• Home
  • »
  • News
  • »
  • sports
  • »
  • Australian Open vaccination : অস্ট্রেলিয়ান সরকারের ভ্যাকসিনের নীতি নিয়ে বিরক্ত জোকোভিচ, নাও খেলতে যেতে পারেন

Australian Open vaccination : অস্ট্রেলিয়ান সরকারের ভ্যাকসিনের নীতি নিয়ে বিরক্ত জোকোভিচ, নাও খেলতে যেতে পারেন

অস্ট্রেলিয়ান ওপেনে নাও খেলতে পারেন জোকোভিচ

অস্ট্রেলিয়ান ওপেনে নাও খেলতে পারেন জোকোভিচ

Novak Djokovic participation in Australian Open remains in doubt. সার্বিয়ার একটি সংবাদপত্রে নোভাক জকোভিচ, অস্ট্রেলিয়া সরকারের এই সিদ্ধান্তের প্রতিবাদ করেন এবং জানান তার অস্ট্রেলীয় ওপেনে অংশগ্রহণ করা এখনও অনিশ্চিত।

  • Share this:

    #মেলবোর্ন: শনিবার অস্ট্রেলিয়ান ওপেনের প্রধান ক্রেগ টিলে জানিয়ে দিয়েছেন প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণের জন্য ভ্যাক্সিনেশন বাধ্যতামূলক। নোভাক জোকোভিচ সহ বাকি সব প্লেয়ার যাদের দুটি ডোজ ভ্যাকসিন সম্পূর্ণ হয়নি তাদেরকেও ভ্যাক্সিনেশন করাতে হবে। টিলে বললেন, নোভাক জানিয়েছেন যে এটি তার অত্যন্ত ব্যক্তিগত ব্যাপার। নোভাককে আমরা এখানে খেলতে দেখে খুশি হব, কিন্তু অংশগ্রহণ করার জন্য ভ্যাক্সিনেশন বাধ্যতামূলক। কিছুদিন আগেই অক্টোবরে অস্ট্রেলিয়া সরকারের তরফ থেকে জানানো হয় বিদেশ থেকে আসা অ্যাথলিটদের করোনা ভ্যাকসিনের তথ্য দেখানো বাধ্যতামূলক।

    আরও পড়ুন - Fakhar Zaman support in Bangladesh: পাকিস্তানের জন্য বাংলাদেশি সমর্থকদের ভালোবাসা দেখে অবাক ফখর জামান

    অস্ট্রেলিয়ার ভিক্টোরিয়া রাজ্যের মেলবোর্ন শহরে অনুষ্ঠিত হবে অস্ট্রেলিয়ান ওপেন। টুর্নামেন্টে অংশগ্রহণের জন্য সবাইকে তাদের ভ্যাকসিনের দুটি ডোজ সম্পূর্ন করা বাধ্যতামূলক। যদিও সরকার পরিষ্কার করে তখনও জানায়নি আর কি কি তথ্য প্রয়োজন অ্যাথলিটদের অস্ট্রেলিয়ার মাটিতে নামতে হলে।সার্বিয়ার একটি সংবাদপত্রে নোভাক জকোভিচ, অস্ট্রেলিয়া সরকারের এই সিদ্ধান্তের প্রতিবাদ করেন এবং জানান তার অস্ট্রেলীয় ওপেনে অংশগ্রহণ করা এখনও অনিশ্চিত।

    যেরকম পরিস্থিতি দেখছেন তাতে তিনি বলতে পারছেন না আদৌ মেলবোর্ন এ তিনি খেলতে যাবেন কিনা। তিনি কিছুতেই তার ভ্যাকসিনের তথ্য প্রকাশ করবেন না কারণ তিনি মনে করছেন এটি একটি অত্যন্ত ব্যক্তিগত ব্যাপার এবং এটি নিয়ে জিজ্ঞেস করা অত্যন্ত অনুচিত। তিনি বলেন, মানুষ এখন অনেক দূর চলে যায় ব্যক্তিগত ব্যাপারে জানতে চেয়ে এবং শুধু তাই না, ব্যক্তিগত পছন্দের ওপর ভিত্তি করে চরিত্র বিচার করে। তাই এই নিয়ে জিজ্ঞেস করলে, যাই উত্তর হোক না কেন সেটি তার বিরুদ্ধেই ব্যবহৃত হবে।

    তবে অস্ট্রেলিয়ার প্রধানমন্ত্রী স্কট মরিনসন জানিয়ে জানিয়েছেন, ভ্যাকসিন সম্পূর্ন হয়নি এমন কোনো টেনিস তারকাকে দেশে আসতে দেওয়া হবে না। এলেও ১৪ দিন কোয়ারান্টাইনে থাকতে হবেই।নাদাল নিশ্চিত করেছেন যে মেলবোর্ন পার্কে তিনি টুর্নামেন্ট খেলতে আসছেন, কিন্তু রজার ফেডেরার তার হাঁটুর চোটের জন্য দশম অস্ট্রেলিয়ান ওপেনে অংশগ্রহণ করবেন না।

    তবে বিশ্বের সেরা টেনিস তারকা নোভাক জোকোভিচ শেষ পর্যন্ত না এলে বছরের প্রথম গ্র্যান্ড স্লামের জৌলুস যে অনেকটাই কমে যাবে সেটা বলার অপেক্ষা রাখে না। কিন্তু অস্ট্রেলিয়া সরকারের নীতি খুব পরিষ্কার। তারকা বড় কথা নয়। করোনা লাঘব করার নিয়ম সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ স্কট মরিসন সরকারের কাছে।

    Published by:Rohan Chowdhury
    First published: