Home /News /technology /
Realme GT Neo 3 Review: গেম খেলার জন্য সেরা অপশন! জানুন স্পেশিফিকেশন ও দাম

Realme GT Neo 3 Review: গেম খেলার জন্য সেরা অপশন! জানুন স্পেশিফিকেশন ও দাম

Realme GT Neo 3-এর পিছনে কমপক্ষে ৩৬,৯৯৯ টাকা খরচ করা আদৌ লাভজনক, জানুন

  • Share this:

    Realme GT Neo 3 Review: ভারতীয় বাজারে এই মুহূর্তে সবচেয়ে বেশি বিক্রি হওয়া ব্র্যান্ডগুলির মধ্যে একটি হল Realme। সংস্থার সক্রিয়তাও চোখে পড়ার মতো। সারা বছর নতুন নতুন মডেলের স্মার্টফোন লঞ্চ করেই থাকে Realme। কিন্তু ব্যবসায়িক প্রক্রিয়ায় এরা বেশ কিছু স্মার্টফোনকে বেশি হাইলাইট করে। তেমনই একটি স্মার্টফোন হল Realme GT Neo 3। বাজারে সবচেয়ে দ্রুত চার্জিং প্রযুক্তি-সহ এই স্মার্টফোনটিকেও বিশেষ গুরুত্ব দিচ্ছে সংস্থা। দামের ক্ষেত্রেও নানা অফার নিয়ে এসেছে এই স্মার্টফোনটি।

    Realme GT Neo 3 চলতি বছরের শুরুতে ভারতে লঞ্চ করা হয়েছিল। 150W ফাস্ট চার্জিং, MediaTek Dimensity 8100 চিপসেট এবং আরও অনেক কিছু লোভনীয় ফিচার-সহ বাজারে এসেছে ফোনটি৷ 8GB RAM + 128GB স্টোরেজ-সহ 80W চার্জিং ভ্যারিয়েন্টের Realme GT Neo 3-এর দাম ৩৬,৯৯৯ টাকা। 8GB RAM + 256GB স্টোরেজ ভ্যারিয়েন্টের দাম ৩৮,৯৯৯ টাকা, এবং 150W Realme GT Neo 3-এর দাম ভারতে ৪২,৯৯৯ টাকা। এ ছাড়াও এই স্মার্টফোনের রয়েছে একটি বিশেষ সংস্করণ। Thor: Love And Thunder বিশেষ সংস্করণের Realme GT Neo 3 স্মার্টফোনের 150W ভ্যারিয়েন্টের দামও ৪২,৯৯৯ টাকা।

    এখানে পর্যালোচনার জন্য সর্বোন্নত 150W ফাস্ট চার্জিং ভ্যারিয়েন্টই বেছে নেওয়া হল। এই নিবন্ধে, Realme GT Neo 3-র ভাল এবং মন্দ উভয় দিকের কথাই আলোচনা করা হবে। Realme GT Neo 3-এর পিছনে কমপক্ষে ৩৬,৯৯৯ টাকা খরচ করা আদৌ লাভজনক কি না তা বিচার করে দেখা যেতে পারে।

    ডিজাইন

    Realme GT Neo 3-এর ডিজাইন বেশ আকর্ষণীয়। আকারে তেমন কোনও বিশেষত্ব না থাকলেও, পিছনের প্যানেলের উপরের বাম কোণে একটি আয়তাকার ‘ট্রিপল রিয়ার ক্যামেরা’ সেটআপ রয়েছে। একটি হোল-পাঞ্চ ডিসপ্লে এবং একটি এজি গ্লাস ব্যাক প্যানেল-সহ তৈরি হয়েছে। তবে রঙ আকর্ষণীয়।

    আরও পড়ুন - সেকেন্ড হ্যান্ড গাড়ি কিনবেন ভাবছেন? এই ব্য়াপারগুলো না দেখলে ঠকতে হবে কিন্তু

    Realme GT Neo 3-এর পিছনের প্যানেলে ‘রেসিং স্ট্রাইপ’ ডিজাইন রয়েছে। এখানে যে ছবি দেখা যাচ্ছে তা নীল রঙের। ‘কোবাল্ট’ (Cobalt) নীল রঙের ব্যাক কভারের বাঁ দিকে, ক্যামেরা মডিউলের নিচ দিয়ে গিয়েছে সাদা স্ট্রাইপ। এই ফোনের পিছনের প্যানেলে রয়েছে ঘষা কাচের (Frosted Glass) মতো দেখতে। আর এ কারণেই অন্য স্মার্টফোনের থেকে আলাদা এটি। ঠিক এই একই রকম একটি সাদা রঙের মডেলও লক্ষ করেছে Realme, তার স্ট্রাইপটি কালো রঙের। তবে সকলেই যে এই ‘রেসিং স্ট্রাইপ’ পছন্দ করবেন, এমনটা নয়। সে কারণে একেবার কালো রঙের মডেলও রয়েছে এই ফোনে।

    সামনের দিকে, Realme GT Neo 3-এ রয়েছে একটি হোল-পাঞ্চ ডিজাইনের ফ্রন্ট প্যানেল। উল্লেখযোগ্য বিষয় হল Realme Realme GT Neo 3-এ তার চওড়া চিবুক অনেকটাই হ্রাস পেয়েছে।

    ডিসপ্লে

    এই স্মার্টফোনের ডিসপ্লে-টিও বেশ ভাল। Realme GT Neo 3-তে রয়েছে 120Hz রিফ্রেশ রেট-সহ একটি 6.7-ইঞ্চি FHD+ ডিসপ্লে। দেখা গিয়েছে, এই 120Hz রিফ্রেশ রেট খুব মসৃণ ডিসপ্লে দিতে পারছে। তবে এই রিফ্রেশ রেট বেছে নিতে পারবেন ব্যবহারকারী। তবে শুধুমাত্র 60Hz বা 120Hz রিফ্রেশ রেট বেছে নেওয়া যেতে পারে। ডিসপ্লে-টি প্রখর। ডিফল্ট মোডে রঙগুলি একটু চোখে লাগতে পারে, তবে ডিসপ্লে সেটিং দিয়ে এটি পরিবর্তন করা যেতে পারে। দৈনন্দিন ব্যবহারের জন্য ডিসপ্লেটি ভালই বলা চলে।

    তবে এতে HDR10 –এর উপযোগী ব্যবস্থা নেই। যদিও Netflix এবং YouTube-এ ভিডিও দেখতে অসুবিধা হওয়ার কথা নয়।

    পারফরমেন্স এবং সফ্টওয়্যার

    Realme GT Neo 3 স্মার্টফোনটি MediaTek Dimensity 8100 চিপসেট দ্বারা চালিত, এতে রয়েছে 12GB পর্যন্ত RAM-এর সুবিধা। এখানে যে ফোনটি নিয়ে পর্যালোচনা করা হচ্ছে, সেটি 12GB RAM-সহ 150W ভেরিয়েন্ট। এই স্মার্টফোনটি বেশ ভাল পারফর্মার হিসাবে নিজেকে প্রমাণ করতে পেরেছে, তা বলাই যায়। অ্যাপ্লিকেশন ইনস্টল করা, দ্রুত খোলা, একটি থেকে অন্যটিতে চলে যাওয়ার মতো কাজ বেশ মসৃণ ভাবেই করা সম্ভব। Realme GT Neo 3-এ মাল্টিটাস্কিং দ্রুত করা যায়।

    Realme GT Neo 3-তে বেশ কয়েকটি গেম খেলে দেখা গিয়েছে 60FPS ফ্রেম রেট সতর্কতা থাকাকালীন গেমিং অভিজ্ঞতা ভাল থাকে। ‘ব্যাটলগ্রাউন্ডস মোবাইল ইন্ডিয়া’, ‘কল অফ ডিউটি: মোবাইল’, ‘রিয়েল রেসিং 3’ –র মতো আরও কিছুর গেম উচ্চ গ্রাফিক্স সেটিংসে চলে এবং Realme GT Neo 3 ফোনটি 55-60FPS ফ্রেম রেটের মধ্যে ক্রমাগত ভাল পারফরমেন্স দিতে পারে। গেমিংয়ের ক্ষেত্রে খুব ভাল ডিটেলিং যে দেয় এই ডিসপ্লে-টি তা নয়, তবে বেশ ভাল কাজ করে।

    আরও পড়ুন - বিল পেমেন্ট করতে আর লাইনে দাঁড়াতে হবে না, ঘরে বসেই মোবাইলের মাধ্যমে বিল দিন ২ মিনিটে

    পারফরমেন্স সম্পর্কে বলতে গেলে, Realme UI-তে সফ্টওয়্যার আগের ফোনগুলির মতোই রয়েছে। Realme UI 3.0, এই মুহূর্তে ক্লিনার অ্যান্ড্রয়েড স্কিনগুলির মধ্যে একটি। তবুও ব্লোটওয়্যার এবং বাগ মুক্ত একটি নির্বিঘ্ন, সহজ অভিজ্ঞতা প্রদানের ক্ষেত্রে তা যে খুব ভাল , এমন বলা যায় না। এ জন্য এখনও অনেক দূর যেতে হবে Realme-কে। আগের থেকে অনেকটা কম হলেও একগুচ্ছ ব্লোটওয়্যার অ্যাপ রয়ে গিয়েছে এখনও। স্মার্টফোন ব্যবহার শুরু করার জন্য আপনাকে এখনও বেশ কয়েকটি অনুমতি দিতে হয়।

    Realme GT Neo 3-এর ব্যাটারি কিছুক্ষণ স্থায়ী হয়। স্মার্টফোনটিতে 150W ফাস্ট চার্জিং ভ্যারিয়েন্টের জন্য 4,500mAh ব্যাটারি এবং 80W ফাস্ট চার্জিং ভ্যারিয়েন্টের জন্য 5,000mAh ব্যাটারি পাওয়া যায়। এখানে যে ফোনটি নিয়ে আলোচনার করা হচ্ছে, সেটি 4,500mAh + 150W ভ্যারিয়েন্টের। Realme GT Neo 3-এর ব্যাটারি বেশ কিছুক্ষণ ধরে চলে। সামগ্রিক ভাবে, স্মার্টফোনের ব্যাটারি সহজেই প্রায় দেড় দিন স্থায়ী হতে পারে।

    Realme GT Neo 3 স্মার্টফোনটি ২০ মিনিটের মধ্যে শূন্য থেকে ১০০ পর্যন্ত চার্জ হতে পারে। তবে এটি চার্জিংয়ের সময় বেশ উত্তপ্ত হয়ে ওঠে। ফলে সতর্ক থাকা দরকার। চার্জে বসিয়ে কোনও কাজ না করাই ভাল।

    ক্যামেরা

    Realme GT Neo 3 একটি ট্রিপল রিয়ার ক্যামেরা সেটআপ-সহ পাওয়া যায়। স্মার্টফোনটিতে একটি ৫০-মেগাপিক্সেল Sony IMX766 শ্যুটার, একটি ৮-মেগাপিক্সেল আল্ট্রা-ওয়াইড অ্যাঙ্গেল শ্যুটার এবং একটি ২-মেগাপিক্সেল ম্যাক্রো লেন্স ক্যামেরা রয়েছে। মূল ক্যামেরার বাইরের ছবিগুলো তীক্ষ্ণ, কিন্তু উজ্জ্বল আলোতে স্যাচুরেটেড দেখায়।

    নতুন Sony IMX766 সেন্সর-সহ ছবিগুলিতে আরও বিশদ রয়েছে এবং ভাল গতিশীল পরিসর রয়েছে। তবে আলোর এক্সপোজার কিছুটা বেশি বলে মনে হতে পারে। কম আলোয় ছবিগুলি সুন্দর এবং বিস্তারিত হতে পারে। কম আলোর ছবিতেও আলোর এক্সপোজার কিছুটা অতিরিক্ত বলে মনে হতে পারে।

    অন্য দিকে, ওয়াইড অ্যাঙ্গেল লেন্সের ছবিগুলো অনেক কম স্যাচুরেটেড দেখায় এবং রংগুলো অনেক ঘন এবং সঠিক। পোর্ট্রেট মোড রঙগুলিকেও বেশ ভালভাবে পরিচালনা করে এবং Realme GT neo 3-এ প্রান্ত সনাক্তকরণ এবং ব্যাকগ্রাউন্ড ব্লার বেশ ভাল।

    সব মিলিয়ে, এটি একটি ভাল ক্যামেরা, তবে ছবিগুলি ওভার এক্সপোজড মনে হতে পারে। স্মার্টফোনটি ম্যানুয়াল মোডে ব্যবহার করলে এটি পরিবর্তন করা যেতে পারে। ম্যানুয়াল মোডে এই ক্যামেরাটির আরও ভাল ভাবে ব্যবহার করা যেতে পারে। এতে ছবি আরও ভাল হতে পারে।

    ফলে বোঝাই যাচ্ছে Realme GT Neo 3 অ্যান্ড্রয়েড ফোনের বাজারে অন্য অনেক ফোনকেই প্রতিযোগিতার মুখে ফেলে দিতে পারে। প্রিমিয়াম মিড-রেঞ্জ বিভাগে এমনিতেই প্রতিযোগিতা অনেক বেশি। সেখানে Realme GT Neo 3 তার নিজস্বতা রাখার চেষ্টা করছে। বেশ অন্য রকম ডিজাইন, ভাল ডিসপ্লে, পারফরম্যান্স এবং অতি দ্রুত চার্জিং-সহ এই ফোনটি নিজেকে বেশ ভাল ভাবে কার্যকর হিসেবে প্রমাণ করছে। Realme GT Neo 3 একটি ভাল স্মার্টফোন যা ফ্ল্যাগশিপ পারফরমেন্সের আস্বাদ দিতে পারে।

    চলতি বছরের শুরুতে Realme GT Neo 3 স্মার্টফোনটিকে OnePlus 10R-এর প্রতিযোগী হিসাবে লঞ্চ করা হয়েছিল। আসলে ফোন দু’টির শরীর ভিন্ন তবে স্পেসিফিকেশন প্রায় এক। এই দু’টি ফোনের মধ্যে তুলনা করলে, বেশ অনেকখানি এগিয়ে রাখা যেতে পারে Realme GT Neo 3। বা বলা ভাল, এটিই সেরা।

    তবে এ কথাও ঠিক যে একটি স্বতন্ত্র প্রিমিয়াম মিড-রেঞ্জ স্মার্টফোন হিসেবে Realme GT Neo 3-তে শুধুমাত্র 150W ফাস্ট চার্জিং পাওয়া যায়। এর বাইরে বিশেষ কিছুই অফার করে না Realme। এই সব ফিচার-সহ অন্য অনেক স্মার্টফোন ভারতীয় বাজারে রয়েছে, যাদের দাম অনেক কম। তবে তারা কেউ 150W দ্রুত চার্জিং প্রযুক্তি দিতে পারে না।

    Published by:Ananya Chakraborty
    First published:

    Tags: Mobile review, Realme

    পরবর্তী খবর