• Home
  • »
  • News
  • »
  • sports
  • »
  • UMESH YADAV BRILLIANT DELIVERY GIVES NO CHANCE TO JOE ROOT GOT CLEAN BOWLED RRC

Umesh - Root : স্বপ্নের ডেলিভারিতে রুটকে ফিরিয়ে স্বপ্ন দেখাচ্ছেন উমেশ

উমেশের বলে বোল্ড রুট

উমেশ যাদবের একটা স্বপ্নের ডেলিভারি। এমন একটা ডেলিভারি যেটা ব্যাট নামানোর সুযোগ দেয়নি ইংলিশ অধিনায়ক জো রুটকে। অফ স্টাম্পের কিছুটা বাইরে পড়ে অনেকটা কেটে ভেতরে ঢুকিয়ে আসে বলটা

  • Share this:

    ভারত -১৯১ ইংল্যান্ড - ৫৩/৩

    ইংল্যান্ড পিছিয়ে ১৩৮ রানে

    #লন্ডন: দীর্ঘদিন পর জাতীয় দলে প্রথম এগারোয় সুযোগ পেয়েছিলেন তিনি। বুমরা, মহম্মদ শামির আগে ক্যারিয়ার শুরু করলেও ধারাবাহিকতার অভাব ছিল তার প্রধান অন্তরায়। মহেন্দ্র সিং ধোনি, বিরাট কোহলিরা, যে কারণে বেশি সুযোগ দিতে পারেননি উমেশ যাদবকে। শামির জায়গায় সুযোগ পেয়ে প্রমাণ করার ছিল অনেক কিছু। ওভাল টেস্টের প্রথম দিনই ব্যাটিং ব্যর্থতায় ব্যাকফুটে ভারত। বলার মতো তিনটি বিষয়। শার্দুল ঠাকুরের অনবদ্য ব্যাটিং, বিরাটের অর্ধশতরান এবং উমেশ যাদবের একটা স্বপ্নের ডেলিভারি।

    এমন একটা ডেলিভারি যেটা ব্যাট নামানোর সুযোগ দেয়নি ইংলিশ অধিনায়ক জো রুটকে। অফ স্টাম্পের কিছুটা বাইরে পড়ে অনেকটা কেটে ভেতরে ঢুকিয়ে আসে বলটা। তীব্র ইনসুইং সামলাতে পারলেন না জীবনের সেরা ছন্দে থাকা ইংলিশ অধিনায়ক। উইকেটের বেল পড়ে গেল। ২১ করে ফিরে গেলেন রুট। স্বস্তি পেল ভারতীয় শিবির।

    এই একজনের সামনেই মাথা খুটে মরতে হয়েছে ভারতীয় বোলারদের। এই সিরিজে যে কাজ করতে পারেননি শামি, বুমরা, ইশান্ত, সিরাজ - সেটাই করে দেখালেন বিধর্বের পেসার। তার আগে অবশ্য বার্নস এবং হামিদকে তুলে নিয়ে ইংল্যান্ডকে প্রথম আঘাত দিয়েছিলেন বুমরা। দিনের শেষ সেশন নিজেদের নামে করল ভারত।

    দিনের শেষে উইকেটে আছেন মালান এবং নাইট ওয়াচম্যান ওভারটার্ন। কম রানে নিজেরা শেষ হয়ে গিয়ে ভারত চেষ্টা করবে ইংল্যান্ডকে যত সম্ভব কম রানে গুটিয়ে দেওয়ার। রুট ফিরে যাওয়ায় অর্ধেক কাজ হয়ে গিয়েছে। বাকি কাজ শুক্রবার সকাল থেকে করতে হবে ভারতীয় বোলারদের।

    ইংল্যান্ডের হয়ে চার উইকেট ক্রিস ওকসের। চোট সারিয়ে দলে ফিরে এসেই নিজেকে প্রমাণ করলেন তিনি। তিনটি উইকেট রবিনসনের। লিডস টেস্টেও ভারতকে যথেষ্ট বেগ দিয়েছিলেন তিনি। ব্যাট হাতে দুরন্ত খেলতে শুরু করেন শার্দূল ঠাকুর। ৩৬ বলে ৫৭ রান করেন তিনি। মেরেছেন তিনটি ছক্কাও। সাতটি বাউন্ডারি।

    Published by:Rohan Chowdhury
    First published: