Home /News /sports /

Tokyo Olympics: এই খাটে দিব্যি করা যাবে সেক্স! 'Anti-Sex Bed'-এ লাফিয়ে দেখলেন অ্যাথলিট

Tokyo Olympics: এই খাটে দিব্যি করা যাবে সেক্স! 'Anti-Sex Bed'-এ লাফিয়ে দেখলেন অ্যাথলিট

অনেকেরই মনে প্রশ্ন ছিল, কী এমন থাকবে সেই খাটে যাতে কেউ যৌনতায় লিপ্ত হতে পারবেন না!

  • Share this:

    #টোকিও:

    আর কয়েকদিন পরই টোকিও অলিম্পিক শুরু। গ্রেটেস্ট শো অন দ্য আর্থ শুরুর আগে একের পর এক খবর ছড়াচ্ছে। আর সেই সব খবরের বেশিরভাগই গেমস ভিলেজ-এর ভিতরের। কখনও শোনা যাচ্ছে, অ্যাথলিটদের মধ্যে এক লাখ ৬০ হাজার কন্ডোম বিলি করা হয়েছে। কখনও আবার শোনা যাচ্ছে, অ্যাথলিটদের যৌন মিলন রুখতে অ্যান্টি সেক্স বেড তৈরি করেছে কর্তৃপক্ষ! কিন্তু এই সব খবরের সত্যতা কতটা! আদৌ কি যে সব খবর ছড়াচ্ছে সেগুলি আসল‍! নাকি ইচ্ছা করেই একের পর এক ফেক নিউঝ ছড়িয়ে দেওয়া হচ্ছে! এদিকে, আন্তর্জাতিক অলিম্পিক কাউন্সিল এসব খবর নিয়ে কিছুই জানাচ্ছে না। ফলে অনেক সময়েই ভুল খবর আগুনের মতো ছড়িয়ে পড়ছে।

    কিছুদিন আগেই একটি খবর ছড়িয়েছিল। অ্যাথলিটদের জন্য গেমস ভিলেজে অ্যান্টি-সেক্স বেড রাখা হবে। এই খাটে কোনও অ্যাথলিট চাইলেও যৌন মিলন করতে পারবেন না। অনেকেরই মনে প্রশ্ন ছিল, কী এমন থাকবে সেই খাটে যাতে কেউ যৌনতায় লিপ্ত হতে পারবেন না! অলিম্পিক কর্তৃপক্ষ এবার বাড়তি সতর্ক। করোনার জন্যই যে এই সতর্কতা তা আর বলার অপেক্ষা রাখে না। ফলে খবর ছড়িয়ে পড়ে, কর্তৃপক্ষ এবার অ্যাথলিটদের গেমস ভিলেজে যৌন মিলনেও বাধা দেবে। সেই জন্য অ্যাথলিটদের ঘরে কার্ড বোর্ডের তৈরি খাট রাখা হবে। এই খাট বিশেষভাবে তৈরি হয়। তেমন মজবুত হয় না। এমনভাবেই তৈরি করা হয় যাতে একজনের বেশি বসলে বা শুয়ে পড়লে এই খাট ভেঙে যাবে।

    অ্যান্টি-সেক্স বেড কি সত্যিই থাকছে! নাকি এই খবর ভুয়া! আয়ারল্যান্ডের জিমন্যাস্ট Rhys Mcclenaghan সেটা বুঝিয়েদিলেন হাতে-নাতে। তিনি একটি ভিডিও শেয়ার করেছেন। সেই ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে, তিনি অলিম্পিক ভিলেজের খাটে রীতিমতো লাফাচ্ছেন। আর তাতেও খাটের কিছুই হচ্ছে না। তিনি জানিয়েছেন, গেমস ভিলেজে অ্যান্টি সেক্স বেড থাকার খবর একেবারেই ঠিক নয়। অলিম্পিক কাউন্সিল তাদের অফিসিয়াল টুইটার হ্যান্ডেল থেকে সেই ভিডিও শেয়ার করেছে। অ্য়ান্টি সেক্স বেড নিয়ে মিথ ভাঙার জন্য আয়ারল্যান্ডের সেই জিমন্যাস্টকে ধন্যবাদও জানিয়েছে আন্তর্জাতিক অলিম্পিক কাউন্সিল।

    Published by:Suman Majumder
    First published:

    Tags: Sex, Tokyo Olympics, Tokyo Olympics 2020

    পরবর্তী খবর