Home /News /technology /
iPhone: শীঘ্রই iPhone-এ আসতে চলেছে USB Type C পোর্ট! কোন চাপের মুখে এই সিদ্ধান্ত, জানুন

iPhone: শীঘ্রই iPhone-এ আসতে চলেছে USB Type C পোর্ট! কোন চাপের মুখে এই সিদ্ধান্ত, জানুন

আইফোনে নতুন কিছু?

আইফোনে নতুন কিছু?

iPhone: রীতিমতো ভোটাভুটির মাধ্যমে স্মার্টফোন, ট্যাবলেট, ক্যামেরা এবং অন্য কিছু মোবাইল ডিভাসের জন্য unified charging standard বা একটি মাত্র চার্জার ব্যবহারের সিদ্ধান্ত হয়েছে।

  • Share this:

#নয়াদিল্লি: Apple iPhone-এর সঙ্গে এ বার পাওয়া যাবে USB Type C পোর্ট। হয়তো খুব শীঘ্রই চার্জিংয়ের জন্য নতুন পদ্ধতি বেছে নিতে হবে Apple-কে। সম্ভবত ছোট ডিভাইসগুলির ক্ষেত্রেই এই পদ্ধতি গ্রহণ করতে চাইছে Apple। চলতি সপ্তাহেই এই সিদ্ধান্ত হয়েছে বলে জানা গিয়েছে। তবে সে সিদ্ধান্ত নিয়েছে ইউরোপিয়ান পার্লামেন্ট। রীতিমতো ভোটাভুটির মাধ্যমে স্মার্টফোন, ট্যাবলেট, ক্যামেরা এবং অন্য কিছু মোবাইল ডিভাসের জন্য unified charging standard বা একটি মাত্র চার্জার ব্যবহারের সিদ্ধান্ত হয়েছে।

বিষয় হল USB Type C ইন্টারফেস ইতিমধ্যেই সারা বিশ্বে, বিশেষত Android সিস্টেমে একত্রিত ব্যবস্থা হিসাবে পরিচিত। কিন্তু Apple এতদিন পর্যন্ত তার নিজস্ব Lightning connector ব্যবহার করত iPhones-গুলির ক্ষেত্রে। যার ফলে Apple-এর ডিভাইস চার্জ করার জন্য তার নিজস্ব চার্জার এবং অ্যাডপ্টর কেনা জরুরি ছিল।

ঘটনাচক্রে বেশ কয়েক বছর আগেই Apple তার iPad এবং Mac-এর জন্য Type C ইন্টারফেস ব্যবহার করতে শুরু করে দিয়েছে। কিন্তু iPhones-এর ক্ষেত্রেও যে তা হতে পারে সে বিষয়ে কোনও ইঙ্গিত এতদিন ছিল না। কিন্তু ইউরোপিয়ান পার্লামেন্টের নতুন আইনানুসারে Apple বাধ্য হবে USB Type C ইন্টারফেস ব্যবহার করতে, এমনকী iPhone-এর জন্যও। হঠাৎ কী এমন ঘটল?

আরও পড়ুন: 'রামপুরহাটের ঘটনাই ঘটত না', ছিল বড় গাফিলতি! প্রশাসনিক বৈঠকে মমতার নিশানায় কে?

আসল কারণ কিন্তু Apple নয়। ইউরোপিয়ান পার্লামেন্ট এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে পরিবেশের কথা ভেবেই। বছরে পর বছর এই দুনিয়ায় জমে উঠছে ই-বর্জ্য (e-waste)। ইউরোপিয়ান ইউনিয়ন চাইছে, মানুষ নানা রকম গ্যাজেটের জন্য একটিই চার্জার ব্যবহার করুন, যাতে ক্রমাগত বর্জ্য জমা না হয়।

আরও পড়ুন: কী কাণ্ড! তাপমাত্রায় জয়সলমেরকে হারিয়ে দিল ঝাড়গ্রাম! পার্থক্য শুনলে চমকে উঠবেন...

তবে এখনও এই আইনের সরকারি স্বীকৃতি মেলেনি। তবে একবার এই আইন কার্যকর হয়ে গেলে Apple-এর কাছে আর কোনও উপায় থাকবে না। iPhone-গুলির ক্ষেত্রেও USB Type C ইন্টারফেস ব্যবহার করতে বাধ্য হবে Apple। আর আশা করা যায় শুধু ইউরোপ নয়, সারা বিশ্বেই এই ব্যবহার কার্যকর হবে। কারণ, পৃথক পৃথক বাজারের জন্য পৃথক পৃথক পণ্য উৎপাদনের নীতিতে বিশ্বাসী নয় Apple। এর আগেই Apple পরিবেশের কারণ দেখিয়ে iPhone-এর রিটেল বক্স থেকে চার্জার বাদ দিয়েছে। কিন্তু গ্রাহককে সেই চার্জার আলাদা ভাবে কিনতেই হয়। আশা করা যায় ইউরোপিয়ান ইউনিয়নের নতুন আইনের ফলে বেশ খানিকটা কম করা সম্ভব হবে ই-বর্জ্য (e-waste)।

First published:

Tags: IPhone

পরবর্তী খবর