন ঠিক রয়েছে কি না। কারণ অনেক সময় সেই কার্ড রিডিং মেশিন থেকেই হ্যাক করা হয় ইউজারদের ব্যাঙ্কের কার্ড। এর ফলে মুহূর্তের মধ্যে খোয়া যেতে পারে ইউজারদের ব্যাঙ্কের টাকা। সুতরাং কার্ড ব্যবহার করার সময় সতর্ক হওয়ার প্রয়োজন রয়েছে। এই সকল উপায়ের দিকে একটু নজর রাখলে অনলাইন পেমেন্ট করার সময় ইউজারদের বিপদের সম্ভাবনা কম।

    Published by:Ananya Chakraborty
    First published:

    Tags: Online Frauds, UPI

    পরবর্তী খবর