corona virus btn
corona virus btn
Loading

ইস্টবেঙ্গলের আইএসএল সম্ভাবনা ক্ষীণ! বিনিয়োগকারী জট অব্যাহত লাল-হলুদে

ইস্টবেঙ্গলের আইএসএল সম্ভাবনা ক্ষীণ! বিনিয়োগকারী জট অব্যাহত লাল-হলুদে
আসিয়ান জয়ী দলের সদস্যরা।

এতদিনে কপাল লিখন পড়তে পেরেই আসিয়ানজয়ীদের ঢাল করে ড্যামেজ কন্ট্রোলে নামলেন ইস্টবেঙ্গল কর্তারা?

  • Share this:

কলকাতা : তবে কি আইএসএলে নেই ইস্টবেঙ্গল? ইনভেস্টরের সঙ্গে চুক্তি চূড়ান্ত লাল-হলুদের? ময়দানে কান পাতলেই ঘুরে ফিরে আসছে এই প্রশ্ন। এই মুহূর্তে যা পরিস্থিতি তাতে ২০২০ তে ইস্টবেঙ্গলের আইএসএল খেলার সম্ভাবনা ক্ষীণ। বলা যেতে পারে, সরু সুতোয় ঝুলছে লাল-হলুদের আইএসএল ভাগ্য। তবু ক্লাবটার নাম যেহেতু ইস্টবেঙ্গল! দুনিয়া জুড়ে লক্ষ লক্ষ সমর্থক! তাই শেষ কথা বলার সময় আসেনি!

তবে আইএসএলে ইস্টবেঙ্গলের খেলার সম্ভাবনা ক্ষীণ থেকে ক্ষীণতর হচ্ছে সেটা স্পষ্ট। রবিবার ক্লাবের আসিয়ান জয়ের ১৭ বছর পূর্তিতে ভাইচুং ভুটিয়া, আলভিটোদের মত সম্বলিত একটি আবেদন ক্লাবের পক্ষ থেকে প্রকাশ করা হয়। যেখানে লাল-হলুদের আসিয়ান জয়ীরা আবেদন জানিয়েছেন, "বর্তমান পরিস্থিতিতে আইএসএল খেলার থেকেও গুরুত্বপূর্ণ করোনা মহামারীর বিরুদ্ধে লড়াই করা।"

কোভিড পরিস্থিতিতে সমাজের পাশে দাঁড়ানোটাই ক্লাবের অগ্রাধিকার। সন্দেহ নেই, মহৎ উদ‍্যোগ। কিন্তু একই সঙ্গে প্রশ্নটাও রয়েছে। মার্চ মাস থেকে করোনার দাপটে বিধ্বস্ত দেশের খেল দুনিয়া। আজ ২৬ জুলাইতে এসে প্রাক্তনীদের সামনে রেখে আবেদন কেন?

ফুটবল মহলের খবর, ইতিমধ্যেই দশটি ফ্র্যাঞ্চাইজি নিয়ে নভেম্বরে আইএসএল শুরু করার ব্লু-প্রিন্ট সাজিয়ে ফেলেছেন আয়োজক এফএসডিএল। অংশগ্রহণকারী দশটি দলের কাছে পৌঁছে গিয়েছে আসন্ন আইএসএল-র নিয়মাবলী। তাহলে কি এতদিনে কপাল লিখন পড়তে পেরেই আসিয়ানজয়ীদের ঢাল করে ড্যামেজ কন্ট্রোলে নামলেন ইস্টবেঙ্গল কর্তারা?

দ্বিতীয় প্রশ্ন, অর্থাৎ ইস্টবেঙ্গলের বিনিয়োগকারী প্রসঙ্গে বলতে হয়, ইউএসইএল-র শর্তের জট এখনও খোলেনি লাল-হলুদে। শেয়ার হোল্ডিং ও কী নামে ইস্টবেঙ্গল খেলবে, সেই নিয়ে জটিলতা রয়ে গেছে রবিবার পর্যন্ত। ইস্টবেঙ্গল ক্লাব যে কোন মূল্যে ২৬ শতাংশ শেয়ার নিজেদের হাতে রাখতে চাইছে। যাতে যে কোনও পরিস্থিতিতে স্পেশাল জেনারেল মিটিং ডেকে রেজোলিউশন পাশ করিয়ে নিতে পারেন ক্লাব কর্তারা। অন্য দিকে ৮০% শেয়ার অধিগ্রহণের বিষয়ে জোর দিচ্ছেন বিনিয়োগকারীরা।

এরপরেও তাদের শর্ত, আইএসএল খেলতে ক্লাবের আগে তাদের সংস্থার নাম জুড়তে হবে। আইএসএলের নিয়মে যেটা আবার একেবারেই সম্ভব নয়। ফলে সেখানেও বাধা। সব মিলিয়ে আসিয়ান জয়ের ১৭ বছর পূর্তিতে অস্বস্তিকর চোরকাঁটায় বিদ্ধ লাল-হলুদ।

এরপরেও আরও একটা বিষয় রয়েছে। আইএসএল খেলার বিষয়ে আগাম নিশ্চয়তা চাইছে ইস্টবেঙ্গলে বিনিয়োগে ইচ্ছুক ইউএসইএল। ক্লাবের পক্ষ থেকে সিঙ্গাপুরের সংস্থাটিকে বোঝানোর চেষ্টা চলছে, আইএসএলে খেলার সব রকম শর্তাদি পূরণ করার পরেই এই বিষয়ে এফএসডিএলের কাছে আবেদন রাখতে পারবে ক্লাব। সেক্ষেত্রে আগাম নিশ্চয়তা দেওয়া সম্ভব কোন যুক্তিতে? এটাও বাস্তব, ২০২০-র আইএসএলে ইস্টবেঙ্গল না থাকলে বিনিয়োগকারীরা আদতে কতটা আগ্রহ দেখাবেন!

Published by: Arka Deb
First published: July 28, 2020, 9:02 AM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर