Home /News /technology /
Facebook New Tool: ভুয়ো তথ্য ছড়াতে দেবে না ফেসবুক! গ্রুপ অ্যাডমিনদের হাতে নতুন 'অস্ত্র'

Facebook New Tool: ভুয়ো তথ্য ছড়াতে দেবে না ফেসবুক! গ্রুপ অ্যাডমিনদের হাতে নতুন 'অস্ত্র'

Facebook New Tool: Meta অধীনস্থ ওই সোশ্যাল মিডিয়া প্লাটফর্মে এমন বিশেষ ব্যবস্থা করা হয়েছে, যাতে গ্রুপগুলি নিজে থেকেই ভুয়ো তথ্য সমৃদ্ধ কোনও পোস্ট প্রত্যাখ্যান (reject) করতে পারে

  • Share this:

#নয়াদিল্লি: ভুয়ো খবর বা তথ্য ছড়িয়ে পড়া রোধ করতে পদক্ষেপ করছে Facebook। বুধবার থেকে Meta অধীনস্থ ওই সোশ্যাল মিডিয়া প্লাটফর্মে এমন বিশেষ ব্যবস্থা করা হয়েছে, যাতে গ্রুপগুলি নিজে থেকেই ভুয়ো তথ্য সমৃদ্ধ কোনও পোস্ট প্রত্যাখ্যান (reject) করতে পারে।

প্রায় ১.৮ বিলিয়ন মানুষ ফেসবুক গ্রুপ (FB Groups) ব্যবহার করেন। এ সব গ্রুপে, চেনা অচেনা মানুষেরা একসঙ্গে মিলে নানা ধরনের আলোচনায় যোগ দেন, তা সে সন্তান প্রতিপালন হোক, বা দেশীয় রাজনীতি বা আন্তর্জাতিক। আর সেখানেই বিপদের শুরু।

আরও পড়ুন- Apple-এর কোন ফোন কেমন, কেমনই বা তাদের দাম, বিশদ এক নজরে

বিশেষজ্ঞরা মনে করেন, এই ফেসবুক গ্রুপই হল খুব সহজ লক্ষ্য, যেখানে ইচ্ছা করেই নানা ধরনের ভুয়ো খবর, তথ্য ছড়িয়ে দেওয়া হয়। এতে খুব সহজেই সমমনস্ক এক বিরাট অংশের মানুষের মধ্যে ছড়িয়ে পড়ে তথ্য।

ফেসবুক অ্যাপ কমিউনিটিজ-এর সহ-সভাপতি মারিয়া স্মিথ বলেন, প্রথম সারির এই সোশ্যাল মিডিয়ার এমন ক্ষমতা রয়েছে যাতে থার্ড পার্টি ফ্যাক্ট চেক (third party fact check)-এর মাধ্যমে সরাসরি কোনও ভুয়ো খবরকে প্রত্যাখ্যান করা যায়। ফেসবুক গ্রুপগুলির অ্যাডমিনিস্ট্রেটর (Admin)-রা চাইলেই সেই সফ্টওয়্যার ব্যবহার করে স্বয়ংক্রিয় ভাবে ভুয়ো খবর সম্প্রচারিত হওয়া থেকে নিজের গ্রুপকে রক্ষা করতে পারেন।

বিশ্বব্যপ্ত সোশ্যাল নেটওয়ার্কিং সাইটে প্রথম গ্রুপ তৈরির ব্যবস্থা করেছিলেন মার্ক জুকেরবার্গ নিজে। লক্ষ্য ছিল, সমমনস্ক বা একই ধরনের বিষয়ে আগ্রহী বা একই কাজে যুক্ত মানুষকে একসঙ্গে বসিয়ে দেওয়া।

২০২০ সালে ভুয়ো তথ্য নিয়ে গবেষণা করা নিনা ইয়ানকোভিচ ও সিন্ডি ওটিস বলেছিলেন যে, গবেষণায় তাঁরা দেখেছেন Privecy and Community-র মতো ফিচারগুলির অপব্যবহার করে দেশীয় বা বিদেশি কিছু ব্যক্তি ভুয়ো খবর ছড়িয়ে দেয় অনায়াসে।

গত বেশ কয়েক বছর ধরেই ফেসবুকের উপর ক্রমাগত চাপ বাড়ছিল ভুয়ো খবর ছড়ানো বন্ধ করার বিষয়ে। গত দু’বছরে কোভিড অতিমারী হোক বা ভারত, আমেরিকার ভোট—সর্বত্রই এই একই অভিযোগ উঠেছে। আর সম্প্রতি রাশিয়ার আগ্রাসনের সময়ও একই আশঙ্কা থেকে যাচ্ছে বিশ্বের অন্যতম বড় সোশ্যাল নেটওয়ার্কিং সাইটের ক্ষেত্রে।

আরও পড়ুন- 108 মেগাপিক্সেল ক্যামেরা! রেডমির নতুন ফোন তৈরি স্মার্ট ফোনের বাজারে ঝড় তুলতে

তারই প্রেক্ষিতে বুধবার সংস্থার তরফে একটি ‘suspend’ টুলও নিয়ে আসা হয়েছে। যাতে, কোনও রকম বেচাল দেখলে গ্রুপ অ্যাডমিন কোনও সদস্য বা একদল সদস্যকে বেশ কিছুদিনের জন্য সাসপেন্ড করতে পারেন। তখন ওই গ্রুপে ওই সব সদস্যরা আর কিছু পোস্ট করতে বা কমেন্ট করতে পারবেন না।

এমনকী এ বার থেকে গ্রুপে সদস্য অন্তর্ভুক্তির জন্য অ্যাডমিন সদস্যদের ই-মেল আইডি বা কিউআর (QR) কোড চাইতে পারবেন। জানিয়েছেন স্মিথ।

এই মুহূর্তে ফেসবুকের সঙ্গে AFP ফ্যাক্ট চেকিংয়ের কাজ করছে। প্রায় ৮০টি দেশে ২৪টি ভাষায় এই কাজ চলছে বলে জানা গিয়েছে।

Published by:Suman Majumder
First published:

Tags: Facebook, Facebook update

পরবর্তী খবর