• Home
  • »
  • News
  • »
  • sports
  • »
  • FOOTBALL STATISTICAL ANALYSIS OF BRAZIL VERSUS ARGENTINA BEFORE COPA AMERICA FINAL RRC

১০৭ বছরের পুরনো লড়াই ! দেখে নিন ব্রাজিল বনাম আর্জেন্টিনা পরিসংখ্যান

সাম্বা বনাম আলবিসেলিস্টে লড়াইয়ের পরিসংখ্যান

লড়াইয়ের শুরুটা হয়েছিল ১০৭ বছর আগে। ১৯১৪ সালের ২০ সেপ্টেম্বর দুই দলের ফুটবল মাঠে দেখা হয়েছিল প্রথমবার। সেই থেকে ফুটবলের এই জনপ্রিয় দ্বৈরথ আজও চলে আসছে।

  • Share this:

    #রিও ডি জেনিরো: গেট, সেট, গো! আর কয়েক ঘন্টার অপেক্ষা। তারপর দক্ষিণ গোলার্ধের দুই ফুটবল মহাশক্তির লড়াই শুরু।লড়াইয়ের শুরুটা হয়েছিল ১০৭ বছর আগে। ১৯১৪ সালের ২০ সেপ্টেম্বর দুই দলের ফুটবল মাঠে দেখা হয়েছিল প্রথমবার। সেই থেকে ফুটবলের এই জনপ্রিয় দ্বৈরথ আজও চলে আসছে। আর বিশ্ব ফুটবলে দুই দলই একটু একটু করে নিজেদের তুলে নিয়ে গেছে অনন্য উচ্চতায়। দুই দল মিলিয়ে এ পর্যন্ত  বিশ্বকাপ জিতেছে সাতবার।

    ইউরোপে ফুটবল মানে শক্তি, গতি আর চাকচিক্য। লাতিন ফুটবল মানে স্কিলের ঝলকানি, বলকে কথা বলানো, ব্যক্তিগত নৈপুণ্য দেখিয়ে দর্শক হৃদয়ে ঝড় তোলা। হলুদ সবুজ জার্সির ব্রাজিল এবং নীল-সাদা জার্সির আর্জেন্টিনা দলে বল প্লেয়ার এর অভাব নেই। যুগে যুগে এটাই সত্যি। একসময় যে ব্যাটন ছিল পেলে, গারিঞ্চা, সক্রেটিস, জিকোর ব্রাজিলের হাতে, তেমনই মারাদোনা, কেম্পেস, লিওপোল্ড লুকে, বাতিস্তুতার আর্জেন্টিনাও লাতিন ফুটবলের পতাকা বহন করে চলেছে। এই লড়াই শুধু একটা ফুটবল ম্যাচ নয়। রোমাঞ্চ জাগানো একটা অনুভূতি। দু চোখ মেলে দেখা ছাড়া ভাষায় ব্যক্ত করা কঠিন।

    ভারতীয় সময় রবিবার ভোরে যখন বিখ্যাত মারাকানা স্টেডিয়ামে ব্রাজিল বনাম আর্জেন্টিনা মুখোমুখি নামবে, তখন পরিসংখ্যানের ব্যাপারটা মাথায় আসবে না, তা আবার হয় নাকি? আসুন দেখে নেওয়া যাক কে কোথায় দাঁড়িয়ে।

    আর্জেন্টিনা কোপা আমেরিকা জিতেছে ১৪ বার। ব্রাজিল ৯ বার। আর্জেন্টিনা বিশ্বকাপ জিতেছে ২ বার। ব্রাজিল ৫ বার। মোট ১১১ বার সাক্ষাৎ হয়েছে এই দুই দলের। আর্জেন্টিনা জিতেছে ৪৬ বার ও ব্রাজিল জিতেছে ৪০ বার। ড্র হয়েছে ২৫ বার। মুখোমুখি সাক্ষাতে ১৬০টি গোল করেছে আর্জেন্টিনা। ব্রাজিল করেছে ১৬৩টি গোল। ২০১৯ সালে শেষবার এই দুই দক্ষিণ আমেরিকার মহাশক্তিধরের দেখা হয়েছিল। আর্জেন্টিনা ১-০ গোলে হারিয়েছিল ব্রাজিলকে। গোল এসেছিল মেসির পা থেকে।তার কয়েকদিন আগে কোপা আমেরিকার সেমিফাইনাল ম্যাচে ব্রাজিল জিতেছিল ২-০ গোলে।

    ব্রাজিল সম্ভাব্য একাদশ: এডেরসন (গোলকিপার),ড্যানিলো, মার্কুইনস, থিয়াগো সিলভা, রেনান লোডি, ক্যাসিমিরো, ফ্রেড, লুকাস পাকুইতা, এভার্টন, রিচার্লিসন , নেইমার

    আর্জেন্টিনা সম্ভাব্য একাদশ: এমিলিয়ানো মার্টিনেজ (গোলকিপার), মোলিনা, হার্মান পেজেলা, নিকোলাস ওটামেন্ডি, নিকোলাস ট্যাগলিয়াফিকো, রডরিগো ডি পল, লিয়েন্ড্রো পেরেডেজ, জিওভানি লো সেলসো, লিওনেল মেসি, লওতারো মার্টিনেজ, নিকোলাস গঞ্জালেজ

    Published by:Rohan Chowdhury
    First published: