• Home
  • »
  • News
  • »
  • sports
  • »
  • Manoj Tiwary: রাজনীতির মাঝেও বাংলার হয়ে বিজয় হাজারে ট্রফি খেলতে চান মনোজ, মন্ত্রীর ফিটনেস নিয়ে খুশি নন অরুণলাল

Manoj Tiwary: রাজনীতির মাঝেও বাংলার হয়ে বিজয় হাজারে ট্রফি খেলতে চান মনোজ, মন্ত্রীর ফিটনেস নিয়ে খুশি নন অরুণলাল

ইডেনে ভারত-নিউজিল্যান্ড ম্যাচের দিন সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়ের সঙ্গে মনোজ তিওয়ারি

ইডেনে ভারত-নিউজিল্যান্ড ম্যাচের দিন সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়ের সঙ্গে মনোজ তিওয়ারি

Manoj Tiwary wants to play Vijay Hazare Trophy: ইয়ো ইয়ো টেস্টে ভালো ফল করেননি মন্ত্রী।ঝাড়খণ্ডের বিরুদ্ধে পাঁচটি প্রস্তুতি ম্যাচে মনোজকে দেখে সিদ্ধান্ত নিতে পারেন নির্বাচকরা।

  • Share this:

কলকাতা: কথায় বলে যে রাঁধে সে চুলও বাঁধে। এবার প্রবাদ অনুযায়ী সেরকমই যে রাজ্যের ব্যস্ত মন্ত্রী হয়, সে ক্রিকেট মাঠে ব্যাট হাতে ঝড়ও তোলে। মনোজ তিওয়ারি রাজ্যের ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী তথা শিবপুরের বিধায়ক (Manoj Tiwary wants to play Vijay Hazare Trophy)।

রাজনীতিতে আসলেও ক্রিকেটকে এখনই বিদায় জানাতে চান না মনোজ। সৈয়দ মুস্তাক আলি টি-টোয়েন্টি ট্রফিতে (Syed Mushtaq Ali Trophy) বাংলার হয় না খেললেও এবার বিজয় হাজারে ট্রফিতে (Vijay Hazare Trophy) সাদা বলের ক্রিকেটে নামতে চান মনোজ। ব্যস্ততার মাঝেও নিয়মিত অনুশীলন করছেন বাংলার প্রাক্তন অধিনায়ক। রাজনৈতিক মিটিং মিছিল করার পাশাপাশি দফতর সামলেও সুযোগ পেলেই অনুশীলনে মগ্ন হচ্ছেন মনোজ।

আরও পড়ুন- চার বছর হোয়াটসঅ্যাপ ডিপি বদলাননি শ্রেয়স আইয়ারের বাবা! জানালেন অবাক করা কারণ

দলের শীর্ষ নেতৃত্ব থেকে অনুমতি নিয়ে নিয়েছেন বাংলার জার্সিতে নামার জন্য। বৃহস্পতিবার ঝাড়খণ্ডের বিরুদ্ধে বাংলার প্রস্তুতি ম্যাচে মাঠে নেমেছিলেন মনোজ। চোট পাওয়ার পর প্রায় দেড় বছর মাঠের বাইরে রয়েছেন প্রাক্তন ভারতীয় ক্রিকেটার। তার মধ্যেই রাজনীতিতে প্রবেশ মনোজের। ভোটে জিতে রাজ্যের ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রীর দায়িত্ব। তবে গুরুদায়িত্ব পেলেও ক্রিকেটকে এখনই গুডবাই জানাতে চান নাম মনোজ। তাই মরশুমের শুরু থেকেই অনুশীলন করছেন।

ভোট নিয়ে ব্যস্ত থাকায় কয়েক মাস অনুশীলনী বিঘ্ন হয়েছিল বটে,  তবে আস্তে আস্তে সব সামলে উঠছেন।নিজেকে সম্পূর্ণ ফিট মনে না করায় এবং টি-টোয়েন্টি ফরম্যাটে জুনিয়র দের সুযোগ দেওয়ার জন্য মুস্তাক আলিতে বাংলা হয়ে নামেননি। তবে একদিনের ক্রিকেটে বাংলা জার্সিতে নামতে চান মনোজ। ইতিমধ্যেই বেশ কয়েকটি প্রস্তুতি ম্যাচ খেলেছেন। মনোজ জানান, ‘‘ক্রিকেটের জন্যই আমার সবকিছু। আমি এখনও ক্রিকেট উপভোগ করি। চোট সারিয়ে আস্তে আস্তে ফিট হয়েছি। আমার মধ্যে ক্রিকেট বাকি আছে। আশা করি বাংলাকে বিজয় হাজারে ট্রফিতে ভালো জায়গায় নিয়ে যেতে পারব। শুধু বিজয় হাজারে ট্রফি না আমি রঞ্জি ট্রফিও খেলতে চাই।’’

অভিজ্ঞ মনোজ তিওয়ারি দলে থাকলে সুবিধা হবে বলেই মনে করছে বঙ্গ ক্রিকেটমহল। তবে মনোজ নিজে যতটা উৎসাহী, টিম ম্যানেজমেন্ট কিন্তু ততটা উৎসাহী নয় তাঁর পারফরম্যান্স নিয়ে। সূত্রের খবর, মনোজ তিওয়ারির ফিটনেস নিয়ে খুব একটা খুশি নন কোচ অরুণলাল। ইয়ো ইয়ো টেস্টে ভালো ফল করতে পারেননি মনোজ। পুরনো চোটও নাকি মাঝে মাঝে সমস্যায় ফেলছে। ঝাড়খণ্ডের বিরুদ্ধে প্রথম ম্যাচে সেভাবে রান পাননি। তবে এখনই চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নিতে চান না অরুণলাল।

ঝাড়খণ্ডের বিরুদ্ধে পাঁচটি ম্যাচে মনোজের পারফরম্যান্স দেখার পর চূড়ান্ত সিদ্ধান্তে আসতে চান লালজী। তবে অরুণলাল প্রকাশ্যে বলছেন, "মনোজের নির্বাচন সম্পন্ন ভাবে নির্বাচকদের হাতে। মনোজের মতো অভিজ্ঞ ক্রিকেটার দলে থাকলে লাভ হবে।" আর এখানেই সমস্যায় পড়েছেন সিএবি কর্তারা। মনোজ তিওয়ারি নিজে খেলতে চাইলে তাকে বাদ দেওয়াটা খুব একটা সহজ হবে না বলে মনে করছেন অনেকেই। মনোজের মতো অভিজ্ঞ ক্রিকেটারকে দলের সঙ্গে নিয়ে গিয়ে বসিয়ে রাখাও সম্ভব নয় বলে মনে করছে টিম ম্যানেজমেন্ট। তাই সিএবি কর্তা থেকে নির্বাচক।

আরও পড়ুন-ভারতীয় ফুটবলের ঐতিহাসিক মুহূর্ত, শুক্রবার ব্রাজিলের বিরুদ্ধে খেলবে ভারতের মহিলারা

প্রত্যেকে তাকিয়ে রয়েছেন ঝাড়খণ্ডের বিরুদ্ধে প্রস্তুতি ম্যাচে মনোজ কি রকম পারফরম্যান্স করেন। মনোজ ভালো পারফর্ম করলে তার নির্বাচন নিয়ে কোনও সমস্যা হবে না বলে মনে করেন কর্তারা। তবে উল্টো হলে মনোজের সঙ্গে আলোচনা করতে পারেন সিএবি কর্তারা। সূত্রের খবর, প্রয়োজনে মনোজকে বলা হবে আরও কিছুদিন অনুশীলন করে রঞ্জি ট্রফিতে বাংলা দলে ফেরার জন্য। তাই মনোজ নিয়ে উত্তর পেতে গেলে আরও কয়েকদিন অপেক্ষা করতে হবে।

ঈরণ রায় বর্মন

Published by:Siddhartha Sarkar
First published: