• Home
  • »
  • News
  • »
  • sports
  • »
  • OTHER SPORTS TOKYO OLYMPICS BRAZIL BEAT MEXICO IN TIEBREAKERS TO REACH FINAL OF MENS FOOTBALL RRC

Brazil Final : মেক্সিকোকে হারিয়ে অলিম্পিক ফুটবলে ফাইনালে উঠল ব্রাজিল

ফাইনালের টিকিট পেল ব্রাজিল

Brazil beat Mexico in tiebreakers. কাশিমায় আজ অলিম্পিক ফুটবলের সেমিফাইনালে মেক্সিকোকে টাইব্রেকারে ৪–১ গোলে হারিয়ে ফাইনালে উঠেছে ব্রাজিল

  • Share this:

    ব্রাজিল -০ মেক্সিকো -০

    টাইব্রেকারে ৪-১ জয়ী ব্রাজিল

    #টোকিও: কঠিন ম্যাচে জয় পেল ব্রাজিল। বিশ্ব ফুটবলে যে কটা দল ব্রাজিলকে ভোগায়, তাদের মধ্যে অন্যতম মেক্সিকো। আজও হলুদ জার্সিধারীদের কাজটা কঠিন করে তুলেছিল তাঁরা। কিন্তু শেষ হাসি হাসল সেই সাম্বা ব্রিগেড। অলিম্পিক ফুটবলে সোনা ধরে রাখার চ্যালেঞ্জে ব্রাজিলের সামনে এখন ধাপ বাকি একটি। কাশিমায় আজ অলিম্পিক ফুটবলের সেমিফাইনালে মেক্সিকোকে টাইব্রেকারে ৪–১ গোলে হারিয়ে ফাইনালে উঠেছে ব্রাজিল।

    নির্ধারিত ও অতিরিক্ত সময়ে ম্যাচটি ছিল গোলশূন্য। নির্ধারিত সময়ের মধ্যেই জয় তুলে নেওয়ার সুযোগ পেয়েছিল ব্রাজিল। ৮২ মিনিটে রিচার্লিসনের হেড মেক্সিকোর গোলপোস্টে লেগে প্রতিহত হয়। গোলের সুযোগ পেয়েছিল মেক্সিকোও। দ্বিতীয়ার্ধে তারা অন্তত দুটি গোলের সুযোগ নষ্ট করে। টাইব্রেকারে নিজেদের গোলকিপার সান্তোসকে ধন্যবাদ দিতেই পারে ব্রাজিল। মেক্সিকোর এদুয়ার্দো আগুইয়োর স্পটকিক রুখে দেন আতলেতিকো পারানায়েনেসের এই গোলকিপার।

    টাইব্রেকারে এমনিতেই ভাল করতে পারেনি মেক্সিকো। তাদের ডিফেন্ডার হোয়ান ভাসকেজও টাইব্রেকারে লক্ষ্যভেদ করতে পারেননি। গোলপোস্টে মারেন তিনি। মেক্সিকোর হয়ে শুধু কার্লোস রদ্রিগেজ লক্ষ্যভেদ করতে পেরেছেন। ব্রাজিলের হয়ে গোল করেন দানি আলভেজ, মার্তিনেল্লি, গুইমারায়েজ ও রেইনার। রেইনারের ডান পায়ের শট মেক্সিকোর জালে জড়ালে ফাইনাল নিশ্চিত হয় ব্রাজিলের।

    সেমিফাইনালে আজ আরেক ম্যাচে স্পেনের মুখোমুখি হবে অলিম্পিকের স্বাগতিক জাপান। এ ম্যাচে বিজয়ী দলের বিপক্ষে ফাইনালে লড়বে ব্রাজিল। তবে টাইব্রেকারে হেরে মেক্সিকোর বিদায় নেওয়াটা হতাশার। ২০১২ অলিম্পিকে সোনাজয়ী মেক্সিকো ৪ ম্যাচে ১৪ গোল করে উঠে এসেছিল সেমিফাইনালে। কোয়ার্টার ফাইনালে দক্ষিণ কোরিয়ার জালে ৬ গোল করে তারা। ব্রাজিলের বিপক্ষে প্রথমার্ধের শেষদিকেও গোলের সুযোগ পেয়েছিল মেক্সিকো। লুইস রোমোর সে প্রচেষ্টা রুখে দেন সান্তোস।

    ম্যাচ শেষে ব্রাজিলের কোচ আন্দ্রে জর্ডিন জানিয়েছেন মেক্সিকো অত্যন্ত কঠিন প্রতিদ্বন্দ্বীতা প্রমাণিত হবে জানা ছিল। এরকম দলের বিপক্ষে খেলা সব সময় কঠিন। কিন্তু তার মধ্যেও ব্রাজিল তুলনায় বেশি সুযোগ তৈরি করেছিল। সঠিকভাবে কাজে লাগাতে পারলে খেলা টাইব্রেকার যাওয়ার দরকার পড়ত না।

    কিন্তু শেষ পর্যন্ত ফাইনালে উঠতে পারা বড় ব্যাপার। শেষবার নিজেদের ঘরের মাঠে ফাইনালে জার্মানিকে হারিয়ে স্বর্ণপদক জিতেছিল নেইমারের ব্রাজিল। ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়নরা ট্রফি ধরে রাখতে পারে কিনা সেটাই এখন দেখার। তবে এই নিয়ে পরপর তিনবার অলিম্পিক ফুটবলের ফাইনাল খেলবে ব্রাজিল।

    Published by:Rohan Chowdhury
    First published: