Home /News /sports /
পয়মন্ত মাঠে পিছিয়ে পড়ে জয় ইস্টবেঙ্গলের

পয়মন্ত মাঠে পিছিয়ে পড়ে জয় ইস্টবেঙ্গলের

পাহাড়ে দুরন্ত ভিক্টর পেরেজ।২৫ মিনিটের লাল-হলুদ ঝড়।ট্রাউ-কে হারিয়ে চারে ইস্টবেঙ্গল।

  • Share this:

ইস্টবেঙ্গল (৪) - ট্রাউ (২)

#ইম্ফল : ৫০ থেকে ৭৫। ২৫ মিনিটের একটা দুর্দান্ত স্পেল। পাহাড়ে লাল-হলুদ ঝড়। আর তাতেই শেষ পাহাড়ের কোলে মণিপুরী বিপ্লব। পিছিয়ে পড়েও ৪-২ গোলে ট্রাউ এফসি-কে হারাল ইস্টবেঙ্গল। পয়মন্ত মাঠে জয় দিয়ে পয়েন্ট টেবিলে উঠে এল চার নম্বরে। ১৩ ম্যাচে ইস্টবেঙ্গলের সংগ্রহ ১৮ পয়েন্ট। ইম্ফলের খুমান স্টেডিয়াম লাল-হলুদের জন্য বরাবরই পয়মন্ত। রবিবাসরীয় সন্ধ্যায় সেখানেই ম্যাচের শুরুটা লেবড়ে ফেলেছিলেন কোচ মারিও রিভেরা। ১৮ মিনিটে এমেকার গোলে এগিয়ে যায় ট্রাউ। ইস্টবেঙ্গল তখন ছন্নছাড়া। উদ্দেশ্যহীন, এলোপাথাড়ি ফুটবলে গ‍্যালারির বিরক্তি বাড়াচ্ছেন জুয়ান, মার্কোস, লালরিনডিকারা। ক্রোমা যেন সন্ধের পাহাড়ে ঘুরতে বেরিয়েছেন। বিরতিতে স্কোরলাইন ট্রাউ ১, ইস্টবেঙ্গল ০। বিরতির পর ভিক্টর পেরেজ ও ব্রেন্ডন পরিবর্ত হিসেবে মাঠে নামতেই ছন্দ খুঁজে পেল লাল হলুদ। মণিপুরী ডিফেন্সের ওপর শুরু হল রোলার-কোস্টার চালানো। মাঝমাঠে ভিক্টর পেরেজ খেলা ধরতেই শুরু হয়ে গেল ব্র‍্যান্ডনের ছটফটে দৌড়।

লাল-হলুদ জার্সিধারীদের টানা ২৫ মিনিটের প্রেসিং ফুটবলে ছারখার ট্রাউ রক্ষণ। গোলের লকগেট খুলতেও দেরি হল না। ৫২ মিনিটে কোলাডোর গোলে সমতায় ফিরল ইস্টবেঙ্গল। ৬৭ মিনিটে কাশিমের গোল। মিনিট দুয়েকের মধ্যে ব্যবধান বাড়ালেন ব্রেন্ডন। ৭৬ মিনিটে পেনাল্টি থেকে ৪-১ করলেন মার্কোস। ৮৫ মিনিটে পেনাল্টি থেকেই ব্যবধান কমান উচে। স্বস্তির পাহাড় জয়ে পয়েন্ট টেবিল ভেসে উঠল লাল-হলুদ। ফিরে পেল সম্মানজনক অবস্থান। ভিক্টর পেরেজ আসায় অনেকটাই ভদ্রস্থ লাল-হলুদের মাঝমাঠ। কোস্টারিকান বিশ্বকাপার অ্যাকোস্টা এলে ডিফেন্স গুছিয়ে নিতে পারলে লিগের শেষ পর্বে এসে অন্তত ঝলমলে দেখাতে পারে ইস্টবেঙ্গল-কে। খেতাব না আসুক, শতবর্ষে সম্ভাব্য চ্যাম্পিয়নদের হারিয়ে ডার্বিজয়ের নজির তৈরির আশা তো করতেই পারেন সর্মথকরা। গত কয়েক মাস  তো সেটার ছিটেফোটাও ছিল না। চিরপ্রতিদ্বন্দ্বীকে ১৫ মার্চ হারাতে পারলে শতবর্ষে অনেক না-পাওয়া যন্ত্রণার শেষ হবে লাল-হলুদ জনতার। আর ইস্টবেঙ্গলের ১০০ বছরের সেলিব্রেশনটা না হয় ১৫ মার্চ যুবভারতী থেকেই শুরু করবেন সদস্য সমর্থকরা। সেটাই বা কম পাওনা না কী! শতবর্ষের সেলিব্রেশনে লাল-হলুদ জনতার নতুন মিশন হোক পনেরোর যুবভারতী।

PARADIP GHOSH :

Published by:Debalina Datta
First published:

Tags: East Bengal, I-League, আই লিগ, ইস্টবেঙ্গল

পরবর্তী খবর