CoWIN-এ ভ্যাকসিনের স্লট পেতে সমস্যা? পথ দেখাবে IIM, NIT প্রাক্তনীদের তৈরি নতুন অ্যাপ localiti.io

CoWIN-এ ভ্যাকসিনের স্লট পেতে সমস্যা? পথ দেখাবে IIM, NIT প্রাক্তনীদের তৈরি নতুন অ্যাপ localiti.io!

IIM এবং NIT-র প্রাক্তন শিক্ষার্থীরা যৌথ ভাবে একটি মোবাইল-ভিত্তিক অ্যাপ্লিকেশন তৈরি করেছেন যা মানুষকে ভ্যাকসিনের স্লট বুক করতে সাহায্য করবে

  • Share this:

    #নয়াদিল্লি: গোটা দেশ জুড়ে চলছে করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ের ভয়াবহ প্রকোপ। চিকিৎসাকর্মী থেকে শুরু করে সকলেই চেষ্টা করছেন নিজেদের মতো করে এই অদৃশ্য ভাইরাসের হাত থেকে দেশকে তথা নিজেদের বাঁচাতে। বিভিন্ন রাজ্যে চলছে অক্সিজেনের হাহাকার, রয়েছে শয্যার অপ্রতুলতা। আর এই অবস্থায় কোভিড ১৯ টিকা নেওয়াও একটি কঠিন চ্যালেঞ্জ হয়ে দাঁড়িয়েছে সাধারণ মানুষের কাছে, অনেকেই CoWIN-এ ভ্যাকসিনের স্লট পাচ্ছেন না। ফলে IIM এবং NIT-র প্রাক্তন শিক্ষার্থীরা যৌথ ভাবে একটি মোবাইল-ভিত্তিক অ্যাপ্লিকেশন তৈরি করেছেন যা মানুষকে ভ্যাকসিনের স্লট বুক করতে সাহায্য করবে। এই অ্যাপটির নাম দেওয়া হয়েছে localiti.io।

    বর্তমানে অ্যাপটি ব্যবহার করে, ১৮ থেকে ৪৪ বছর বয়সীরা যাঁরা কোভিড ১৯-এর বিরুদ্ধে লড়াই করতে নিজেদের টিকা দেওয়ার জন্য অপেক্ষা করছেন, তাঁরা ভ্যাকসিন সংক্রান্ত যাবতীয় খুঁটিনাটি নোটিফিকেশন পাবেন। এই অ্যাপটি বিকাশ করেছেন কুরুক্ষেত্রের জাতীয় ইনস্টিটিউট অফ টেকনোলজির (National Institute of Technology Kurukshetra) প্রাক্তন ছাত্র পার্তিক মদন (Partik Madaan), রোহতাক ইন্ডিয়ান ইনস্টিটিউট অফ ম্যানেজমেন্টের (Indian Institute of Management) প্রাক্তন ছাত্র প্রতীক সিং (Prateek Singh) এবং NIT কুরুক্ষেত্রের প্রাক্তনী ভারত ভূষণ (Bharat Bhushan), যিনি বর্তমানে Ixigo-র কর্মচারী।

    শিক্ষা মন্ত্রণালয় (Ministry of Education) এক ট্যুইট বার্তায় তাঁদের ভূয়সী প্রশংসা করেছে। অন্য দিকে, দ্য ট্রিবিউন ( The Tribune) জানিয়েছে, অ্যাপটি প্রথম মে মাসে চালু হয়েছিল এবং এখনও পর্যন্ত ১০,০০০-এর বেশি মানুষ এটিতে তালিকাভুক্ত হয়েছে। localiti.io একটি প্রতিবেশী ভিত্তিক যোগাযোগের অ্যাপ এবং এটি বার বার নতুন স্লটগুলি পরীক্ষা করার জন্য পুনরায় রিফ্রেশ করার ঝামেলা কম করে। অ্যাপের ডেটা CoWin API পোর্টাল থেকে রিয়েল-টাইম ভিত্তিতে তৈরি । অতএব, অ্যাপগুলিতে নিবন্ধন করার আগে লগ ইন করতে হবে এবং পাশাপাশি CoWin পোর্টালেও নিবন্ধন করতে হবে।

    অ্যাপটি বিকাশকারী প্রাক্তন শিক্ষার্থী প্রতীক সিং বলেন যে, কেন্দ্রীয় সরকার তৃতীয় টিকাকরণোর ঘোষণা দেওয়ার পরে তাঁরা অ্যাপটি চালু করেছিলেন। মে থেকে তাঁদের এলাকায় স্লটগুলির প্রাপ্যতা সম্পর্কে তথ্য পেতে মানুষকে সাহায্য করার জন্য এটি চালু করা হয়েছিল বলে তিনি জানান। এছাড়াও কোভিড ১৯-এর বিরুদ্ধে ভারতের লড়াইয়ে, বিশ্ববিদ্যালয় এবং অন্যান্য প্রতিষ্ঠান জুড়ে শিক্ষার্থীরাও নানা ভাবে বিভিন্ন অ্যাপ ডেভেলপ করছেন, মেডিকেল সরবরাহ এবং শয্যা সম্পর্কে যাচাই করা তথ্য সরবরাহ করার জন্য অনলাইন পোর্টাল তৈরি করেছেন।

    Published by:Ananya Chakraborty
    First published: